fbpx

Khichdi Recipe: সকালের শুরুতেই ঝোড়ো হাওয়া! বর্ষার দুপুরে নিমিষে বানিয়ে নিন নিরামিষ মশলাদার খিচুড়ি

গ্রীষ্মের দাবদাহ প্রভাব এখন অনেকটা কম। প্রতিদিনের সকালটাই  যেন একটা সুন্দর ফুরফুরে হাওয়ায় ভরে উঠেছে। বেলা বাড়লে রোদের পরিমাণ বাড়ছে ঠিকই, কিন্তু সঙ্গে রয়েছে একটা মেঘলা আদর। দুপুর গড়ালেই দেখা যাচ্ছে আকাশ জুড়ে কালো মেঘের ঘনঘটা সঙ্গে এক রাশ বৃষ্টি ভাসিয়ে দিচ্ছে বঙ্গকে। আর বৃষ্টি মানেই বঙ্গবাসীর পেটুক স্বভাবে উস্কানি। এমতাবস্থায় খিচুড়ি সঙ্গে আবার ভাজার চাহিদা বৃদ্ধি পায় ছাপোষা বাঙালি পরিবারে। বিকাল হলে মন চায় পিঁয়াজি অথবা পকোরা। আর সময়টা যদি দুপুর হয় তা হলে খিচুড়ি থেকে এক পাও নড়াচড়া নয়। 

বৃষ্টির এই বেলায় চায় খিচুড়ি। একেবারে খাঁটি নিরামিষ খিচুড়ি ( Veg Khichdi )। ভাতে-ডালে মিশিয়ে এই বৃষ্টির বেলায় আজকে দুপুরেই বানিয়ে ফেলুন নিরামিষ খিচুড়ি ( Veg Khichdi Recipe  )। সঙ্গে আবার ভেজে নিতে পারেন গরম গরম পাঁপড় ভাজা। সাধারণ এই কতটা কব্জি ডুবিয়ে যে খাওয়া যায় তা একজন খাঁটি বাঙালির চেয়ে ভাল কেউই জানে না। উল্লেখ্য, মেঘলা দিনে খিচুড়ি বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণগুলি হল, ১ কাপ মুগ ডাল, ২ কাপ গোবিন্দভোগ চাল, ১ টা গাজর কুচি, ৬ টা বিন্স কুচি, ১/২ চা চামচ জিরা, ১ টা আলু কুচি, ১ টা টমেটো কুচি, ১ টা তেজপাতা, ৪ টে কাঁচা লঙ্কা, গোটা গরম মশলা আর গরম মশলা গুঁড়ো, ২ টেবিল চামচ গাওয়া ঘি, ১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, প্রয়োজন অনুযায়ী জল, ১ টেবিল চামচ চিনি, ২ চা চামচ তেল এবং অবশেষে স্বাদ মতো লবণ।

khichdi

উপকরণ জোগাড়ের কাজ শেষ হলেই শুরু রান্নার এই কাজ। বাঙালির সবচেয়ে সহজ কিছু রান্নার মধ্যে জনপ্রিয় এই খিচুড়ি। আসলে  বাঙালি বলাটা ভুল। বিশ্বের নানা জায়গাতেই এই খিচুড়িকে নানা ভাবে পরিবেশন করা হয়ে থাকে। সুতরাং, এটা বলাই যেতে পারে বিশ্বের  দরবারে এই রান্নার জনপ্রিয়তা একেবারে গগনচুম্বী। প্রসঙ্গত, উপকরণ জোগাড়ের কাজ শেষ করে শুরু রান্নার কাজ। এই পদ রান্না প্রয়োজনীয় ধাপগুলি হল, 

  • সবার প্রথমে চাল আর ডালকে ধুয়ে ঝরঝরা করে নিতে হবে।
  • এরপর চাল-ডাল ধুয়ে ফেলা হয়ে গেলে একটা কড়াইয়ে অল্প কিছুটা তেলের মধ্যে দিয়ে ডালটাকে ভেজে নিতে হবে। তারপর এক চামচ ঘি-এর সহযোগে চালটাকেও ভেজে নিতে হবে। এরপর শুকনো লঙ্কা, গোটা জিরে ও গরম মশলার ফোড়ন দিয়ে সমস্ত প্রয়োজনীয় সবজিগুলিকেও ভেজে নিতে হবে। 
  • এরপর ভাজার পর্ব শেষ হতেই শুরু সেদ্ধ করার পর্ব। প্রথমদিকে, ডাল ও সবজিগুলিকে অর্ধেক সেদ্ধ করে। তার মধ্যে চাল দিয়ে সেটিকে অর্ধেকের বেশি সেদ্ধ করে  গ্যাস বন্ধ করে কড়াই চাপা দিয়ে দিতে হবে। যাতে ভাপেই গোটা পদটি সেদ্ধ হয়ে যায়। এরপর, খানিকটা জল ঢেলে নেড়ে নিয়ে অল্প সময় রেখে দিতে হবে। 
  • সব শেষে ঘি সহযোগে গরম মশলার সঙ্গে নাড়াচাড়া করে নিলেই তৈরি নিরামিষ খিচুড়ি।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর