fbpx

Hero Alam: গাইবেন না রবীন্দ্র সঙ্গীত! পুলিশকে মুচলেকা হিরো আলমের

জয়িতা চৌধুরি, কলকাতাঃ বিতর্কের আরেক নাম হিরো আলম ( Hero Alam )। তবে তাঁকে নিয়ে নেটমাধ্যমে যতই ঝড় উঠুক, সেলিব্রিটি সুলভ আচরণ দিয়ে সামলেছেন সব ঝড় ঝাপটাগুলোই। তবে এবার অভিযোগ তিনি নাকি পুলিশের পোশাক পরে বিকৃত রবীন্দ্র সংগীত গেয়েছেন। শুধু তাই নয় নজরুলগীতিকেও রেহাই দেননি আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম। আর তার জেরেই নেটিজেনদের ক্ষোভের মুখে পরেন তিনি। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই তার নামে একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে থানায়। পুলিশ তাঁকে থানায় হাজিরা দিতে বলায় শুক্রবার থানায় হাজিরাও দেন তিনি।

হিরো আলম এই থানায় একটি মুচলেকাও জমা দিয়েছেন যাতে তিনি এবার থেকে বিকৃত করে গান গাইবেন না তিনি। গানের সঙ্গে কোন রকম অশ্লীলতাও যোগ করবেন না আলম। নিজের মত গান গেয়ে ও মিউজিক বানিয়ে নেটমাধ্যমে পরিচিতি তৈরি করেছিলেন হিরো আলম। ২০১৮ সালে ওপার বাংলার সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়ে ছিলেন বগুরের বাসিন্দা হিরো আলম। এপার বাংলার কম জনপ্রিয় নন তিনি। সম্প্রতি হিরো আলমকে রাস্তায় পুলিশের পোশাক পড়ে হিরোগিরি করতে দেখা যায়। সেই ভিডিও আগুনের মতো ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়। আর সেই বিতর্কের রেশ কাটতে না কাটতে আগুনে ঘি ঢালার মতন নতুন বিতর্কের উৎপত্তি।

heroalam 1

রবীন্দ্রনাথের বিকৃত এই গান শুনে গর্জে ওঠেন রবীন্দ্রনাথ সংগীতপ্রেমীরা। ঢাকার মহানগর হাকিম আদালতে ২৯ নম্বর কোর্টে ৪৬১/ ২২ ধারায় মামালা করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, হিরো আলম জানান সাধারণত ভাইরাল টপিকের উপর ভিডিও বানান তিনি। কন্টেন্টের থেকে ভিউতে বেশি গুরুত্ত্ব দেন তিনি। আর পুলিশের পোশাক পরে জনসমক্ষ্যে নাচা যে নিষিদ্ধ তা জানতেন না তিনি। তবে তিনি এধরণের গর্হিত কাজ আর করবেন না বলেই আশস্ত করেছেন পুলিশকর্তাদের।

ঢাকার মেট্রোপলিটন পুলিশ একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, হিরো আলম মুচলেকা দিয়ে আশ্বস্ত করেছেন তিনি কোনও গানকে বিকৃত করে ভিডিও বানাবেন না। একই সঙ্গে অসন্তোষ সৃষ্টিকারী, মানহানি বা হেয় করে কোনও রকম কন্টেন্ট উপস্থাপিত করবেন না। যদিও হিরো আলম এই নিয়ে প্রেসের কাছে কোনরকম বক্তব্য রাখেননি।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর