fbpx
Monday, September 26, 2022

Thor Ghonto: কলা গাছের কাণ্ড থেকেই চমকপ্রদ পদ! সুস্বাদু থোড় ঘন্ট মুখে দিতেই বাঙালিয়ানায় মজবে আপনার মন

বাদ পড়বে না কিছুই। কলা গাছের কাণ্ডের এই অংশ দিয়েই বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু পদ।

আমরা ছোট থেকেই সকলের মুখে মুখে শুনে এসেছি যে কলা গাছের নাকি কিছুই বাদ পড়ে না। আর সত্যিই তাই, কাঁচকলা, পাকা কলা, মোচা থেকে শুরু করে কলা গাছের কাণ্ডের মধ্যে থাকা থোড়ও মানুষ খেয়ে থাকে।

থোড়ে থাকে ভরপুর পরিমাণে আয়রন এবং অন্যান্য পুষ্টিমৌল। যা খুবই স্বাস্থ্যকর। অ্যানিমিয়ার জন্য দারুণ কাজ করে থোড়। আর এই সবজি দিয়ে বানানো পদও খুবই সুস্বাদু হয়। তাহলে চলুন আজকে শিখে নেওয়া যাক থোড় ঘন্ট রেসিপি ( Thor Ghonto Recipe ) । নিরামিষ এই পদ এতটাই সুস্বাদু যে ছোট থেকে বড় সকলেই তৃপ্তি ভরে খাবে।

উপকরণ
৫০০ গ্রাম থোড়, ১০০ গ্রাম আলু, ৩ টি কাঁচা লঙ্কা, ২০ গ্রাম চিনেবাদাম, ২৫ গ্রাম নারকেল কোরা, ৪০ গ্রাম সর্ষের তেল, ১ টি শুকনো লঙ্কা, ১ টি তেজপাতা, ২ টি এলাচ, ২ টি লবঙ্গ, ১ টি দারচিনি, ৩/৪ চা চামচ গোটা জিরে, ১.৫ চা চামচ জিরে গুঁড়ো, ৩/৪ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, ১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চা চামচ আদা বাটা, ১.৫ চা চামচ চিনি, ২ টেবিল চামচ গরম দুধ এবং ১/৪ চা চামচ আটা, ১ টেবিল চামচ ঘি, ১/৪ চা চামচ গরম মশলা, স্বাদ মতো নুন

থোড় ঘন্ট তৈরির পদ্ধতি

img 20220919 222536

থোড় ঘন্ট তৈরি করতে প্রথমে ৫০০ গ্রাম থোড় নিয়ে ভাল করে পরিষ্কার করে কুচি কুচি করে কেটে নিতে হবে। এরপর একটি বড় পাত্রে জল নিয়ে থরগুলি সেদ্ধ করতে হবে। এরপর একটি কড়াইতে তেল গরম করে চিনেবাদাম ভেজে তুলে নিতে হবে। এবার সেই তেলেই শুকনো লঙ্কা তেজপাতা এলাচ লবঙ্গ দারচিনি এবং গোটা জিরে ফোড়ন দিতে হবে। এরপর এরমধ্যে আলু কেটে কম আঁচে নুন দিয়ে একসঙ্গে ভাজতে হবে কিছুক্ষণ। আগে থেকে করে রাখা নারকেল কোড়া এবার এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে। একটু সোনালী বাদামি রঙের না হওয়া পর্যন্ত সেগুলি ভাজতে হবে। পরের ধাপে জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো এবং হলুদ গুঁড়ো একটি বাটিতে নিয়ে জল দিয়ে মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণটি এবার কড়াইতে সেই নারকেল করার মধ্যে যোগ করতে হবে। এরপর এর মধ্যে যোগ করতে হবে সামান্য আদা বাটা। এতক্ষণে থোড় সেদ্ধ হয়ে যাওয়ার কথা। সেদ্ধ হওয়া থোড় হাত দিয়ে চটকে চটকে একটু ম্যাশ করে নিতে হবে। এরপর নারকেল কোড়ার মধ্যে ম্যাশ করা থোড় যোগ করে ভাল করে নেড়েচেড়ে নিতে হবে। কম আঁচে ঢেকে কিছুক্ষণ রান্না করার পর ঢাকনা সরিয়ে চিনি মিশিয়ে দিতে হবে। এবার আগের থেকে যে চিনে বাদামগুলি ভেজে রেখেছিলেন সেগুলি রান্নায় দিয়ে দিন। ঘরের ধাপে সামান্য গরম দুধের মধ্যে আটা গুলে সেই মিশ্রণটি উপর থেকে ছড়িয়ে দিন। এমন করলে থোড়ে একটি আঠালো ভাব আসবে। শেষ ধাপে উপর থেকে ঘি এবং গরম মশলা ছড়িয়ে দিন। এতে সুগন্ধ আসবে রান্নায়। এই মরশুমে ডাল কিংবা গরম ভাতের সঙ্গে একটি পারফেক্ট পদ হল এই থোড় ঘন্ট।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর