fbpx

Ekka Dokka : আবার মিষ্টি প্রেমের গল্প! পারিবারিক যুদ্ধ এড়িয়ে ‛এক্কা-দোক্কা’র প্রেম নিয়ে আসছে নতুন ধারাবাহিক

বিনোদনের ডালিতে সেজে উঠছে বাংলা টেলিভিশন। রোজই তাতে হাজির হচ্ছে নানারঙের গল্প নিয়ে নিত্যনতুন ধারাবাহিক। ‘মা-কাকীমাদের সিরিয়াল’ তকমা প্রায় মুছেই গেছে। আট থেকে আশি এখন সকলের অবসর সঙ্গী বাংলা সিরিয়াল। সম্প্রতি জি বাংলায় বোধীসত্বর বোধবুদ্ধি নামে ছোটদের মজাদার সিরিয়াল এনেছে। সঙ্গে তাদের ঝুলিতে রয়েছে মিঠাই, পিলুর মতো জনপ্রিয় সিরিয়াল। একদম পিছিয়ে নেই স্টার জলসাও। একেবারে নতুন প্রজন্মকে টার্গেট করে ময়দানে নামছে’এক্কা দোক্কা’। সিরিয়ালের ফার্স্ট প্রোমোতেই বাজিমাৎ। ধারিবাহিকের গল্প মনে ধরেছে দর্শকের। ধারাবাহিকে থাকছেন জনপ্রিয় অভিনেতা অভিনেত্রীরা।

লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রযোজনা সংস্থা ম্যাজিক মোমেন্টস-এর ‘মোহর’ ধারাবাহিক শেষ হওয়ার পর এই প্রযোজনা সংস্থাতেই ফিরলেন সোনামণি। তাকে এক্কাদোক্কার নায়িকা রাধিকার চরিত্রে দেখা যাবে। তবে নায়ক হিসেবে আর থাকছেন না শঙ্খ স্যার অর্থাৎ প্রতীক সেন। ইতিমধ্যেই তাকে দেখা গিয়েছে স্টার জলসার অন্য ধারাবাহিক সাহেবের চিঠিতে নায়িকা দেবচন্দ্রিমার সঙ্গে। তবে নায়ক কে হবেন? সোনা মনির এবারের নায়ক চকলেট হিরো সপ্তর্ষি মৌলিক অর্থাৎ সবার প্রিয় ‘ডিঙ্কা’।এই ধারাবাহিকে অবশ্য কলেজ টপার পোখরাজ। ‘শ্রীময়ী’শেষ হওয়ার পর ডিঙ্কাকে নতুন চরিত্রে দেখার জন্য মুখিয়ে ছিল জনতা। অবশেষে সেই অপেক্ষার অবসান। এছাড়াও সিরিয়ালের বেশ কয়েকটি নামকরা অভিনেতা অভিনেত্রী থাকছেন ।

img 20220628 105725

 

নজরকাড়া সিরিয়ালের গল্প নিয়ে উপস্থিত এক্কা-দোক্কা। সেন বাড়ি ও মজুমদার বাড়ির তিন প্রজন্মের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই।সেন বাড়ির ছেলে পোখরাজ এবং মজুমদার বাড়ির মেয়ে রাধিকা দুজনেই মেডিকেল কলেজের চূড়ান্ত বর্ষের পড়ুয়া। কিন্তু তাদের মধ্যে জোরদার টক্কর লেগেই রয়েছে। এ বলে আমায় দেখ,তো ও বলে আমায়! দিনরাত খুনসুটি মারামারি করেই কাটবে তাদের। বিশেষ করে তাদের যুদ্ধে ইন্ধন যোগাবেন তাদের পরিবার। অনুসুয়া মজুমদার অর্থাৎ পোখরাজের ঠাম্মিকে বলতে শোনা যায়, ‘তিন পুরুষের লড়াই, মজুমদার বাড়ির মেয়েকে হেরো ভূত করে রেখে দিও দাদুভাই’। পোখরাজের মায়ের গলায়ও একই সুর। মজুমদার বাড়ির মেয়েকে হারালেই তিনি খুশি।

এদিকে মজুমদার বাড়ির মেয়ে রাধিকা ওরফে সোনামনিও পোখরাজের মুখে ঝামা ঘষে দিতে চায়। আর পোখরাজও বলে সোনামনিকে জব্দ করে মুখ লুকাতে বাধ্য করবে। কলেজ ক্যাম্পাসে ছেলেদের দল রাধিকাকে বিরক্ত করতে গেলে রাগে গিটার ভেঙে দেয় সে। তবে রেজাল্ট বেরোলে দেখা যায় প্রথম হয়েছে পোখরাজ। ততধিক রাগে জ্বলে ওঠে রাধিকা। পরের পরীক্ষায় জবাব দেওয়ার মুখোমুখি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয় হিরোকে।একে অপরকে যতই অপছন্দ হোক, বর্ষার দিনে রাধিকাকে ভিজতে দেখে পোখরাজ ছাতা এগিয়ে দিয়ে বলে, ” লড়াই জারি থাকুক, তবে এক ছাতার তলায়”। আর এতেই মন ভিজেছে দর্শকের। কীভাবে জমে উঠবে পোখরাজ রাধিকার টক- ঝাল- মিষ্টি কেমিস্ট্রি? সেই নিয়েই শোরগোল পড়ে গেছে টেলি দুনিয়ায়।

কলেজের ছেলেমেয়েদের খুনসুটি তার সাথে দুই পরিবারের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই নিঃসন্দেহে জমিয়ে দেবে বাঙালির সন্ধ্যের আড্ডা।যদিও অনেকেই ‘বয়েই গেল’ সিরিয়ালের ছায়া দেখতে পেয়েছেন এই গল্পে।সমালোচনাও শুরু হয়েছে চারিদিকে। তবে তারচেয়ে বেশি সিরিয়াল-প্রেমীরা বলছেন মনোরঞ্জনের জন্য এমন মুচমুচে গল্পই তো চাই। ফলে টি আর পি লিস্টে যে তুফান শুরু হবে তা বলাই যায়।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর