fbpx

Independence Day 2022: মোদী থেকে সোনিয়া গান্ধী! রাজনৈতিক চরিত্রে অভিনয় করেই জনপ্রিয়তা পেয়েছেন এই বলি তারকারা

অভিনয় করার পাশাপাশি ফুল-টাইম রাজনীতির হওয়ার রং গায়ে লাগিয়েছেন অনেকেই! তাও আবার সরাসরি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত না থেকেই। কি করে? জেনে নিন…

জয়িতা চৌধুরি,কলকাতাঃ বি-টাউনের অভিনেতাদের অভিনয় থেকে অবসরের পর রাজনীতিতে আসতে তো হামেশাই দেখা যায়! কিন্ত অভিনয় করার পাশাপাশি ফুল-টাইম রাজনীতির হওয়ার রং গায়ে লাগিয়েছেন অনেকেই! তাও আবার সরাসরি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত না থেকেই। কি করে? জেনে নিন…

katrina kaif

১. ক্যাটরিনা কাইফ ( Katrina Kaif ): বলিউডে প্রথম সারির নায়িকাদের মধ্যে একজন ক্যাটরিনা। বলিউডে পদার্পণ করেন অক্ষয় কুমারের বিপরীতে ‘সিং ইস কিং’ ছবির মাধ্যমে। কেরিয়ারের প্রথম দিকে বি-টাউনের যাত্রা খুব একটা মসৃণ না হলেও এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে তিনি বলিউডের সর্বাধিক পারিশ্রমিক প্রাপ্ত নায়িকাদের মধ্যে একজন। বি-টাউনের প্রভাবশালী তিন খানের সঙ্গে রুপোলী পর্দায় দেখা মিলেছে তাঁর। ২০১০ সালের ‘রাজনীতি’ ( Rajneeti ) সিনেমাটি ক্যাটরিনার অভিনয় জীবনের মাইল ফলকগুলির মধ্যে অন্যতম। ছবিতে সোনিয়া গান্ধির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ক্যাট।

vivek oberoi

২. বিবেক ওবেরয় ( Vivek Oberoy ): বলিউডের অন্যতম বিতর্কিত ছবি ‘পি এম নরেন্দ্র মোদি’। ছবি মুক্তির আগে ছবিটি নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি। নির্বাচনের ঠিক আগে আগেই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ছবিটির। কিন্ত বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির বিরোধিতায় শেষমেষ ছবি মুক্তির তারিখ পিছোনো হয়। তবে ছবির মুখ্য ভুমিকায় অভিনয় করেছিলেন কিংবদন্তী অভিনেতা বিবেক ওবেরয়। তাঁর সাবলীল অভিনয় বেশ জনপ্রিয় হয়েছিল দর্শক মহলে।

kangana ranaut

৩. কঙ্গনা রানাউত ( Kangana Ranaut ): বিতর্ক আর কঙ্গনা যেন এক বৃন্তের দুইটি কুসুম। ঠোঁটকাটা কঙ্গনা যখনই শব্দব্যয় করেন বিতর্ক তৈরি হয়ে যায় সেখানেই। বলিউডের অনেক প্রভাবশালী অভিনেতা ও প্রযোজক তাই কিছুটা এড়িয়েই চলেন অভিনেত্রীকে। সম্প্রতি তাঁকে দেখা গিয়েছিল ‘থালাইভি’ ( Thalaivi ) ছবিটিতে। অভিনেত্রী ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললীতার জীবনের কাহিনীর আঁধারে তৈরি এই সিনেমা বক্স অফিসে খুব একটা বেশি উপার্জন না করলেও কঙ্গনার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে দর্শক মহলে।

lara dutta

৪. লারা দত্ত ( Lara Dutta ): এক সময়ে বলিউডে তাঁর পসার ছিল বিস্তর। তবে ইদানিং রুপোলী পর্দায় খুব একটা বেশি দেখা যায় না অভিনেত্রীকে। তাঁকে শেষ দেখা গিয়েছিল অক্ষয় কুমারের সিনেমা বেলবটম-এ ( Bail Bottom )। ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন লারা।

paresh rawal

৫. পরেশ রাওয়াল ( Paresh Rawal ): বর্ষীয়ান অভিনেতা পরেশ রাওয়ালকে আমরা প্রধানত চিনি কৌতুক চরিত্রে অভিনয় করার জন্যই। তবে ১৯৯৪ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘বল্লভ ভাই প্যাটেল’ ( Bhallav Bhai Patel ) ছবিটি। মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন পরেশ রাওয়াল। তাঁর অভিনয়তো প্রশংসা পেয়েছিল দর্শক মহলে অবশ্যই, এই ছবিটির জন্য পরিচালক কেতন মেহতা পেয়েছিলেন বেস্ট ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড।

anupam kher

৬. অনুপম খের ( Anupam Kher ): অনুপম খেরের মতো অভিনয় প্রতিভা হয়তো বলিউডে আছে হাতে গোনা। তবে তাঁর জীবনের সেরা অভিনয় হয়ত ‘The Accidental Prime Minister’-এ। প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি। শোনা যায়, মনমোহন সিংহের চরিত্রে যাতে অভিনয় সাবলীল হয়, তার জন্য তাঁর মতো বসা, হাঁটাচলা ও কথা বলার ভঙ্গিমা নকলের তালিম নিয়েছিলেন বহুদিন! দর্শকদের বোঝার উপায়ই ছিল না যে তারা পর্দায় আধেও কাকে দেখছেন? প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী না অভিনেতা অনুপম খেরকে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর