fbpx

Naseem Banu: ইংরেজ আমলে ভারতীয় মহিলা সুপারস্টার, যার সৌন্দর্যে মাতোয়ারা ছিল গোটা দেশ

জানেন কি? ভারতের প্রথম অভিনেত্রী নাসিম বানু। ব্রিটিশ আমলে তিনিই ছিলেন একমাত্র মহিলা সুপারস্টার।

জয়িতা চৌধুরি,কলকাতাঃ সালটা ১৯২০। দাদা সাহেব ফালকের হাত ধরে ভারতীয় সিনেমা ( Indian Cinema ) ধীরে ধীরে বিস্তার লাভ করতে শুরু করেছে তখন। বি-টাউনের ঊষালগ্নে চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী মাত্রেই ডুমুরের ফুল! দেখাই মিলত না মহিলা অভিনেতাদের। নারী চরিত্রগুলোতে অভিনয় করতেন পুরুষরাই। তবে সমাজের এই বাঁধাধরা গত থেকে বেড়িয়ে ১৯৩০ সালে বলিউডে ( Bollywood ) অভিষেক ঘটে সর্বপ্রথম অভিনেত্রী নাসিম বানুর ( Nasim Banu )। প্রসঙ্গত, নাসিম বানুই ছিলেন তৎকালীন বলিউডের প্রথম মহিলা সুপারস্টার।

যেমন রুপে লক্ষ্মী, তেমনই গুনে সরস্বতী। তাঁর অপরুপ সৌন্দর্যের কারণে তাঁকে ‘বিউটি কুইন’ বলেও আখ্যা দেওয়া হয়েছিল এককালীন বলিউডে। ১৯১৬ সালে জন্মগ্রহণ করেছিলেন নাসিম বানু ওরফে রওশন আরা বেগম। অভিনেত্রীর বাবা ছিলেন হাসানপুরের নবাব আব্দুল ওয়াহেদ খান। মা শমসাদ বেগম ছিলেন তৎকালীন সময়ের এক সফল গায়িকা। দিল্লির কুইন মেরি হাই স্কুলের মেধাবী ছাত্রীর মা কোনো দিন চাননি তিনি অভিনেত্রী হন।

naseem banu 1তবে মেয়ের ছিল অভিনেত্রী হওয়ার অদম্য ইচ্ছে। একদা শ্যুটিং দেখতে বম্বে গিয়েছিলেন নাসিম। সেখানেই অভিনেতা সোহরাব মোদির নজরে আসেন তিনি। ব্যস! রতনে রতন চেনে। নিজের পরবর্তী ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ দেন নাসিম বানুকে। আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন এক লহমায় পূরণ হয়ে যায় তাঁর। ‘খুন কা ফুল’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ ঘটে অভিনেত্রীর। এরপর তিনি ‘পুকার’ ছবিতে নূরজাহানের চরিত্রে অভিনয় করে দর্শক সমাদরে বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন।

naseem banu 2 ‘পুকার’ ছবির জন্য নাকি অভিনেত্রীকে ঘোড়ায় চড়া শিখতে হয়েছিল। শিখতে হয়েছিল গানও। তাঁর গাওয়া ‘জিন্দেগি কা সাজ ভি আয়া হ্যায়’ গানটি সেই সময়ে বেশ হিটও হয়েছিল গোটা দেশ জুরে। তাঁর ঝুলিতে রয়েছে ‘ম্যায় হরি’, ‘চল চল রে’, ‘নওজোয়ান’, ‘জীবন স্বপ্ন’, ‘দূর চলে’, ‘আনোখি আদা’, ‘শীশমহল’, ‘নওশেরওয়ান ই আদিল’-এর মতো উল্লেখযোগ্য সব চলচ্চিত্র। তবে জানেন কি একের পর এক ছবিতে কাজ করেও তাঁর পারিশ্রমিক কত ছিল? মাত্র ৩৫০০ টাকা।

naseem banu 3 বলিউডের জনপ্রিয় হিরোইন আর নাসিম বানুর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কাটাছেঁড়া হবে না, তাও কি সম্ভব? অভিনেত্রী বিয়ে করেছিলেন তাঁর ছোটবেলার বন্ধু এহসান-উল-হককে। তবে দেশভাগের সময় এহসানকে চলে যেতে হয় পাকিস্তানে। মেয়েকে নিয়ে ভারতেই থেকে যান নাসিম। তাঁদের একমাত্র মেয়ের নাম সায়রা বানু ( Saira Banu )। হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন। ষাটের দশকের বলিউড কাঁপানো এই অভিনেত্রী সায়রা বানুর মা ছিলেন নাসিম বানু। ১৯৩০-১৯৫০, প্রায় দুই দশক ব্যাপী বলিউড ও হিন্দি সিনেমাকে সমৃদ্ধ করেছিলেন নিজের সৌন্দর্য ও অভিনয় শৈলীর মাধ্যমে। আর সেই বলিউডই আজ তাঁদের অন্যতম সুপারস্টারকে ভুলতে বসেছেন।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর