fbpx

“আমি বাড়ির বউদের প্রেম করতে বলতাম…!” দুয়ারে সরকার অতীত, এবার মমতার দুয়ারে পরকীয়া প্রকল্প

প্রেম করবেন নাকি পরকীয়া?( Extramarital affair ) উদ্দ্যোগ মুখ্যমন্ত্রীর ( CM )। কী শুনে হতবাক নিশ্চই, কিন্তু এটাই সত্যি। এবার দুয়ারে সরকার নয়, দুয়ারে পরকীয়া। এক প্রকার এমনটাই ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ( CM Mamata Banerjee )। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে রাজনৈতিক পরিস্থিতির ভিত্তিতে এই রাজ্যে কারোর কথা যদি শেষ কথা হয়ে থাকে তা হলে তিনি হলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের জীবনে রাজনীতিকেই শেষ এবং চূড়ান্ত পরিস্থিতি হিসাবে দেখেন তিনি। নিজেকে কোনও সম্পর্কের বেড়াজালে আবদ্ধ করেননি বলেই শোনা যায় তাঁর ব্যাপারে। তবে  এই প্রসঙ্গেও নানা মুনির নানা মত। 

মুখ্যমন্ত্রী পদে আসীন থাকলেও বক্তৃতা দিতে গিয়ে আজ অবধি হাজারও বেঁফাস মন্তব্য করেছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে নানা সময় রাজ্যের বিরোধী এমনকী, নেটিজেন ও সাধারণ মানুষেরও ঠাট্টার মুখে পড়তে হয় মুখ্যমন্ত্রীকে। সম্প্রতি একটি পুরানো ভিডিও ফের নেটমাধ্যমে মাথা চাগাড় দিয়ে উঠেছে। যেখানে দেখা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পরকীয়া নিয়ে একটি বেফাঁস মন্তব্য করে বসেন। ইতিমধ্যে সেই ভিডিওটি ( ভিডিয়োর সত্যতা দ্যা বেঙ্গলি ক্রোনিক্যাল যাচাই করেনি ) নেটমাধ্যম জুড়ে ফের একবার আলোড়ন তৈরি করেছে। ভিডিওটিতে মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে শোনা গিয়েছে যে, “আমি খুব ফ্লেক্সিবল। আমি আগে বাড়ির বউদের বলতাম যে তোমাদের ইচ্ছা হলে তোমরা প্রেম করো।” 

mamata banerjee extramarital affair 1

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্যকে ঘিরে রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হলে তাতে জল ঢেলে দেয় খোদ তৃণমূল। এটি অর্ধ সত্য বলে দাবি করেন তাঁরা। তবে বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর বেফাঁস মন্তব্যের তালিকা অধিক। প্রকাশ্যে মঞ্চে বলতে গেছেন এক, বলেছেন আর এক এই রকম ঘটনার নজির প্রচুর। আর সেই তালিকায় যেন ইন্ধন দিয়েছে এই পরকীয়া চর্চা। 

অবশ্য নিজেই আবার এক সময় এই পরকীয়ার বিরোধীতা করেছেন তিনি। নেতাজী ইন্দোর স্টেডিয়ামে আয়োজিত একটি সভায় বাংলা ধারাবাহিকের উপর ক্ষোভ উগড়ে দেন তিনি। তাঁর দাবি, বর্তমান বাংলা সিরিয়াল মানেই একটা পুরুষের একাধিক স্ত্রী আর নয় তো একটি মেয়েকে নিয়েই তিন-চার জনের টানাটানি। মুখ্যমন্ত্রী এই মন্তব্যে হাসির রোল উঠলেও বাংলা সিরিয়ালের এই পরিস্থিতিকে করুণ বাস্তব বলে স্বীকার করেছিলেন অনেকেই।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর