fbpx

Gangaram:শরীর জুড়ে রোগের বাসা, হাজার কষ্ট সহ্য করে দর্শকদের জন্য অভিনয় করে চলেছেন গঙ্গারামের অভিনেতা

মারণব্যাধি বাসা বেঁধেছে শরীরে, তবু দূরন্ত খলনায়কের চরিত্রে পাঠ করে যাচ্ছেন জয় বদলানি। অভিনেতা দের বাস্তবিকই অভিনয় করতে হয়। অভিনয়ের মাধ্যমেই ঢেকে ফেলেন ব্যক্তিগত জীবনের কষ্ট, যন্ত্রনা। সন্ধ্যা হলেই রঙিন পর্দার ঝলমলে জীবন মানুষকে আনন্দ দেয়, ঢেকে যায় অন্ধকারের কষ্ট।

সম্প্রতি ৪০০ ছুঁই ছুঁই স্টার জলসার গঙ্গারাম ধারাবাহিক। প্রথমদিকে জনপ্রিয় হলেও ধীরে ধীরে ম্লান হচ্ছে TRP । স্বাভাবিক নিয়মেই ইতি টানতে হবে চ্যানেলকে। অবশ্য অভিনেতারা তাতে বেশ খুশি। নতুন কাজের আগ্রহ রয়েছে তাদের মধ্যে। শুধু যিনি মারণ রোগের সঙ্গে লড়াই করে এই ধারাবাহিকে চালিয়ে গেছেন দাপুটে অভিনয় সেই জয় বদলানি কী বলছেন?

 

আসলে সিনে দুনিয়ায় প্রত্যেকের জীবন অনিশ্চয়তায় ভরা। কারও কাজ শেষ মানেই পরবর্তী কাজ খোঁজার চেষ্টা। অভিনয় দক্ষতা দিয়ে প্রমাণ করে যাওয়া নিজেকে। জয় বদলানিও তাই করেছিলেন।দর্শক তো দূরস্থ, শুট্যিং ফ্লোরেই কাউকে সেভাবে বুঝতে দেননি অভিনেতা। নিয়মিত চিকিৎসা, পথ্য আর অভিনয়। শেষমেশ জেদের কাছে হার মানতে বাধ্য হয়েছে রোগ। এখন তুলনামূলকভাবে সুস্থই আছেন তিনি। অভিনেতাও চান তাড়াতাড়ি শেষ হোক এই ধারাবাহিক। বর্ষা আসার আগে শেষ হলেই ভালো হয় কারণ বর্ষায় স্টুডিওর সামনে জল জমায় সমস্যায় পড়েন সকলেই।

img 20220717 115435

অভিনেতা চান নতুন কোনও কাজের সন্ধান করতে। তিনি জানান, তাঁর হাত বিশেষ ফাঁকা যায় না। তবে বেশিরভাগই পান নেতিবাচক চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ। তিনি ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন কত ভালোবাসা ছবি দিয়ে। বোম্বাইয়ের বোম্বেটে, লাঠি, জামাই নম্বর ওয়ান একাধিক ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন। বাংলা ইন্ডাস্ট্রির ‘বুম্বাদা’ প্রসেনজিৎ, জিৎ সকলের কাছেই ভিলেনগিরির জন্য মারও খেয়েছেন। একাধিক দক্ষিণী সিনেমাতেও জমিয়ে অভিনয় করেছেন তিনি। জনপ্রিয় KGF সিনেমাতেও একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন। পাশাপাশি সিরিয়ালেও পরিচিত মুখ হয়ে উঠেছেন। এখন এত যন্ত্রণা পেরিয়ে এসে, তিনি আর ভিলেন হতে চাননা। এবার একটা বাবা অথবা ভালো পুলিশ অফিসারের চরিত্র পেলেই তিনি খুশি। ডিরেক্টরদের কাছে এই অনুরোধই করেছেন তিনি।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর