fbpx

Gaatchora: একেবারে যেন সোনালী মুহূর্ত! প্রতিযোগিতায় জিতেই খড়িকে চুম্বন ঋদ্ধির, দেখে মুগ্ধ অনুরাগীরা

প্রেমের সাগরে খড়ি ঋদ্ধি। প্রতিযোগিতায় জিতে পরিবারের সকলের সামনেই খড়িকে চুম্বন করল ঋদ্ধি।

‘গাঁটছড়া’তে ( Gaatchora ) চলছে টানটান উত্তেজনা। জুয়েলারী কম্পিটিশনে শত্রু দত্তদের সঙ্গে আদৌ কী জিততে পারবে সিংহ রায়রা? তা নিয়েই দর্শকরা কৌতূহলী হয়ে উঠেছিল। সিংহ রায়দের চিরশত্রু দত্তরা। আর একারণেই গোটা সিংহ রায় পরিবারকে পথে বসাতে উঠে পড়ে লেগেছিলেন দত্তবাবু। বিভিন্ন ভাবে ছল চাতুরী করে খড়ি ঋদ্ধির জীবনে ঝড় তুলেছিলেন তিনি। কিন্তু বিভিন্ন সময়ে সিংহ রায়দের বিপদে এগিয়ে এসেছিল খড়ি। তাই এবারও তার বিকল্প হয়নি। বুদ্ধি খাটিয়েই নিজের পরিবারকে দত্তবাবুর হাত থেকে বাঁচায় খড়ি।

‘গাঁটছড়া’র চলতি পর্বগুলিতে আমরা দেখেছি সিংহ রায়দের প্রতিযোগিতায় হারাতে অনেক ষড়যন্ত্র করে দত্তবাবু অর্থাৎ অয়নার বাবা। প্রথমে সিংহ রায়দের গয়নার ডিজাইন চুরি করে দত্তরা। এরপর তাদের মডেলদেরও কেড়ে নেয় তারা। এসব ঘটনায় সিংহ রায় বাড়িতে থেকেই সে বাড়ির সকলের চোখে ধূলো দিয়ে বাবাকে সাহায্য করে অয়না। দত্তরা ভাবে এই প্রতিযোগিতা জিতবে তারাই। যদিও তাদের আশায় জল ঢেলে দেয় খড়ি। মডেল নেই তো কী? সিংহ রায় বাড়ির মেয়ে, বউরা সাবেকি সাজে এক এক করে মঞ্চে হাজির হতে থাকে। যা রীতিমত তাক লাগিয়ে দেয় সকলকে।

img 20220905 204648

দ্যুতির প্রশিক্ষণে ঠাম্মি থেকে শুরু করে বড় পিসি, কাকীমণি সকলেই স্টেজে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখায়। যা দেখে অবাক হয়ে যা রাহুল, সঙ্গেই দত্তবাবু। দ্যুতি নিজেকে রাহুলের কাছে প্রমাণ করে দেয়, এবং রাহুলও নিজের ভুল বুঝে দ্যুতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার চেষ্টা করে। স্বাভাবিক ভাবেই খড়ির বুদ্ধিতে সিংহ রায়দের পারফরমেন্স ভাল হওয়ায় তারা প্রতিযোগিতা জিতে যায়। এত ষড়যন্ত্রের পরও নিজের হার কিছুতেই মানতে রাজি নন দত্তবাবু। তাঁর দাবি একটাই, সিংহ রায়রা নাকি অসৎ উপায় অবলম্বন করেছে। যদিও সকল দর্শকই জানে আসলে কে অসৎ উপায় অবলম্বন করেছে।

img 20220905 204722

সকলের সামনেই প্রমাণসহ দত্তবাবুর মুখোশ খুলে দেয় খড়ি। গ্রেফতার হন দত্তবাবু। এরপরই আসে সেই সোনালী মুহূর্ত। খড়িকে বিশ্বাস করে যে একেবারেই ভুল করে নি ঋদ্ধি, তা সে বুঝতে পারে। মঞ্চে উঠেই নিজের অর্ধাঙ্গিনীর গালে চুম্বন করে ঋদ্ধি। সত্যি, খড়ি পাশে না থাকলে হয়তো জয়ের মুখ দেখতে পেত না সিংহ রায়রা। আর তাই খড়িকে ধন্যবাদ জানাতে ভোলে না ঋদ্ধি। কিন্তু এত অপমানের পর এর বদলা কি নেবে না দত্তবাবু? এখন সেটাই দেখার।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর