fbpx
Tuesday, September 27, 2022

Emraan Hashmi-Sunny Leone: বলিউডে এসেই ইমরানের সন্তানের মা সানি লিওনি? তারকা বাবা-মা’কে নিয়ে তথ্য ফাঁস ২০ বছরের ছেলের

বলিউড মানে এক রাশ জল্পনার আকাশ, যেখানে নানা সময় নানা গুঞ্জন। লুকিয়ে লুকিয়েই কখনও গড়ে উঠছে কোনও নতুন সম্পর্ক। আবার কখনও সকলের অজান্তেই ঘটে যাচ্ছে বিচ্ছেদ। এছাড়াও নানা অন্ধকারাচ্ছন্ন তথ্য তো রয়েছেই যেখানে কখনওই পৌঁছতে পারে মিডিয়ার সন্ধানী আলো। একবার ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকেই নিজের মা বলে বসেছিলেন এক যুবক। তাঁর দাবি, তিনি নাকি ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের অল্প বয়সে হওয়ার ‘ভুলের’ ফলাফল। এমন মন্তব্য অবশ্য বেশ শোরগোল পড়েছিল নেট দুনিয়ায়। তাতে বলিউডের তারকারা পাত্তা না দিলেও নেটিজেনদের কাছে সেই খবর বেশ জল্পনা-কল্পনার আধারে উপস্থাপিত হয়েছিল। 

তবে এমন অযৌক্তিক বা বলা চলে জল্পনা পূর্ণ মন্তব্য শুধু ঐশ্বর্যকে নিয়েই নয়। হয়েছিল সকলের প্রিয় ইমরান হাশমি ( Emraan Hashmi ) ও সানি লিওনিকে ( Sunny  Leone ) নিয়ে। এমনিতেও এই দুই তারকাকে নিয়েই নানা জল্পনা করে থাকে নেটমহল। তবে সেই সবে বিশেষ পাত্তা দেন না এই দুই তারকা। কিন্তু তারকা পাত্তা না দিলেও নেটিজেনরা কিন্তু থামে না জল্পনা কষতে। আর ইমরান হাশমি ( Emraan Hashmi ) ও সানি লিওনিকে ( Sunny Leone ) নিয়ে জল্পনা মাত্রা নিয়েছিল তাঁদের সন্তানের কথা ফাঁস হতেই। শুনে হতবাক? কিন্তু এটাই সত্যি! ইমরান হাশমি ও সানি লিওনির ২০ বছরের সন্তান সে।

ঘটনা বিহারের ( Bihar )। সেই রাজ্যের উত্তর প্রান্তের মুজাফরপুরের বাসিন্দা কুন্দন কুমার। বিশ বছর বয়সী এই যুবকের কলেজের অ্যাডমিট কার্ড দেখেই হইচই পড়ে যায় কলেজ চত্বরে। আর শুধুই কলেজ ক্যাম্পাস নয়, গোটা রাজ্য তথা দেশ জুড়েই ছড়িয়ে পড়ে তার কলেজের সেই প্রবেশিকা পত্রের ছবি। উল্লেখ্য, ভীমরাও আম্বেদকর বিশ্ববিদ্যালয়ের ধনরাজ মাহাতো ডিগ্রি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তরফেই তাঁর ওই প্রবেশিকা পত্রের একটি ছবি পোস্ট করা হয়। 

কুন্দনের সেই প্রবেশিকা পত্রের অভিভাবক কলমে নামের জায়গায় দেখা যায় ইমরান হাশমি ও সানি লিওনির নাম।আর যা দেখে চক্ষু চড়ক গাছ  বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের। কোনও রামলাল, শ্যামলাল নয় নিজেকে সোজা ইমরান হাশমি-সানি লিওনির ছেলে বলে  দাবি করে বসলেন বিহারের এই ছাত্র। প্রসঙ্গত, অ্যাডাল্ট ইন্ডাস্ট্রি থেকে বলিউডে আগমন সানি লিওনির। সেই কারণে তাঁর অতীতকে নিয়ে নানা সময় নানা টানাপোড়েন লেগেই থাকে। নিজের অতীতকে চিন্তায় থাকেন অভিনেত্রী খোদ। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, “নিজের অতীত নিয়ে যদি সন্তানরা প্রশ্ন করে বসেন, তখন কী জবাব দেবেন তিনি তা জানা নেই।”

google-news-icon

লেটেস্ট খবর