fbpx

Machh’er Chop: চিকেনের স্বাদকেও মানাবে হার, সন্ধ্যার মুচমুচে আড্ডায় বানিয়ে নিন মাছের চপ

প্রত্যুষা সরকার, কলকাতা: বাঙালি মানেই একেবারে জমিয়ে খাওয়া দাওয়া। আর বাঙালির বড়ই পছন্দের জিনিস হল ভাজাভুজি। চপ-কাটলেট পছন্দ করেন না এমন বাঙালির খুঁজে পাওয়া মুশকিল। আর উইকেন্ডের শুরু, তাঁর উপর উপরি পাওনা বাইরে ঝমঝমিয়ে মুশলধারে হচ্ছে বৃষ্টি। তাই সন্ধের পর এক কাপ চায়ের সঙ্গে যদি গরম গরম মাছের চপ হয় তাহলে ব্যাপারটা কিন্তু মন্দ হয় না। ভেটকি কিংবা তপসে মাছের ফ্রাই তো অনেক খেয়েছেন। তবে কখনও চেখে দেখেছেন কী আর মাছের চপ। সামান্য উপকরণ দিয়ে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন মুচমুচে মাছের চপ ( Machh’er Chop )।

img 20220917 170405
উপকরণ

৬০০ গ্রাম আর মাছ ( রুই বা কাতলাও নিতে পারেন ), ৩৫০ গ্রাম পেঁয়াজ ( কুচিকুচি করে কাটা), ২০ গ্রাম আদা (কুচি করে কাটা), ২০ গ্রাম রসুন ( কুচি করে কাটা), ১০ গ্রাম লঙ্কা (কুচি করে কাটা), ৭০ গ্রাম সরিষার তেল, ২ চা চামচ জিরা গুঁড়ো, ২ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, ২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চা চামচ লাল লঙ্কা গুঁড়ো, ২ চা চামচ কাশ্মীরি লাল লঙ্কা গুঁড়ো, ২ চা চামচ আমচুর পাউডার, ২০ গ্রাম লবণ,২০ গ্রাম চিনি, ১ চা চামচ গোরম মশলা গুঁড়ো, ১ চা চামচ ভাজা মশলা ব্রেডক্রাম্ব, ময়দা, ডিম, রিফাইন তেল,

মাছের চপ তৈরির পদ্ধতি

মাছের চপ ( Machh’er Chop ) বানাতে প্রথমে আর মাছ গুলকে হালকা করে রিফাইন তেল দিয়ে কোট করে, ক্লিংফিল্ম দিয়ে ঢেকে ১,০০০ শক্তিতে সারে চার মিনিটের জন্য মাইক্রোওয়েভ করুন। যতক্ষণ এটা মাইক্রোওয়েভের মধ্যে থাকছে ততক্ষণে এদিকে পেঁয়াজ, আদা, রসুন ও লঙ্কা গুলোকে ভাল করে কুচি করে নিন। এরপর কড়াইয়ে সরিষার তেল গরম করে তার মধ্যে কুচি করা পেঁয়াজ গুলো দিয়ে দিন। পেঁয়াজের রঙ যতক্ষণ না সোনালি হচ্ছে ততক্ষণ ভাজতে থাকুন।

এবার মাইক্রোওভেন থেকে বের করা মাছ গুলো ঠান্ডা হয়ে এলে সাবধানে মাছের মধ্যে থেকে সমস্ত ছোট বড়ো কাঁটা গুলো বের করে নিন। ধীরে ধীরে মাছের গা থেকে চামড়া এবং চর্বি আলাদা করে নিন। এরপর পেঁয়াজের রঙ সোনালি হয়ে এলে তার মধ্যে কুচি করা রসুন দিয়ে দিন। এর মধ্যে আদা যোগ করুন এবং ভাজতে থাকুন। এবার একে একে গুঁড়ো মশলা যোগ করুন- জিরা, ধনে, হলুদ, লাল লঙ্কা গুঁড়ো, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো এবং আমচুর পাউডার। আর সঙ্গে যোগ করুন এবার এর মধ্যে পরিমান মতো লবণ এবং চিনি যোগ করুন। যতক্ষণ না মশলার কাঁচা গন্ধ দূর না হওয়া পর্যন্ত ভাল করে ভাজতে থাকেন। এরপর এর মধ্যে কাটা কাঁচা লঙ্কা যোগ করুন। এরপর কড়াইতে ম্যাশ করা আর মাছ গুলি ধীরে ধীরে দিয়ে দিন। এরপর এরমধ্যে ভাজা মসশলা ও গরম মশলা দিয়ে আরও ভাল করে নারাচাড়া করুন। যতক্ষন না ঠিক করে সব একসঙ্গে মিশে যাচ্ছে।

এবার আঁচ বন্ধ করুন পুর টাকে একটু ঠান্ডা হতে দিন। এরপর ঠাণ্ডা হয়ে গেলেই, রান্না করা পুটি হাতের সাহায্যে ওটি সুন্দর করে ম্যাশ করুন। এবার গাত দিয়েই নিজেদের মতো করেই সেগুলকে সেপ দিন, এবার অন্য একটি পাত্রে ময়দা, ব্রেডক্রাম্ব এবং সঙ্গে লবণ মিশিয়ে একটা ব্যটার বানিয়ে নিন। প্রথমে, প্রতিটি চপে ময়দা লাগিয়ে তারপরে ফেটানো ডিমে ডুবিয়ে তারপর ব্রেডক্রাম্বে গড়িয়ে নিন। খাস্তা ক্রাস্টের জন্য চপগুলিকে ডাবল-ব্রেড করলে ভাল হয়। আর আপনি যদি এটি করতে চান তবে চপগুলিকে আবার ডিমে ডুবিয়ে তারপরে ব্রেডক্রাম্বে একটি দ্বিতীয় রোল করুন। এরপর ব্যপারটা লাল মুচমুচে হয়ে এলে একাটি। প্লেটে সালাট (শসা, পেঁয়াজ, বিটরুট, গাজর) এবং কাসুন্দি (বাঙালি গাঁজা সরিষার মসলা) দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মাছের চপ।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর