fbpx

Anubrata Mondal: নকশাল আন্দোলন দেখে বড় হওয়া, রাজনীতির ফাঁদে আজ ‛গরু চোর’ কান্ডে অভিযুক্ত কেষ্ট

কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা অত্যাধিক তৎপরতায় ভয়ে কাঁপতে রাজ্যের হেভিওয়েট নেতারা। গেরিলা অভিযানের পরই এবার গরু পাচার চক্রে গ্রেপ্তার তৃণমূল নেতা অনুব্রত মন্ডল। বিগত দশ বার ডাক পাঠিয়ে সাড়া না পেয়ে সোজা বাড়িতে হাজির সিবিআই। আর কোনও অজুহাতই চলবে না, সাফ বক্তব্য সিবিআইয়ের। নোটিশ পাঠানোর পরই গত কিছুদিন ধরে বিছানা নেন বীরভূমের প্রভাবশালী কেষ্ট। এস এস কে এমও ছাড়পত্র দিয়ে দেওয়ায় বীরভূমের সদর দপ্তরের ডাক্তাররা বাড়ি বয়ে এসে চিকিৎসা করেছেন। ভাবুন একবার ক্ষমতার দৌড়। তবুও মিলল না রেহাই শেষপর্যন্ত পবিত্র রখির দিনেই হাতকড়ার বাঁধন পরেছে রাজ্যের বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের। কে এই অনুব্রত মন্ডল? সিবিআইকে এতদিন ধরে নাকাল করলেন, কী তার ক্ষমতা? ইতিহাস কী বলে জানেন?

নিকট অতীত থেকেই শুরু করা যাক। ২০২০ সালে পশু পাচার কান্ডে সিবিআই মামলা দায়ের করেছিল। সেই তালিকায় জ্বলজ্বল করছিল বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের নাম। সিবিআই-এর তথ্য অনুসারে, ২০১৫-১৭ মাত্র দু’বছরে কুড়ি হাজার গরুর মাথা উদ্ধার করে বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স। ইতিমধ্যেই এই মামলায় অনুব্রতর দেহরক্ষী শেহগাল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সংবাদ সূত্রে খবর, ১০০ কোটির মালিক অনুব্রতর দেহরক্ষী।

১৯৬০ এর দশকে জন্মানো বীরভূমের ডন তৃণমূল কংগ্রেস প্রতিষ্ঠার অন্যতম সদস্য। ২০১৩ সালে পশ্চিমবঙ্গের পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রকাশ্যে পুলিশের দিকে বোমা ছোঁড়ার হুমকি দেওয়া হিরো তিনি। আবার কখনও চরাম চরাম ঢাকের হুমকি তো ভোটের আসরে গুর বাতাসা খাওয়ানোর বার্তা দেবার নায়ক তিনি। একাধিক রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে রঙচঙে শাসানি সবের প্রচ্ছন্ন মদৎ থাকত এই কেষ্ট বাবুর। WBSRDA এর সদস্য তিনি। রাজ্যের কোন না কোন কান্ডে বিতর্কের শীর্ষে থাকতেন। তবে সিবিআই এর দৌরাত্ম্যে বেশ কিছু কাল ঠান্ডা হয়েই ছিলেন তবুও মিলল না ছাড়।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতারের সময় দেখা গিয়েছিল ইডির তৎপরতা। আর গতকাল থেকে সামনে আসছে সিবিআইয়ের অতি সক্রিয়তা। প্রাক্তন এস এস সি উপদেষ্টা কমিটির সদস্য শান্তি প্রসাদ সিনহা এবং এস এস সি চেয়ারম্যানকে সিবিআই হাজতে পাঠানো হয়েছে গতকাল। সিবিআই অফিসার রাজীব মিশ্রের নেতৃত্বে একটি দল ৫থেকে ৬টি গাড়ির একটি কনভয় নিয়ে অনুব্রত মণ্ডলের বাড়িতে পৌঁছায় সকাল সকাল। সংক্ষিপ্ত জিজ্ঞাসাবাদের পর মন্ডলকে গ্রেফতার করে সিবিআই। অনুব্রত মণ্ডলকে গ্রেফতার করায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের সামনে নতুন সংকট তৈরি হতে পারে আশঙ্কা করা যাচ্ছে। শিক্ষা নিয়োগ কেলেঙ্কারির কারণে তারা ইতিমধ্যেই টার্গেটে রয়েছে। তারপর আজ অনুব্রত মন্ডলের গ্রেফতারিতে আতঙ্কে ভুগছে শাসক দল।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর