fbpx

Adrit-Soumitrisha: ত্রিকোণ প্রেমের জেরেই কি ছেদ পড়ল সিদ্ধার্থ-মিঠাই সম্পর্কে? নিরবতা ভেঙে মুখ খুললেন আদৃত

জয়িতা চৌধুরি,কলকাতাঃ টেলিমহলে জোর গুঞ্জন ‘মিঠাই’ ( Mithai ) ধারাবাহিকের দুই মুখ্য অভিনেতা সৌমিতৃষা কুণ্ডু ( Soumitrisha Kundu ) আর আদৃত রায়ের ( Adrit Roy ) সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। কান পাতালেই শোনা যাচ্ছে দুজনের মধ্যে মুখ দেখাদেখি নাকি একেবারে বন্ধ। সেটে দুজনেই দুজনকে এড়িয়ে চলেন। তবে ক্যামেরার সামনে অবশ্য দেখে তা বোঝার জো নেই। অভিনয়ের জন্য দুজনেই নিজের সবটা উজার করে দিচ্ছেন ক্যামেরার সামনে।

কিন্ত কি কারণে এই মনমালিন্যের সূত্রপাত? টেলিপাড়ায় জোর ফিসফিসানি কৌশাম্বির সঙ্গে আদৃতের প্রেমের সম্পর্কের জেরেই অবনতি নায়ক-নায়িকার সম্পর্কে। এক ঘনিষ্ঠসূত্রের দাবী, আদৃতকে নিয়ে নাকি দুই নায়ক-নায়িকার মধ্যে চলছে টানাটানি। সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী সৌমিতৃষা বলেছিলেন, ‘দু’জনের প্রেমের গল্পে তৃতীয় ব্যাক্তিকে টেনে আনলে মানুষের আগ্রহ বেড়ে যায়।’ তাই এবার পর্দার মিঠাইকে নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেতা আদৃত রায় ওরফে উচ্ছেবাবু ( Adrit Roy )।

mithai 1

তিনি স্পষ্ট জানান, “লোকেরা শো’টা দেখছে সেটা এনজয় করুক। আর আমাদের ব্যক্তিগত জীবনে কার সাথে কী সম্পর্ক, কে কত বন্ধু… আমি অনেকসময়ই দেখি কিছু পেজে মানুষজন স্টুপিড জিনিসপত্র লেখে। …. যখন আমি প্রথম ছবি করেছিলাম নূরজাহান, তখন এই সব কমেন্ট পড়তাম। কিছু মানুষ গঠনমূলক সমালোচনা করত, সেটা ঠিক আছে। কিছু মানুষ চাইত আমি মরে যাই! তখন আমি এইসব নিয়ে ভাবতাম। যত দূর থাকা যায় এই কমেন্টগুলো থেকে ততই ভালো।”

তিনি আরও যোগ করে বলেন, “সোশ্যাল মিডিয়া এমন একটা জায়গা যেখানে সবার হাতে পাওয়ার রয়েছে। লোকজন যা খুশি তাই লিখতে পারে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট তৈরি করে। তাই কার বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া দেব? যারা ভুয়ো প্রোফাইল থেকে কমেন্ট করে, ট্রোল করে তারা আমার জন্য এক্সিস্ট করে না।” ঘটনা নিয়ে সরাসরি কিছু না বললেও তাঁর কথায়ে সাফ যে তিনি সংবাদমাধ্যমকে কৈফিয়ত দিতে নারাজ।

mithai 2

অভিনেতার মতে, “চ্যানেলের ভরসা রয়েছে আমাদের উপর, আমরা সবাই মিলেমিশে কাজ করি। আমরা পরস্পরকে বুঝি…. কারুর মধ্যে কোনও ঝামেলা হয় বা কোনও সমস্যা হয় সেটা আমরা মিটিয়ে নেই। এটা নিয়ে বাইরের লোকজন কমেন্ট করতে শুরু করলে আমি জানি না ঠিক কী বলা উচিত।”  আদৃতের কেরিয়ারের কথা বললে বলতে হয় অভিনয় নয়, ছোট থেকেই তাঁর প্য়াশন মিউজিক। নিজস্ব একটি মিউজিক ব্যান্ডও রয়েছে আদৃতের। নাম ‘পোস্টার বয়েজ’। আর সম্প্রতি প্রয়াত সংগীত শিল্পী কেকে-কে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানিয়েছিলেন আদৃত ও তাঁর ব্যান্ড মেম্বাররা। অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিল সমগ্র মিঠাই পরিবার, তবে আশ্চর্যজনকভাবেই যদিও আশ্চর্যজনকভাবেই গায়েব ছিলেন সৌমিতৃষা কুণ্ডু।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর