fbpx
Tuesday, September 27, 2022

Dipankar De: চপ-বেগুনিতে কাটছে দাম্পত্য, এখনও কীভাবে নিজেকে খুশি রাখেন আটাত্তরের দীপঙ্কর? জানালেন তারকা

বাঙালি ভোজন রসিক। তবে বিনোদন জগতের চিত্র টা একটু বিচিত্র। অনেক তারকারাই নিজেদের ডায়েট মেনে চলেন। তবে বয়সকে রীতিমতো বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এখনও খাবারেই ডুব দিতে ভালোবাসেন অভিনেতা দীপঙ্কর দে। কারণ তার মতে মেজাজ টাই আসল রাজা।

সম্প্রতি দিদি নাম্বার ওয়ান সান ডে ধামাকায় এসেছিলেন চার যুগল দম্পতি। যারা বয়জ্যেষ্ঠ। অথচ দাম্পত্যের রসায়ন আজও যাদের মধ্যে পূর্ণমাত্রায় রয়েছে। এমন এক এপিসোডে অংশ নিয়েছিলেন দীপঙ্কর দে ও দোলন রায়। আর সেখানেই প্রাণ খুলে জীবনে তরতাজা থাকার মন্ত্র শেখালেন দীপঙ্কর দে। যা শুনে রীতিমতো দিদি নাম্বার ওয়ান রচনা ব্যানার্জীর চক্ষু ছানাবড়া

বয়স প্রায় আশির কোঠায়। কিন্তু এখনও অবলীলায় নিজের খাদ্যপ্রীতির কথা স্বীকার করেন দীপঙ্কর দে। দীপঙ্কর বলেন, ‘পেটপুজো, পুরোটাই পেটপুজো। আলুর চপ, বেগুনি— এগুলো আমি খাবই।’ রচনা ব্যানার্জীর কিছুটা অবাক হওয়ার পালা। চমকে গিয়ে তিনি জিজ্ঞাসা করলেন, ‘এখনও?’ হাসতে হাসতে দীপঙ্কর জানালেন, ‘হ্যাঁ হ্যাঁ, না হলে বাঁচব কী করে!’ সত্যি তো! প্রাণের আনন্দে বাঁচার জন্য খেতে তো হবেই। এই শুনে হাসির রোল ওঠে দিদি নাম্বার ওয়ানের মঞ্চে।

বয়সকে কোনদিনই তোয়াক্কা করেননি দীপঙ্কর। এখনও যেমন শারীরিক হাজার সমস্যাকে পরোয়া না করেই করছেন সিরিয়াল সিনেমা। তেমনই সাধারণের চোখে বয়সের মাপকাঠি পেরিয়ে যাওয়ার পর দীর্ঘদিনের বান্ধবী দোলন রায়কে বিবাহ করেছিলেন তিনি। ২০২০ তে রেজিস্ট্রি ম্যারেজ করে বিয়ে সারেন তারা। সাদা ধুতি পাঞ্জাবি আর এদিকে দোলন পরেছিলেন এক লাল টুকটুকে বেনারসী। সেদিন ও বয়সের কথা ভাবেননি তারা। আর তাই খাওয়ার সময় সেসব ভাবেন না এই বর্ষীয়ান অভিনেতা।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর