fbpx

ভারতীয় টিমের অধিনায়ক বিরাট কোহলির সমর্থনে মুখ খুললেন প্রাক্তন পাকিস্তান অধিনায়ক

ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে (Virat Kohli) আধুনিক যুগের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবেই বিবেচনা করা হয়। এমনকি তার অধিনায়কত্বে ভারত বিদেশে এবং ঘরের মাঠে বিপুল সাফল্য পেয়েছে। তবে তার ঝুলিতে নেই কোন আইসিসি ট্রফি, বারবারই তারা অধিনায়কত্বে ভারত আইসিসি (ICC) টুর্ণামেন্টে মুখ থুবড়ে পড়েছে।

এই ঘটনার সম্পর্কে পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং বিশ্লেষক সালমান বাট (Salman Butt) মনে করেন কোহলিকে নিয়ে নোংরা রাজনীতি হচ্ছে। সম্প্রতি ইংল্যান্ড সিরিজে তার নেওয়া কিছু সিদ্ধান্তে টিম ম্যানেজমেন্ট খুশি নয় বলেও জানা যায়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে ভারত অধিনায়ক কে নিয়ে এই বিতর্ক টিমের জন্য স্বাস্থ্যকর হবে না বলেই মনে করেন সালমান।

Pakistan captain opens up in support of Virat Kohli

তিনি আরো বলেন, সাম্প্রতিক ইংল্যান্ড সিরিজে তার দুর্দান্ত অধিনায়কত্বের ছাপ রেখেছেন। কিন্তু শোনা যাচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারত ভালো পারফরম্যান্স না করলে কোহলিকে রোহিত শর্মার জন্য অধিনায়কত্বের পদ ছেড়ে দিতে হবে। যদিও বাট মনে করেন, রোহিত শর্মা একজন দুর্দান্ত খেলোয়াড় এবং অধিনায়ক। কিন্তু এখন এসব নিয়ে কথা বলার সময় নয়। অনেক বিশেষজ্ঞই আওয়াজ তুলেছিলেন কোহলির উপর চাপ কমাতে রোহিত শর্মার সীমিত ওভারের দায়িত্ব দেওয়া উচিত। পাঁচবারের আইপিএল (IPL) চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে তার অধিনায়কত্ব নজর কেড়েছে অনেকেরই।

virat kohli

সালমান বাট স্বীকার করে নিয়েছেন রোহিত একজন ভালো অধিনায়ক, কিন্তু এই পাকিস্তানী খেলোয়াড়ের মতে এখন এসব নিয়ে কথা বললে বিরাট কোহলি এবং দলের ওপর খারাপ প্রভাব পড়বে। বিরাট কোহলি তাঁর দল নির্বাচনের জন্য সমালোচিত হলেও তিনি ক্রমাগত তার দলকে জিতার জন্য উৎসাহিত করেন, মনে করেন বাট। ” সংবাদমাধ্যম এই সময়টা বেছে নেওয়ার কারণটা ভেবে দেখেছেন? বুট যা ভাবছে তাতে আমার কোন সমস্যা নেই, কিন্তু এই সময়টা কি এইসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করার? সংবাদমাধ্যমের উচিত বিরাট কোহলি কে সমর্থন করা।” সালমান বাট তার ইউটিউব চ্যানেলে এই বক্তব্য রাখেন।

এখানেই থামেনি তিনি, ” বিরাট সম্প্রতি ইংল্যান্ডের মাটিতে জল কি সত্যিই খুব ভালো নেতৃত্ব দিয়েছেন। দল নির্বাচন নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠলেও আমি মনে করি তিনি সঠিক পদক্ষেপ নিয়েছেন। তার অধিনায়কত্বে ভারত প্রতিটি ফরম্যাটে শীর্ষে রয়েছে। বিশ্বকাপের সামনে দাঁড়িয়ে মিডিয়ার এই ধরনের খবর প্রকাশ করা একটি নোংরা খেলা ছাড়া আর কিছুই নয়।” উল্লেখ্য, কোহলির নেতৃত্বে ভারত ২৪ শে অক্টোবর দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তাদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ (T20 World Cup) অভিযান শুরু করবে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর