fbpx

Arbaaz khan Birthday: সিনেমার সংখ্যা ৫০, তবু দাদা সলমনের মতো খ্যাতি মিলল না আরবাজের জীবনে, নেপথ্যে কোন কারণ

প্রত্যুষা সরকার, কলকাতা: বলিউডের ভাইজান সলমন খানকে কে না চেনে। তবে তাঁর ছোট ভাই আরবাজ খানকে সালমান খানের ভাই না হলে হয়তো কেউই চিনতো না। দাদার জন্যেই বলিউডে পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। আজ তাঁর ৫৫ তম জন্মদিন ( Arbaaz khan Birthday )। ভাইজানের সূত্রেই চলচিত্রে পা রাখেন আরবাজ। তবে পেশাগত জীবনের থেকে ব্যক্তিগত জীবনের জন্য বেশি শিরোনামে থাকেন তিনি। ২৬ বছরের ক্যারিয়ারে প্রায় ৫০টি ছবিতে কাজ করেছেন, বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে তেমন কোনও ছাপই ফেলতে পারেননি তিনি। যদিও এর পিছনে আরবাজের নিজের কিছু ত্রুটি রয়েছে।

আরবাজ খান চলচিত্রের চেয়ে ব্যক্তিগত জীবন নিয়েই বেশি আলোচনায় থাকেন। কখনও কথা ওঠে তাঁর প্রথম স্ত্রী মালাইকা অরোরাকে নিয়ে আবার কখনও তাঁর গার্লফ্রেন্ড কে নিয়ে। ১৯৯৮ সালে ( Arbaaz khan Birthday ) বলিউডের আর এক অভিনেত্রী এবং ডান্সার মালাইকা অরোরাকে বিয়ে করেন তিনি। তবে বিয়ের ১৯ বছর পর ডিভোর্স হয়ে যায় তাঁদের। একটি সাক্ষাৎকারে, আরবাজ বলেছিলেন যে তিনি ১৯ বছর ধরে তাঁর বিয়ে বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু তিনি তাতে সফল হতে পারেননি।

img 20220804 135245

১৯৯৬ সালে ‘দারার’ ছবি দিয়েই শুরু হয় তাঁর বলিউডের পথ চলা। বলা হয় যে কোনও অভিনেতা যখন আত্মপ্রকাশ ( Arbaaz khan Birthday ) করেন,তখন তিনি একটি শক্তিশালী বা প্রধান ভূমিকা বেছে নেন। কিন্তু আর আরবাজ তা করতে পারেননি। প্রথম ছবিতেই নেগেটিভ রোলে অভিনয় করে নিজের ভাবমূর্তি নষ্ট করেন তিনি। ‘দারার’ ছবিতে মূখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন চাওলা ও ঋষি কাপুর। তাঁর চলচ্চিত্র জীবনে ফিরে তাকালেই দেখা যায় বেশির ভাগ ছবিতেই প্রধান চরিত্রের বদলে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি।

img 20220804 135433

পেয়ার কিয়া তো ডরনা কেয়া, হ্যালো ব্রাদার, দাবাং এবং দাবাং 2 এর মত অনেক ছবিতে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তবে অনেকেই বলে আরবাজের সফল না হওয়ার পিছনে না তাঁর কিছু ভুল সিদ্ধান্তও ( Arbaaz khan Birthday ) দায়। তিনি কখনও তাঁর সঠিক ছবি বেছে নিতে পারেননি। বলিউডের তাঁর অভিনীত হাতে গোনা কয়েকটা ছবি বাদে, বেশিরভাগ সিনেমায় বক্স অফিসে একে বারেই চলেনি। যার মধ্যে রয়েছে ‘মা তুঝে সালাম’, ‘ইয়ে মহব্বত হ্যায়’, ‘সোচ’, ‘কেয়ামত সিটি আন্ডার থ্রেট’, ‘কুছ না কাহো’, ‘আলি বাবা ৪০ চোর’,’ ফুল এন ফাইনাল’,’ঢোল’, ‘দশ কাহানিয়া’, গড ফাদার, হ্যালো, জয় ভিরু কিসান, জিনা ইসি কা নাম হ্যায়, লাভ রাত্রি’ মতো সিনেমা গুলি।

img 20220804 135022

বলিউডে ভাইজান নিজে একজন ফিটনেস এবং শারীরিক গঠনের জন্য পরিচিত অভিনেতা। ভাইজান তাঁর প্রায় প্রত্যেকটা ছবিতেই একবার হলেও শার্টলেস হবে। যা দেখতে তাঁর ভক্তরা খুবই পছন্দ করেন। কিন্তু যখন আরবাজ খানের ( Arbaaz khan Birthday ) কথা আসে তখন তাঁর মধ্যে কখনই এসব দেখা যায় না। তিনি একেবারেই ফিটনেস ফ্রিক নন। তবে এর হাতে এখন বলিউডের কোনো ছবির অফার নেই। সর্বশেষ দাবাং ৩ তে ভাইজানের সঙ্গেইএ দেখা গিয়েছিল তাঁকে। যদিও তা বক্স অফিস ছিল সুপারফ্লপ।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর