fbpx

Annwesha Hazra: ক্লাস ফাইভেই অঙ্কে ফেল! বইপত্র নয়, নিজের অভিনয়কে কাজে লাগিয়ে উন্নতির শীর্ষে ‘উর্মি’

কপালে বাঁধা ব্যান্ডেজ, চোখ জলে ছলছল  কিন্তু মুখে যেন একটা না চাইতেও বিকট হাসি। বাংলা ছোট পর্দার (Tollywood) ইতিহাসে এই দৃশ্য হয় তো ভুলে যাওয়া সিরিয়ালপ্রেমীদের পক্ষে অসম্ভব। উর্মির ওরফে অন্বেষার (Annwesha Hazra) এই অভিনয় হতবাক করে দিয়েছিল বহু মানুষকেই। ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ ধারাবাহিকের মধ্যে দিয়ে দর্শকদের মনের কোণে জায়গা করে নিয়েছিল অন্বেষা। অভিনয়ের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে কেরিয়ারে সে এনেছে সফলতা। 

বর্তমানে টেলিপর্দার একটি সুপরিচিত নাম অন্বেষা (Annwesha Hazra)। তবে যেন হাজারও বিতর্ক সর্বদা ঘিরে থাকে এই নামটিকে। কখনও চুনি, কখনও আবার উর্মি হয়ে দর্শকদের মন কেড়েছে সে। কিন্তু তার মাঝেও আবার শুনতে হয়েছে কটূ কথা। সেসবে বিশেষ পাত্তা দিতে পছন্দ করে না উর্মি। নিজের জীবন নিয়েই ব্যস্ত থাকতে ভালোবাসে সে। মাথা ঠান্ডা আসা সকল সমস্যাকে তুড়ি মেরে ভাগিয়ে দিতে পারেন অভিনেত্রী। যা নাকি তাঁর বাবার থেকেই শেখা। তবে জানেন কি অভিনয়ে পটু হলেও অঙ্কে তাঁর ভারী যন্ত্রণা। 

annwesha hazra2

গতকাল শিক্ষক দিবস উপলক্ষে সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) যখন পোস্টের জোয়ার। ঠিক তখনই সকলের মধ্যে দিয়ে নিজের জীবনের সব থেকে বড় শিক্ষক অর্থাৎ বাবার কথা টেনে আনেন অন্বেষা। বলেন, বাবার আঙুল ধরে বড় হয়ে ওঠার কথা, তুলে ধরেন ভালো মানুষ হয়ে ওঠার প্রতিটা শিক্ষার কথা। তবে তাঁর মাঝেই অন্বেষা ফাঁস করে ফেলেন নিজের ছোটবেলার এক কীর্তির কথা। 

অন্বেষার কথায়, “আমার মনে পরে আমি তখন ক্লাস ফাইভ! ফাইনাল পরীক্ষার রেজাল্ট বেড়িয়ে ছিল। আমি ক্লাস ফাইভে অঙ্কতে ফেল করেছিলাম। “লাল কালি” মোটা মোটা করে, আর সব মিলিয়ে থার্ড ক্লাস রেজাল্ট। গুটি গুটি পায়ে বাবার হাতে রেজাল্ট দিলাম, বাবা দেখলেন, দেখে বললেন..’কুলফি খাবি?’ আমি তো পুরো ‘গাছে কাক, আমি অবাক’ অবস্থায়। যেখানে আমারই এক বান্ধবী দুটো সাবজেক্টএ ‘৯০’ এর ঘরে আর বাকি গুলো তে ৮০ এর ওপরে নাম্বার পেয়েও তার বাবার কাছে ভয়ানক বকুনি খেয়েছিল।”

এরপরই যেন জীবনের শিক্ষা পেয়েছিলেন অভিনেত্রী। বাবা কেন বকছেন না এই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করতেই অন্বেষার বাবা জানিয়েছিলেন, “তোমার যদি মনে হয় তোমার রেজাল্ট খারাপ হয়েছে, তা হলে খারাপ হয়েছে। আর তোমার যদি মনে হয় না, এই লালকালি আর কোনো মতে পাশ করে তুমি বেশ করেছো তো তুমি বেশ করেছো। আমি তো সব্বাই কে সত্যি টাই বলবো, আমার তো খারাপ লাগছে না, কারণ রেজাল্ট তোমার।”

তবে সে বহুকাল আগের কথা। অঙ্ক পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়েই যেন জীবনের আসল শিক্ষা পেয়েছিল উর্মি। তবে এর মধ্যেও একটি বিষয় যেন সত্যিই নজরকাড়া। এককালে অঙ্কে ফেল করেও থেমে যায়নি অন্বেষার জীবনের পথচলা। উল্টে নিজেকে আরও উন্নতির শীর্ষে নিয়ে গিয়েছে সে। সাধারণ পড়াশোনার বাইরে বেরিয়ে শিল্পকে বুকে টেনে নিয়ে সে। আর তাতেই যেন বাজিমাত। বাংলা ছোট পর্দা নামতেই মানুষের মন জয়ে সক্ষম হয়েছে অভিনেত্রী। 

google-news-icon

লেটেস্ট খবর