fbpx

Ogo Bodhu Sundori: ঘুরে ফিরে অভিনয়েই আসা, ‛ওগো বধূ সুন্দরী’র ললিতা চরিত্রকে মানা করে আজও হাত কামড়ান এই অভিনেত্রী

ঋতাভরী চক্রবর্তী নয়, ‘ললিতা’র চরিত্রের জন্য প্রযোজকের পছন্দ ছিল অন্য কেউ! কিন্তু কে সে?

মন্টি শীল, কলকাতা: ঘটনাটির সূত্রপাত ২০০৮ সালে। আর সময়টা ছিল শারদোৎসবের মরসুম। নিজের নিকট বন্ধু-বান্ধব এবং চেনা-পরিচিতদের নিয়ে কলকাতার বহুল চর্চিত ম্যাডক্স স্কোয়ারের পুজা প্রাঙ্গনে আড্ডায় মেতে ছিলেন ত্বরিতা চট্টোপাধ্যায় ( Twarita Chatterjee )। সূত্র অনুযায়ী, সেই সময় তিনি একজন পেশাদার অভিনেত্রী ছিলেন না, ছিলেন নিছকই একজন কলেজ পড়ুয়া। কিন্তু কথায় আছে, ‘বিড়ালের ভাগ্যে শিকে ছেড়া।’ এদিন কিছুটা এমন ঘটনাই ঘটল ত্বরিতা চট্টোপাধ্যায়ের ( Twarita Chatterjee )।

পুজোর কভারেজ চলাকালীন অজান্তেই এক সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরায় লেন্স বন্দি হয়ে পড়েন ত্বরিতা চট্টোপাধ্যায় ( Twarita Chatterjee )। ব্যাস, তারপর সেই ছবির ছবির সূত্র ধরেই টেলিভিশনের জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ওগো বধু সুন্দরী’ ( Ogo Bodhu Sundori )তে অভিনয় করার প্রস্তাব পান তিনি। তাও আবার ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র ‘ললিতা’র ভুমিকায়। শোনা গিয়েছে, ধারাবাহিকের প্রযোজক রবি ওঝা স্বয়ং ত্বরিতা’কে এই চরিত্রের জন্য নির্বাচন করেন। কিন্তু সেসময় প্রযোজকের দেওয়া সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন ত্বরিতা।

27c32

যদিও এরপর স্বাভাবিক ভাবেই অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তীর ( Ritabhari Chakraborty ) হাত ধরে সফলতার স্বাদ গ্রহণ করে এই জনপ্রিয় ধারাবাহিক। যদিও সেদিন প্রযোজকের দেওয়া সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়া আজও কুরে কুরে খায় অভিনেত্রী ত্বরিতা চট্টোপাধ্যায়। এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন, ‘তিনি সেসময় বুঝে উঠতে পারেননি যে ধারাবাহিকটি দর্শকদের মাঝে এত সফলতা অর্জন করবে।’ শুধু তাই নয়, অভিনেত্রীর করা মন্তব্য অনুযায়ী, ‘অভিনয়ের প্রসঙ্গ নিয়ে তাঁর পরিবারে ভীষণ অমত ছিল, যার দরুন এই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিতে হয়েছে।’


তবে এদিনের সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, ‘তাঁর মধ্যে প্রযোজক রবিজির সঙ্গে কাজ না করার একটা আফশোস রয়ে গিয়েছে। তিনি যদি তাঁর সান্নিধ্যে কাজ করার সুযোগ পেতেন তবে অনেক কিছু শিখতে পারতেন।’ সূত্র অনুযায়ী, অভিনেত্রী পুষ্টি বিদ্যা নিয়ে পড়াশোনা করেছেন। শৈশবে পিতৃহীন হওয়ার পর তাঁর মা তাঁকে বড় করে তুলেছেন। সেসময় অভিনয় জগৎ সম্পর্কে তেমন অভিজ্ঞতা ছিলনা তাঁর মায়ের। তাঁই মায়ের অমতে তিনি এই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। তবে ললিতা চরিত্রে অভিনয় করতে না পারলেও পরবর্তী সময়ে অভিনেত্রী ত্বরিতা চট্টোপাধ্যায় ‘কড়ি খেলা’, ‘করুণাময়ী রাণী রাসমণি’, ‘কাদম্বিনী’ সহ একাধিক ধারাবাহিকের গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র অভিনয় করছেন। তবে ওগো বধু সুন্দরী’র প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়া যে তাঁর জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল ছিল তা তাঁর এদিনের মন্তব্য থেকে স্পষ্ট।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর