fbpx
Thursday, October 6, 2022

Mahesh Bhatt: ‘‛আমি মরে গেলে, আমার পরিবার খুশি হবে’, কোন বেদনা নিয়ে এমন বললেন পরিচালক মহেশ ভাট

একটা সময় নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন মহেশ ভাট। জানিয়ে ছিলেন, তাঁর পরিবার তাঁর মৃত্যুতে তখনই অভাব অনুভব করবে, যদি তিনি তাঁর পরিবারের জন্য একটি সোনার খনি রেখে যান।

জয়িতা চৌধুরি,কলকাতা: বি-টাউনের ( Bollywood ) অন্যতম খ্যাতনামা পরিচালক মহেশ ভাট ( Mahesh Bhatt )। সিনেদুনিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক তাঁর আজকের নয়। পরিচালক হওয়া সত্বেও তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি। প্রথম পক্ষের স্ত্রী কিরণ ভাটের সঙ্গে বিচ্ছেদ, পারভিন ববির সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ইত্যাদি নানান কারণে সংবাদের শিরোনামে তাঁর নাম উঠে এসেছে বারংবার। ব্যক্তিগত জীবনে পরিচালকের দুটি বিয়ে।

প্রথম পক্ষের স্ত্রী কিরণ ভাট ও তাঁর দুই সন্তান রাহুল ও পুজা। দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী সোনি রাজদানের সঙ্গে দুই সন্তান শাহীন ভাট ও আলিয়া ভাট। তবে আধেও কি পরিচালক তাঁর পরিবারকে নিয়ে খুশি? একদা নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মুখ খুলেছিলেন পরিচালক। জানিয়ে ছিলেন, তাঁর পরিবার তাঁর মৃত্যুতে তখনই অভাব অনুভব করবে, যদি তিনি তাঁর পরিবারের জন্য একটি সোনার খনি রেখে যান। পরিচালক জানান তাঁকে নিয়ে তাঁর পরিবারের সদস্য ঠিক ততটা আবেগপ্রবণ নন।

mahesh bhatt 1
১৯৯৮ সালে একবার সিমি গারোয়ালের শো-তে এসেছিলেন মহেশ ভাট। তার একটি মন্তব্য সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হয়, পরিবার সমাজের বড় শোষক, তিনি বলেছিলেন পরিবারের সদস্য এবং একজনকে সেই কর্তার ভূমিকা পালন করতে হওয়াটা বড় যন্ত্রণার, তাঁকে যন্ত্রণার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। তিনি আরও যোগ করেন, ‘পরিবার বিষয়টা নিয়ে ভীষণ জটিল, কেউ যদি দুরে থাকে তবে তিনি খারাপ, খোঁজ না রাখলে তো বটেই।‘ অর্থাৎ, বিতর্কের সমুদ্রে ডুবে থাকলেও জীবন নিয়ে রাখঢাক পছন্দ করেন না মহেশ ভাট। পরিবার হোক বা কাজ কোনও কিছু নিয়েই তাই বিপাকে পড়তে হয়না পরিচালককে।

সঞ্চালকের দাবী অস্বীকার করে তিনি বলেছেন,“পরিবারের প্রধান মারা গেলে, মৃতদেহ ছাই হয়ে যাওয়ার আগেও মানুষ টাকার জন্য বিড়াল-কুকুরের মতো লড়াই করে… আমি যখন মারা যাব, আমি জানি আমার পরিবার বলবে ‘ওহ আমার প্রিয় বাবা, ওহ আমার প্রিয় স্বামী, আমরা তাঁকে খুব মিস করি,’ কিন্তু তাঁরা খুশি হবে যে আমি তাদের একটি সোনার খনি রেখে এসেছি।”

google-news-icon

লেটেস্ট খবর