fbpx

Mamata Banerjee: মমতার মোমো! সফরে গিয়ে নিজের হাতে পাহাড়ের বিখ্যাত খাবার বানালেন মুখ্যমন্ত্রী

মন্টি শীল, কলকাতা: সম্প্রতি রাজ্য তথা তথা রাজনীতি জোর আলোচনার সৃষ্টি করেছে রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ( Mamata Banerjee )। কারণ, শৈল শহরে জিটিএ নির্বাচন ( GTA Election )। আর সেই নির্বাচনকেই পাখির চোখ করে ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে চলতে উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়েছেন রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। সেখানে পা রাখার সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয়ে গিয়েছে তাঁর একাধিক কর্মসূচি। জোড় কদমে চলছে প্রচার, জনসংযোগ। এমনকী পাহাড় সফরে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, খুব শীঘ্রই উন্নতমানের পর্যটনের সঙ্গে সঙ্গে গড়ে উঠবে কর্মসংস্থানের সুযোগ।

এছাড়াও, প্রায় ২০০ একর জমির উপর এক শিল্প নগরী তৈরী করারও প্রস্তাব সহ ফুটপাতে থাকা সমস্ত অস্থায়ী দোকানপাট তুলে দিয়ে সেখানকার ব্যবসায়ীদের নতুন দোকান ঘর দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ( Mamata Banerjee )। যাকে এককথায় বলা চলে উন্নয়নের জোয়ার। সম্প্রতি হয়ে যাওয়া বিধানসভা নির্বাচনের সময় এক গেড়ুয়া ঝড় বয়ে গিয়েছিল গোটা উত্তরবঙ্গ জুড়ে। তাই এইবার বিজেপিকে কোনঠাসা করতে জোর কদমে জনসংযোগে মন দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ( Mamata Banerjee )।

14c42

ইদানিং গোটা রাজ্যের মানুষ চাক্ষুষ করেছেন, রাজনৈতিক নেতা নেতৃদের জনসংযোগ কতটা নজরকাড়া হয়। যার মধ্যে অনেক নেতাদের দেখা গিয়েছে, গ্রাম ঘুরে ঘুরে গ্রামবাসীদের ঘরে ভোজন করতে আবার অনেক নেতাদের নেত্রীদের রান্নার কাজে হাত লাগাতে। আর এর মধ্যে এক অন্যতম উদাহরণ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। জনসংযোগের জন্য একেবারে মানুষের মধ্যে মিশে যান তিনি। কখনও তাকে দেখা গিয়েছে গ্রামে গিয়ে বাড়ির গৃহিণীদের রান্নার হেঁসেলে সহায়তা করতে, কখনও তাকে আবার দেখা গিয়েছে ফুচকার দোকানে দাঁড়িয়ে ফুচকা পরিবেশন করতে।

কিন্তু সম্প্রতি নেটদুনিয়াতে দেখা গেল, রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় পথের ধারে অবস্থিত এক মোমো বিক্রেতার দোকানে গিয়ে নিজে হাতে মোমো তৈরি করছেন। একেবারে সেই মোমো বিক্রেতার পদ্ধতি অনুসরণ করে দিব্বি তৈরি করে ফেললেন মোমো। সূত্র অনুসারে জানা গিয়েছে, ওই দোকানটি এক স্বনির্ভর মহিলা গোষ্ঠীর দোকান। নেটদুনিয়াতে মুখ্যমন্ত্রীর নিয়ে দৃশ্য দেখার পর রাজ্যের বিরোধী দল গুলির থেকে ভিন্ন মত পোষণ করলেও মুখ্যমন্ত্রীর এই জনসংযোগের পদ্ধতিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকেই। এমনকী প্রসংশা করেছেন রাজ্যের বিশিষ্টজনেরাও। তবে মোমো হোক বা ফুচকা, এই জনসংযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় পাহাড়বাসীদের কাছে যে এক নতুন আশার জন্ম দিলেন তা বলাই যায়।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর