Advertisement

মন্ত্রী পদ হারিয়ে নিজেকে গাধার তকমা ইমরানের, ভিডিও দেখতেই হাসির ফোয়ারা নেটপাড়ায়

মন্টি শীল, কলকাতা : বিতর্কের আরও একটা নাম পাকিস্তান। এই কথাটাপ্রায় সকলেই জানেন। দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় হোক অথবা আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক এই দেশ তথা রাষ্ট্রনেতারা সবসময়েই সংবাদের শিরোনামে রয়েছেন। এক কথায় বলতে গেলে এই দেশ বিতর্ককে ঝেড়ে ফেলতে চাইলেও বিতর্ক এদের পিছু ছাড়ে না। সম্প্রতি ভারতবর্ষের সঙ্গে একাধিক কূটনৈতিক বিষয় নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে তীব্র বিতর্কের মুখে পড়তে হয়েছে পাকিস্তানকে। সম্প্রতি ফের একবার বিতর্কের মুখে এই দেশ।

তবে ঠিক দেশ বললেও ভুল করা হবে, কারণ যিনি এই বিতর্কের মূল অংশ তিনি হলেন পাকিস্তানি সদ্য প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সম্প্রতি পাকিস্তানি ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে তার প্রধানমন্ত্রিত্বের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এরপর একের পর এক খবরের মাঝেই সোশ্যাল মিডিয়াতে এই প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে যা এই মুহূর্তে রীতিমতো ভাইরাল। হেঁসে লুটোপুটি খাচ্ছেন নেটিজেনরা। কিন্তু এমন কি বললেন প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী।

7c22

আরও পড়ুন ….“আমায় বাড়ি ছেড়ে দাও”, পার্টি শেষ হতেই সলমন ঘনিষ্ঠ শেহনাজ
আরও পড়ুন ….১৬ বছরেই উপচে পড়ছে রূপের ঝলক! হটনেসে মা রবিনাকেও টক্কর দেবে কন্যা রাশা

ভিডিওর সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী এক আলোচনা সভায় বক্তার আসনে বসে নিজেই নিজেকে গাঁধা বলে সম্বোধন করলেন। যা দেখার পর রীতিমতো হতবাক নেটপাড়ার বাসিন্দারা। জানা গিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটি প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রধানমন্ত্রীত্ব বসার আগের ভিডিও। সেখানে দেখা যাচ্ছে ইমরান খান তৎকালীন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ করছেন। আর এই আক্রমণের মাঝেই নিজের সম্পর্কে এই মন্তব্য করে বসলেন তিনি। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে বলতে শোনা গিয়েছে যে, তিনিও ব্রিটিশ সোসাইটির একজন সদস্য হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।


আরও পড়ুন ….ছোট পর্দায় মন জেতার পর এবার বলিউডে পাড়ি পটকার! অভিনয় করবেন বিগবি অমিতাভ বচ্চনের সাথে

ব্রিটিশ সোসাইটি তাকে গ্রহণ করেছিল তার যোগ্যতায়। কিন্তু তিনি কখনওই তাকে নিজের বাসস্থান বলে নির্বাচন করেননি। ইমরান বলেন যে , তিনি একজন পাকিস্তানি, আর একজন পাকিস্তানি হয়ে কখনোই ইংরেজ হয়ে উঠতে পারবনা। যদিও ইমরান খানের এই মন্তব্যের পরেই ভাইরাল হওয়া সেই বক্তব্যটি প্রকাশ্যে বলে ফেলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, যদি একজন গাঁধার গায়ে রঙের প্রলেপ করা হয় তবে সে একজন গাঁধাই থাকবে জেব্রা হবে না। এই ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি সামনে আসার পর রীতিমতো সোরগোল পড়ে যায় নেটপাড়াতে। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ার প্রায় সবকটি অংশেই বিপুল পরিমাণে শেয়ার হচ্ছে এই ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি। প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যকে বেশ উপভোগ করছেন নেটিজেনরা।



Follow us on


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement
Back to top button
Advertisement
Advertisement