fbpx

Jain Temple Kolkata: মার্বেলের মোড়কে যেন রাজপ্রাসাদ! কলকাতার বুকে এই মন্দির নজর কাড়বে আপনারও

প্রত্যুষা সরকার, কলকাতা: বাংলার তিলোত্তমা কলকাতা শহর। চারিদিকে যানজট, দূষণ, কোলাহলের মধ্যে তিলত্তমার একেবারে বেহাল দশা। এরই মধ্যে উত্তর কলকাতার মানিকতলাই পৌঁছে গেলেই মিলবে এসবের থেকে মুক্তি। কলকাতা জৈন মন্দির ( Jain Temple Kolkata ) বা শ্বেতাম্বর জৈন মন্দির। যা প্রায়শই কলকাতার পরেশনাথ মন্দির নামে পরিচিত। কলকাতা শহরের একাধিক ঐতিহিসিক জায়গা গুলির বহুসাংস্কৃতিক ইতিহাসের  একটি অংশ এই মন্দির।

সারা ভারতবর্ষের মতো কলকাতাতেও সর্ব ধর্মের মানুষ বাস করে। তাদের মধ্যে সব থেকে বেশি আছে মাড়োয়ারি এবং গুজরাটি। নিজের রাজ্য ছেড়ে ব্যবসার কাছে কলকাতা আসেন তাঁরা। এরপর তাঁদের সঙ্গে কলকাতা পাড়ি দেয় তাঁদের পরিবার। তারপর থেকে তিলত্তমাকেই নিজের বাড়ি বানিয়ে নিয়েছেন তাঁরা। এর ফলে শহরের চারিপাশে গড়ে ওঠে জৈন উপাসনালয়। তবে দুর্ভাগ্যবশত সেই সব মন্দির ( Jain Temple Kolkata ) গুলোর বেশির ভাগেই নিষিদ্ধ অ-জৈনদের প্রবেশ। কিন্তু জৈন উপাসনালয় গুলির মধ্যে সবচেয়ে বড় এবং মহৎ মন্দির হল- শ্বেতাম্বর জৈন মন্দির বা পরেশনাথ মন্দিরে। তবে এই মন্দির এই ধরনের কোনও নিষেধাজ্ঞা নেই।

img 20220723 201420

তিনটি বড় কমপ্লেক্সে জুড়ে ছড়িয়ে আছে এর চারটি মন্দির। যার মধ্যে তিনটিই দশম তীর্থঙ্কর শীতলনাথকে উৎসর্গ করা হয়েছে। চতুর্থ মন্দিরটি ( Jain Temple Kolkata ) দাদাবাড়ি নামে পরিচিত। প্রধান কমপ্লেক্সে রয়েছে শিতলনাথের মন্দির। এই কমপ্লেক্সটি ১৮৬৭ সালের দিকে বিশিষ্ট জৈন সমাজপতি রায় বদরিদাস বাহাদুর মুকিম মন্দিরটির প্রতিষ্ঠা করেন। মন্দিরটিকে দেখতে আপরূপ। ভক্তদের এবং দর্শনার্থীদের প্রবেশের জন্য আছে একটি বিশাল গেটওয়ে। রাস্তার ধারে সাজানো ফুলের বিছানা। আছে একটি বড় পুকুর। কমপ্লেক্সের মধ্যে একটি সুন্দর কেন্দ্রীয় ঝর্ণাও রয়েছে।

img 20220723 201527

মূল মন্দিরের সামনে রয়েছে প্রতিষ্ঠাতা রায় বদরিদাস বাহাদুরের মূর্তি সহ একটি মার্বেল ফোয়ারা। প্রধান মন্দিরে ( Jain Temple Kolkata ) pপ্রবেশ করলে দেখা যাবে পুরো মন্দিরটিতে এক অত্যাশ্চর্য কাঁচ এবং মোজাইকের কাজ করা। উপরে একাধিক সুন্দর ঝাড়বাতি। মন্দিরের অভ্যন্তরে রয়েছে একটি প্রদীপ, যা মন্দিরের সেই স্থাপন থেকেই জ্বলছে। এরপর কমপ্লেক্সের দ্বিতীয় মন্দিরটি ১৮৯৫ সালে তৈরি হয়েছিল। মন্দিরের তৃতীয় এবং চূড়ান্ত কমপ্লেক্সটি প্রথম কমপ্লেক্সের পূর্বে তৈরি। এই মন্দির গুলির মধ্যে রয়েছে মহাবীরকে উৎসর্গীকৃত একটি মন্দির সহ জৈন সাধক জিন দত্ত কুশল সুরির পদচিহ্ন। শীতলনাথ কমপ্লেক্সের মতো, এটিতেও একটি ঝর্ণা সহ একটি বড় জলাশয় রয়েছে, মহাবীরের উপাসনালয়টি একটি চূড়ার উপরে অবস্থিত।

 

google-news-icon

লেটেস্ট খবর