fbpx

১০২ টাকার পেট্রোলে মেশানো হচ্ছে ৬০ টাকার ইথানল! ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে আপনার গাড়ির ইঞ্জিনের

ওয়েব ডেস্ক: দেশে ক্রমবর্ধমান যানবাহনের জেরে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। পরিবেশ দূষণ কম করতে পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল মেশানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। সমস্ত মোটরগাড়ি থেকে নির্গত হয় কার্বন মনোক্সাইড, যা পরিবেশের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। কেন্দ্রের যুক্তি, পেট্রোলের সঙ্গে যদি ইথানল মেশানো হয় তবে পরিবেশ দূষণ অনেকটাই রোধ করা যাবে। আর এতেই হিতে বিপরীত হচ্ছে বলে দাবি পাম্প মালিকদের। যার ফল ভুগতে হচ্ছে আমজনতাকে।

দুদিন আগেই রাজ্যব্যাপী ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল পেট্রোল পাম্প মালিকদের সংগঠন ওয়েস্ট বেঙ্গল পেট্রোলিয়াম ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশন। ধর্মঘটের অন্যতম কারণ ছিল পেট্রোলে ইথানল মেশানোর বিরুদ্ধে। এখন প্রশ্ন, এই ইথানল আসলে কী ?

সূত্রের খবর, মদ তৈরির অন্যতম উপাদান হল এই ইথানল। যা ইথাইল অ্যালকোহল হিসাবেও পরিচিত। পেট্রোলের সঙ্গে ক্রমেই ইথানল ব্যবহারের পরিমাণ বড়াচ্ছে কেন্দ্র। বর্তমানে চার হাজার লিটার পেট্রোলের সঙ্গে ১০ শতাংশ ইথানল মেশানো হচ্ছে। অর্থাৎ ৪ হাজার লিটার পেট্রোলের সঙ্গে মিশ্রিত হচ্ছে ৪০০ লিটার ইথানল। সূত্রের খবর, আগামী দিনে পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল মিশ্রণের পরিমাণ আরও বাড়াতে পারে কেন্দ্র। আর এতেই সিঁদুরে মেঘ দেখছেন পাম্প মালিকরা।

পেট্রোল পাম্প,পেট্রোলে মিশছে ইথানল,পরিবেশ দূষণ,কেন্দ্রের মোদী সরকার,Petrol pumps,ethanol mixed in petrol,environmental pollution,Modi government at the center

পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল মেশানোর ফলে হিতে বিপরীত হচ্ছে বলে দাবি পাম্প মালিকদের। মূলত বর্ষার সময় অতিরিক্ত বৃষ্টির জেরে ফুয়েল রিজার্ভারের মধ্যেই ঢুকে পড়ছে জল। তাছাড়া বৃষ্টির মুহূর্তে গাড়িতে তেল ভরার সময়ও কয়েক ফোঁটা জল ঢুকে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে পেট্রোলের ট্যাঙ্কে। আর ইথানলের জাত শত্রু হচ্ছে জল। ফলে রিজার্ভার কিংবা গাড়ির পেট্রোল ট্যাঙ্কে যদি বিন্দুমাত্রও জল থেকে থাকে, তাহলে ইথানল মিশ্রিত পেট্রোলের সঙ্গে তা মিশে গিয়ে বদলে যাচ্ছে পেট্রোলের চরিত্র। যার প্রভাব পড়ছে যানবাহনে। গাড়ির কার্বোলেটরে সেই তেল প্রবেশ করে মোটর চালুতে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে! ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে যানবাহনের ইঞ্জিন। আর সেই দায়ভার এসে পড়ছে স্থানীয় পেট্রল পাম্পগুলি ঘাড়ে! পেট্রোল পাম্পের বিরুদ্ধে তেলে জল মেশার অভিযোগ উঠছে।

এদিকে পেট্রোল যখন ১০২ টাকা লিটার, তখন ইথানলের দাম মাত্র ৫৫-৬০ টাকা প্রতি লিটার। ফলে দূষণ কমানোর ‘অজুহাতে’ পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল মিশিয়ে কোটি কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করছে কেন্দ্র। ইতিমধ্যেই পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল মেশানোর বিপক্ষে সরব হয়েছে পেট্রোল পাম্প মালিকদের একাধিক সংগঠন। কিন্তু তাঁদের অভিযোগ, বর্তমানে তেল কোম্পানিগুলির তরফে একপ্রকার বাধ্য করা হচ্ছে ইথানল মিশ্রিত পেট্রোল কিনতে। গ্রীষ্ম বা শীতকালে এধরনের সমস্যা না থাকলেও, বিশেষত বর্ষাকালে প্রবল সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে পাম্প মালিকদের। যার ফলে সুনাম নষ্ট হচ্ছে অনেক পাম্পের।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর