fbpx

Arunima Ghosh: “এবার পুজোয় একটা ‘বর’ চাই”! মা দুর্গার কাছে কাতর প্রার্থনা অভিনেত্রী অরুনিমার

পুজো প্রেম আর বাঙালির একেবারে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বোধনের রঙে আর অষ্টমীর শাড়ি- পাঞ্জাবিতে হাজার প্রেমের গল্প লেখা হয়। টেলি তারকারা রয়েছে সেই তালিকায়। অভিনেত্রী অরুনিমা ঘোষ তার পুজোর আড্ডায় স্বীকার করলেন বেশ কিছু মজার তথ্য। বাংলা সিনেমার অত্যন্ত পরিচিত মুখ অরুনিমা। বেশ কিছু ছবিতে চুকিয়ে কাজ করেছেন অভিনেত্রী।

ছোটবেলার আর বড়োবেলার পুজোর মধ্যে পার্থক্য করে বলেন, ছোটবেলায় মণ্ডপে হইচই, নতুন জামা, ক্যাপ বন্দুক খেলা, ভাইবোনদের সঙ্গে মজা আর জমিয়ে ভোগ খেয়ে কাটত। ছোটবেলার পুজোর মধ্যে অনেক আনন্দ ছিল। দাদুর সঙ্গে ঠাকুর দেখতে যাওয়া সাউথের দিকে প্রচুর ঘুরে বেড়িয়ে কাটত অভিনেত্রীর।তবে ধীরে ধীরে রঙ হারাচ্ছে জীবন। এখন আর সেভাবে বাইরে যান না পুজোয়। সুখী গৃহকোণে বসেই কেটে যায় পুজোর দিনগুলো। এত নিস্তরঙ্গ কেন অভিনেত্রীর বর্তমান জীবন?

আসলে বয়স অনেক হলেও অভিনেত্রীর জীবন নিঃসঙ্গ। অন্যান্য মেয়েদের মতোই বাড়িতে রয়েছে বিয়ের চাপ। অথচ প্রাচীন পন্থী মনে অভিনেত্রী চান জীবনে একটি ভালোবাসার মানুষ। কিন্তু এখন অবধি এমন মানুষের অমিল জীবনে। ছোটবেলায় অষ্টম শ্রেণীতেই এক সাদা পাঞ্জাবি দাদার প্রেমে পড়েছিলেন। বরাবর লাজুক অভিনেত্রী তাকে মনের কথা জানাতে পারেননি। তারপরও প্রেম এসেছে কিন্তু অচিরেই ভেঙে গেছে সম্পর্ক। এখন শুধু একটি স্থায়ী সম্পর্ক চাই অভিনেত্রীর এজন্য তিনি মা দুর্গার কাছে একটি ‘বর’ প্রার্থনা করবেন। সিঙ্গেল জীবন থেকে মুক্তি পেতে এবারে নাছোড়বান্দা অভিনেত্রী।

টলিউডে চুটিয়ে কাজ করছেন। নামে বেনামী একাধিক ছবির মুখ হয়ে উঠেছেন। হাতে বেশ অনেকগুলো ছবির কাজ এই মুহূর্তে। প্রত্যেকটির চরিত্র আলাদা রকমের। সাগ্নিক চট্টোপাধ্যায়ের ‘লেডি চ্যাটার্জি’ আছে। আছে ‘কীর্তন’, ‘মায়াকুমারি’ নামক ছবি। ‘লেডি চ্যাটার্জি’ তে গোয়েন্দা চরিত্রে আর ‘কীর্তন’-এ গৃহবধু চরিত্রে অভিনয় করবেন। ‘মায়াকুমারি’ ডিসেম্বরে মুক্তি পাবে। আবার ফেব্রুয়ারিতে শুরু হবে নতুন ছবির কাজ। এতো ব্যস্ততার মাঝেও শূন্যস্থান পূর্ণ করতে এবার একটা ‘বর’ চাই অরুনিমার।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর