fbpx
Saturday, October 1, 2022

Arpita Mukherjee: মেয়ে থাকে ফ্ল্যাটে, মায়ের জন্য ছোট্ট কামরা! কোটি টাকার মোহ ভুলিয়েছে মাতৃস্নেহ?

জয়িতা চৌধুরি,কলকাতাঃ রুপোলি পর্দা থেকে এসএসসি দুর্নীতি হোক বা প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী ( বর্তমান শিল্পমন্ত্রী) পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ( Partha Chatterjee ) সঙ্গে নামের সন্ধি থেকে ইডির গ্রেফতারি সবটা মিলিয়ে এই মুহুর্তে পশ্চিমবঙ্গের মানুষের অন্যতম কৌতূহল অর্পিতা মুখোপাধ্যায় ( Arpita Mukherjee)। গতকাল তার বাড়ি থেকে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট ( ED ) উদ্ধার করেছে ২১ কোটি টাকা। শনিবার সকালে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করার পর অর্পিতাকেও গ্রেফতার করেছে ইডি।

তবে মেয়ের গ্রেফতারের খবরে কি বলছেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের মা। বাংলার প্রথম সারির এক সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কিছুটা আক্ষেপ করেই তিনি জানান, ‘‘বাবা-মা যা চাইবে ছেলেমেয়ে সেটা করবে! তা হলে তো মেয়ের বিয়েই দিতে পারতাম। ওর কথা খবরে শুনেছি। তার সত্যতা নিশ্চয়ই বিচার হবে।’ অর্পিতার মা মিনতি মুখোপাধ্যায় থাকেন বেলঘড়িয়ার রথতলার কাছে একটি জরাজীর্ণ বাড়িতে। তিনি জানান, তাঁর বসতবাড়িটি অর্পিতার পৈত্রিক সম্পত্তি। তবে সূত্রের খবর, ওই এলাকায় অর্পিতার চারটি ফ্ল্যাট আছে। একটিতে অর্পিতা নিজে থাকলেও বাকিগুলো ফাঁকাই পরে আছে। তবে কেন থাকেন না মায়ের সঙ্গে? সপ্তাহে এক-দুদিন দেখা করতে এসেই মিটিয়ে দেন মায়ের প্রতি সবরকম দায়- দায়িত্ব?

ssc scam 1

উল্লেখ্য, শুধু নগদেই শেষ নয়! অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে মোট ৪৮ লক্ষ টাকা, বিপুল সোনা, বৈদেশিক মুদ্রা এবং ২০টি মোবাইল ফোনও। ইতিমধ্যেই তার সম্পত্তির তালিকা তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। একটি বিশেষ সূত্র থেকে খবর পাওয়া থেকে জানা যায় অর্পিতার বীরভূমেও একাধিক সম্পত্তি আছে। বীরভূমের বোলপুর মৌজায় তার বেশ কয়েকটি সম্পত্তির খোঁজ পাওয়া গিয়েছে বলে ইডি সূত্রে খবর।

ssc scam 2

রুপোলি পর্দা ছেড়ে কেন রাজনৈতিক জগতে অনুপ্রবেশ? সূত্রের খবর, দক্ষিণ কলকাতায় ডায়মন্ড সিটি সাউথে এক বিলাসবহুল ফ্ল্যাটের বাসিন্দা অর্পিতা বেহালা পশ্চিম কেন্দ্রে পার্থ চট্টাপাধ্যায়ের সঙ্গে ভোটের প্রচারে গিয়েছেন বারবার। কয়েক বছর ধরে নাকতলা উদয়ন সংঘের পুজোর প্রোমোতেও থেকেছেন তিনি। যদিও তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ জানিয়েছেন দলের সঙ্গে কোন সম্পর্ক নেই অর্পিতা মুখোপাধ্য়ায়ের।

ssc scam 3

কুণাল ঘোষ বলেন, ‘যার বাড়ি থেকে টাকা উদ্ধার হয়েছে, তাঁর সঙ্গে তৃণমূলের কোনও যোগাযোগ নেই। এই টাকার সঙ্গে তৃণমূলের কোনও সম্পর্ক নেই। এই তদন্তে যাঁদের নাম জড়াচ্ছে, জবাব দেওয়ার দায়িত্ব তাঁর ও তাঁদের আইনজীবীদের। কেন দলের নাম জড়িয়ে প্রচার চলছে? দলটা সব নজর রাখছে। যথাসময়ে দল তার বক্তব্য জানাবে। আমরা এখনও পর্যন্ত শুধু ইডির বক্তব্য পেয়েছি।’

google-news-icon

লেটেস্ট খবর