fbpx

শাড়ি ছেড়ে সোজা বিকিনি! দেবলীনার লাস্যময়ী রূপে প্রেমের সংক্রমণ নেটপাড়ায়, রইল ছবি

বয়স ৪৫ হলেও তাঁর রূপের মহে মোহিত সকলে। এখনও টলিউডের বেশ কিছু নতুন অভিনেত্রীদের লজ্জায় ফেলে দেবেন দেবলীনা।

অনীশ দে, কলকাতা: বাংলা তথা ভারতবর্ষের সিনেপ্রেমীদের কাছে আজকের দিনটি খুবই গুরুত্বপূর্ন। কারন একসাথে একাধিক ছবি মুক্তি পাচ্ছে আজ। একদিকে বলিউডে আমির খান, করিনা কাপুর খান অভিনীত লাল সিং চাড্ডা এবং অক্ষয় কুমার অভিনীত রক্ষা বন্ধন। অন্যদিকে বাংলায় মুক্তি পাচ্ছে অরিন্দম শীল অভিনীত ব্যোমকেশ হত্যামঞ্চ, রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত ধর্মযুদ্ধ, পাভেল পরিচালিত কলকাতা চলন্তিকা এবং তথাগত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ভটভটি। একই দিনে এতগুলো ছবি মুক্তি পাওয়ায় দর্শক বেজায় উচ্ছসিত কিন্তু একইসাথে চিন্তিত। কোনটা ছেড়ে কোনটা দেখবেন তাঁরা, সেটা তো সময়ই বলবে। তবে অভিনেত্রী দেবলীনা দত্ত (Debleena Dutt) নিজের ভক্তদেরকে অনুরোধ করেছেন ভটভটি দেখবার জন্যে।

debleena 3

কিন্তু আর বাকি পাঁচজনের মতো হাত জোড় করে ছবি দেখতে আসার অনুরোধ তিনি জানাননি। বরং নীল সমুদ্রের প্রান্তরে বিকিনি পরে নিজের দর্শকদের প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে ছবিটি দেখার অনুরোধ জানান তিনি। আর এই দেখেই বেজায় উচ্ছসিত অভিনেত্রীর (Debleena Dutt) ভক্তকূল। বয়স ৪৫ হলেও তাঁর রূপের মহে মোহিত সকলে। এখনও টলিউডের বেশ কিছু নতুন অভিনেত্রীদের লজ্জায় ফেলে দেবেন তিনি (Debleena Dutt)। এমনকি দীর্ঘদিনের অভিনয় জীবনে একাধিক সাহসী চরিত্র পালন করেছেন তিনি। দর্শকরাও তাঁকে তেমন চরিত্রে দেখতেই পছন্দ করে। দেবলীনার বোল্ড অবতারই যেন তাঁর বিশেষত্ব। ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও শেয়ার করে নিজের দর্শকদের ভটভটি ছবিটি দেখতে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানান তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Debleena Dutt (@dats_debleena)

বলাই বাহুল্য, এই ছবির পরিচালক তথাগত মুখোপাধ্যায় (Tathagata Mukherjee) অভিনেত্রীর স্বামী। ২০১৪ সালে গাঁটছড়া বাঁধেন তাঁরা। তথাগত (Tathagata Mukherjee) বাংলা ধারাবাহিকের চেনা মুখ। পরিচালনার দিক থেকে সবসময় দর্শকদের নতুন কিছু দেওয়ার চেষ্টা করেছেন তিনি। উল্লেখ্য, ভটভটি ছবিটির VFX সঠিক করার জন্য এর পিছনে প্রায় ৪-৫ বছর ব্যয় করেছেন তথাগত। ভটভটির পর তিনি এখন ব্যস্ত ‘গোপনে মদ ছাড়ান’ ছবিটি নিয়ে। এই ছবিটি বাংলার প্রথম ওয়ান টেক ছবি হতে চলেছে। ছবিটির মুখ্য চরিত্রে থাকতে চলেছেন লালকুঠি খ্যাত রুকমা রায়। অবশ্য সম্প্রতি পরিচালক ও প্রযোজকরা সোশ্যাল মিডিয়াতে সোচ্চার হয়েছেন হল না পাওয়াকে ঘিরে। উল্লেখ্য, লাল সিং চাড্ডা এবং রক্ষা বন্ধন বেশিরভাগ শো দখল করেছে।

debleena 2

যা নিয়ে ক্ষুব্ধ পরিচালক ও কলাকুশলীরা। এমনকি বাংলা ছবিগুলির মধ্যেও সবচেয়ে কম শো পেয়েছে ভটভটি। এই ছবিতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঋষভ বসু, বিবৃতি চ্যাটার্জি এবং অন্যতম গুরুত্বপূর্ন চরিত্রে রয়েছেন দেবলীনা, রজতাভ দত্ত এবং মমতা শঙ্কর। ছবির প্রচারে কোনওরকম খামতি রাখেননি ছবির পরিচালক এবং অভিনেতারা এবং প্রথমবার কোনও বাংলা ছবিতে জলের নীচের দৃশ্য উপভোগ করতে পারবে সাধারন মানুষ। কিন্তু ছবির প্রচার এবং বিশেষত্ব দর্শককে হলমুখী করতে পারে কি না এখন সেটাই দেখার অপেক্ষা।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর