fbpx

ধর্মের কল বাতাসে নড়ে ! নিজের দোষেই ক্যারিয়ারের দফারফা করেছেন এই পাঁচ বলি তারকা

অনীশ দে, কলকাতা: বলিউডে মী টু আন্দোলন চলাকালীন অনেক অভিনেতা ও অভিনেত্রীর মুখোশ খসে পড়ে। কাস্টিং কাউচ নিয়ে আগে মুখ খুলেছেন রণবীর সিংয়ের মত বড় মাপের অভিনেতারা। শুধুমাত্র অভিনেতা বা প্রযোজক নয় বলিউডের গায়ক এবং পরিচালকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হয়। চলুন দেখে নিই এমন পাঁচ জন অভিনেতা, গায়ক এবং পরিচালকের নাম যাদের নাম জড়িয়েছে এই ঘৃণ্য অপরাধের সাথে –

১) শক্তি কাপুর: ৯০ দশকের প্রায় প্রত্যেকটি হিন্দি কমার্শিয়াল ছবির অন্যতম অভিনেতা শক্তি কাপুর। নায়ক ও শক্তির কমিক জুটি অন্যতম উপাদান ছিল হিন্দি ছবির। ২০০৫ সালে অভিনেতার বিরুদ্ধে কাস্টিং কাউচের মত ঘৃণ্য অপরাধের কঠোর প্রমাণ মেলে। একটি স্টিং অপারেশনে দেখা যায় শক্তি একজন মেয়েকে কাজ পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সুবিধা নিতে চাইছে (Shakti Kapoor scandal)।

shakti

২) অঙ্কিত তিওয়ারি: আশিকি ২ ছবিতে সুন রাহা হ্যায় গানটি গেয়ে চর্চায় এসেছিলেন অঙ্কিত। এরপর একাধিক ছবিতে নিজের সুরের মোহে মাতিয়ে রেখেছিলেন দর্শকদের। পরবর্তীকালে অভিনেতার বিরুদ্ধে তার প্রাক্তন প্রেমিকা একাধিকবার ধর্ষণের মত গুরুতর অভিযোগ তোলেন। ২০১৫ সালে জেলে পর্যন্ত যেতে হয় তাকে (Ankit Tiwari rape case)।

ankit tiwari

৩) মধুর ভান্ডারকর: ২০০৪ সালে প্রীতি জৈন নামের এক মডেল বিস্ফোরক অভিযোগ আনেন মধুর ভান্ডারকরের বিরুদ্ধে। এই মডেল জানান ১৯৯৯ থেকে ২০০৪ পর্যন্ত একাধিকবার তাকে ধর্ষণ করেন ভান্ডারকর। এমনকি পরবর্তীতে প্রীতি মধুরকে হত্যা করার জন্য কনট্র্যাক্ট দেন একজন খুনীকে।

madhur bhandarkar

৪) দিবাকর ব্যানার্জী: সাংহাই ছবির অডিশন চলাকালীন অভিনেত্রী পায়েল রোতাগির শ্লীলতহানি করেন দিবাকর, এমনটিই অভিযোগ আনেন সেই অভিনেত্রী। পরবর্তীতে এই বাঙালি পরিচালক সমস্ত অভিযোগকে নস্যাৎ করে দেন।

dibakar banerjee
আরও পড়ুন:থানার মধ্যেই মহিলাকে দিয়ে গা টেপালেন অর্ধনগ্ন পুলিশ অফিসার! রইল ভিডিও
৫) রাজেশ খান্না: রাজেশ খান্নার লিভ ইন সঙ্গী আনিতা আডবাণী তার বিরুদ্ধে এক গুরুতর অভিযোগ করেন। তিনি একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন যে তিনি যখন নাবালিকা ছিলেন তখন একদিন রাজেশ খান্না হঠাৎ তাকে (অনিতা) জড়িয়ে ধরে চুমু খেয়েছিলেন। ১৩ বছর বয়সে এই ঘটনাটি ঘটে অনিতার সাথে। তিনি এও জানান যে রাজেশ খান্নার ভয়ে ওই ঘটনার কথা তিনি কাউকে বলেননি।

rajesh khanna album

google-news-icon

লেটেস্ট খবর