fbpx

Dev:’আমি পার্থও নই, অর্পিতাও নই, দলের খারাপ হবে এমন কাজ করব না’! মন্ত্রীর দুর্নীতির দায় ঝারলেন দেব

বর্তমান রাজ্য রাজনীতিতে একটাই নাম তথা দুর্নাম পার্থ চট্টোপাধ্যায়। প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ বাবুর সম্পর্কে যেমন অঢেল সম্পত্তির যোগ রয়েছে, তেমন রয়েছে একাধিক বান্ধবীর খোঁজ। তবে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকেই উদ্ধার হয়েছে বাহান্ন কোটি টাকা সহ বিপুল ধনরত্ন। ফলে রাজ্যের সমস্ত লাইম লাইট এখন পার্থ- অর্পিতাকে ঘিরে। রাজ্য রাজনীতি শুধু নয়, সাধারণ মানুষ থেকে অভিনেতা অভিনেত্রী সকলেই নিজস্ব মতামত রাখছেন। চর্চায় থাকার সুযোগ হাতছাড়া করছেন না কেউই। এরই্ মাঝে টলিউড সুপারস্টার দেব কিন্তু ভিন্ন ধর্মী। বরাবরের মতো এবারও রাখলেন ব্যতিক্রমী পরিচয়।

পার্থ অর্পিতা কান্ডের প্রতিক্রিয়া নিতে সাংবাদিকরা ছেঁকে ধরেছিলেন দেবকে। কিন্তু দেব একটু বিরক্ত হন। প্রতিক্রিয়া অত্যন্ত সাধারণ ভাবে জানান, , ‘আমার নাম পার্থ চট্টোপাধ্যায় নয় আর অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ও নয়। তাই যদি সুযোগ পাও এটা নিয়ে তাঁদের প্রশ্ন করো অনেক ভালো উত্তর পাবে।’

টলিউডে প্রায় দু দশকের ওপর সময় ধরে রাজ করছেন দেব। রাজনীতিও করেছেন প্রায় দশ বছর ধরে কিন্তু বিতর্ক এড়িয়ে চলেন দেব। নিজের গায়ে কোনোরকম কাদার ছিঁটে লাগতে দেননা অভিনেতা। ফলে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিষয়ে তাঁর পরিষ্কার উত্তর, আমি রাজনীতিতে একটা কথাই বুঝি আমার জন্য দলের নাম যাতে খারাপ হয়। কে দলের কী করছে সেটা নিয়ে আমার কোনও দায়িত্ব নেই। আমার দায়িত্ব হল আমার দলের, আমার পরিবারের, আমার বন্ধু-বান্ধবদের বা তোমার নাম যেন খারাপ না হয়।”

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্নেহধন্য দেব। সদ্যই পেয়েছেন বঙ্গ বিভূষণ। ২১ শে জুলাইয়ের শহীদ মঞ্চে গ্যাস হাতে দাঁড়িয়েছিলেন দেব। তবে তৃণমূল পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে মন্ত্রীসভা থেকে ঝেড়ে ফেললেও কোনও রাজনৈতিক বক্তব্য রাখলেন না দেব। খোলাখুলি ভাবে মন্তব্য করে নিজের ভাবমূর্তি রক্ষা করার চেষ্টা করলেন দেব। এর আগেও নিরপেক্ষ মন্তব্য রাখার নজির আছে দেবের। আজকের মন্তব্য তাঁর প্রমাণ।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর