fbpx

Gaatchora-Gouri elo: চুমুর দৃশ্যেও টোকাটুকি! হঠাৎ পাওয়া চুমুতে গালে হাত দিয়ে আকাশ থেকে পড়ল খড়ি-গৌরিরা

“কখনও আড়ি কখনও ভাব” বেশীরভাগ বাংলা ধারাবাহিকের দিকে তাকালেই এই গল্প দেখা যায়। ষড়যন্ত্র, মারামারি, রাগ, বিদ্বেষের পাশাপাশি দর্শকের মূল আকর্ষণ নায়ক নায়িকার খুনসুটি প্রেম। গাঁটছড়ায় এক তিক্ত সম্পর্ক দিয়ে খড়ি-ঋদ্ধির পথচলা শুরু হলেও খড়ির চেষ্টায় ফিরেছে সুদিন। ঋদ্ধিমান খড়ির সম্পর্কেও স্বাদ বদল ঘটেছে। অবিশ্বাস, অশ্রদ্ধার পাহাড় ডিঙিয়ে ধীরে ধীরে প্রবেশ করেছে প্রেম। সিংহ রায় বাড়িকে গহনা প্রতিযোগিতায় সেরার শিরোপা এনে দিতেই সব ভুলে ঋদ্ধিমান চুমু এঁকে দিয়েছে খড়ির কপালে। সব বাধা ভুলে এই তাদের মিষ্টি সম্পর্কের সূচনা। কিন্তু এত ভালোর মাঝেও রয়েছে দু-একটা খটকা। প্রায়শই শোনা যায়, গাঁটছড়ার অনেক দৃশ্যই নাকি অন্য ধারাবাহিক থেকে টোকা। অবশ্য প্রায় একইরকম গল্পের কতই বা আলাদা দৃশ্যপট ভাবা যায়। কিন্তু নিজস্বতা হারালে চলবে কেন? সেই নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন।
img 20220908 105952

img 20220908 110029
বাংলা ধারাবাহিকের অনন্য নাম ‘মিঠাই’-এর। কিন্তু সেই মিঠাই, গাঁটছড়াদের টপকে ঘরে ঘরে পৌঁছেছে ‘গৌরি এলো’। গৌরি-ঈশানের দাম্পত্য প্রেম আর ভক্তিরসের ছোঁয়া মন ভিজিয়েছে সকলের। বয়সের ফারাক মিটিয়ে কাছাকাছি এসেছে গৌরি -ঈশান। সেখানে হঠাৎই একদিন গৌরিকে চমকে দিয়ে তাঁর গুরু গম্ভীর ডাক্তার স্বামী চুমু দেয় তার গালে। এটা গৌরির কল্পনাতেও আসেনি। লজ্জা,ভয় আর অবাক হওয়া মিলিয়ে এক চমৎকার দৃশ্য তৈরি হয়। প্রথম চুম্বনের পর, গৌরি রীতিমতো ‘হা’ হয়ে যায়। কিন্তু সেই দৃশ্যের হুবহু কপি পেস্ট হয়ে গেল ‘গাঁটছড়া’ ধারাবাহিকে। দীর্ঘদিন বিয়ে হলেও বাকিদের মতো সহজ স্বাভাবিক সম্পর্ক তাদের নয়। কিন্তু এখন ধীরে ধীরে ঋদ্ধিমান নানা ছুতোয় কাছে আসার চেষ্টা করছে। আর মঞ্চে হঠাৎ সকলের সামনে চুম্বন আঁকার পরও ঘরে তৈরি হয় প্রেমের দৃশ্য। খড়ি ইচ্ছা করেই দূরত্ব বাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু ঋদ্ধি তার দুষ্ট বুদ্ধিতে হঠাৎ করে চুমু খেয়ে পালিয়ে যায়। গৌরির মতোই ততধিক লজ্জা পেয়ে আচমকা একই ভঙ্গিতে রিঅ্যাকশন দেয় খড়ি। আর তারপরই তৈরি হয় বিতর্ক। দর্শকদের নানা অভিযোগ, কেন টোকাটুকি করছে গাঁটছড়া? খড়ি ওরফে সোলাঙ্কির অভিনয়ের একটি নিজস্বতা রয়েছে। টুকে সেসমস্ত প্রতিভাকে ছোটো করা হচ্ছে বলে দাবি।

তবে বাংলা ধারাবাহিকে উড়ন্ত সিঁদুর, রাগী ছেলে-সরল মেয়ে, ষড়যন্ত্রকারী প্রাক্তন প্রেমিকা, একটি স্বামীর দুইটি স্ত্রী,দজ্জাল শাশুড়ি অথবা শ্বশুর এসব গল্প খুবই প্রচলিত। সব ধারাবাহিকে এর একটা না একটা থাকবেই। কিন্তু এখন তো দৃশ্য থেকে ভাবনা সবই হচ্ছে চুরি এমন বিস্ফোরক দাবি দর্শকদের। তবে যতই নেতিবাচক দিক থাক, গৌরব, সোলাঙ্কি, শ্রীমা, অনিন্দ্য দের অভিনয় বেশ উচ্চ মানের। গাঁটছড়ার তারকা মুখ আর ধামাকা এপিসোড একেবারেই অনন্য।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর