fbpx

স্বপ্ন পূরণ! বিজ্ঞানী নন সাধারাণ পর্যটক হিসেবেই ৩ দিনের মহাকাশ ভ্রমণে রেকর্ড ৪ মার্কিনির

এর আগে বিজ্ঞানীদের পাঠানো বহু রকেটই (Rocket) মহাকাশ (space) পারি দিয়েছে৷ মহাকাশে সাধারণ মানুষের বিচরণ মুখের কথা নয়। কিন্তু এবার এই অসাধ্যই সাধন করে দেখালেন যুক্তরাষ্ট্রের চার নাগরিক। পেশায় বিজ্ঞানী নন, কেবলমাত্র সাধারণ পর্যটক হিসেবে দল বেঁধে মহাকাশ ভ্রমণের ঘটনা এর আগে কখনও ঘটেনি। ৩ দিন মহাকাশ ভ্রমণ সেরে সুস্থ ভাবে পৃথিবীতে ফিরে এসে কার্যত নজির গড়েছেন তারা।

মহাকাশ ভ্রমণে নতুন মাইলফলক পুঁতে এলো যুক্তরাষ্ট্রের এই ৪ নাগরিক। সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, স্পেস এক্সের একটি রকেট বুধবার ওই চার পর্যটককে নিয়ে ফ্লোরিডার কেপ ক্যানাভেরালের কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে পৃথিবী ছেড়ে যায়। সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় তাদের সঙ্গে কোনোও পেশাদার বা অভিজ্ঞ নভোচারী ছিলেন না। নিজেদের জেদ, ইচ্ছা এবং সাহস বুকে নিয়েই টানা তিনদিন পৃথিবীর কক্ষপথে পরিভ্রমণের পর যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) আটলান্টিক মহাসাগরে স্পেসএক্স-এর ক্যাপুসলে করে অতরণ করতে দেখা যায় তাদের।

এই সফরের নেতৃত্বে ছিলেন ধনকুবের জ্যারেড আইজ্যাকম্যান। তিনিই তার স্বপ্নের সফর ‘ইন্সপিরেশন ফোর’ এ বেছে নেন আরও তিনজন সাধারণ ছাত্রছাত্রী। তিনজন হলেন, পেডিয়াট্রিক ক্যানসার থেকে বেঁচে যাওয়া ২৯ বছর বয়সী হেইলি আর্সেনউক্স। দ্বিতীয়জন মার্কিন বিমানবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা ক্রিস সেমব্রোস্কি। তৃতীয় ব্যক্তি ৫১ বছর বয়সী ভূতত্ত্ববিদ সিয়ান প্রক্টর। তাদেরকে পৃথিবীর বাইরে ভ্রমণের সুযোগ করে দিয়েছে মার্কিন ধনকুবের ইলন মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্পেস এক্স।

The Inspiration-4,mission,Jared Isaacman,the billionaire

ইতিমধ্যেই তাদের সফরের বেশ কিছু ভিডিও প্রকাশ্যেও এসেছে। স্পেসএক্স তার অফিসিয়াল হ্যান্ডেলে মহাকাশযানের ল্যান্ডিংয়ের ক্লিপ পোস্ট করে ক্যাপশন দিয়েছে, “স্প্ল্যাশডাউন! পৃথিবীতে স্বাগত @ইন্সপিরেশন৪”। এই ‘স্প্ল্যাশডাউন’-এর পরে স্পেসএক্সের মিশন কন্ট্রোলারের উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়েছিল, “স্পেসএক্সের পক্ষ থেকে, পৃথিবীতে স্বাগতম। আপনাদের এই মিশন পৃথিবীকে দেখিয়েছে যে মহাকাশ আমাদের সবার জন্য।” পুরো ঘটনায় উচ্ছ্বসিত ‘ইন্সপিরেশন ফোর’ এর লিডার জ্যারেড আইজাকম্যান। এই ঘটনা পৃথিবীর বুকে অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে বলেই মনে করছেন তিনি।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর