fbpx

Jacqueline in Kolkata: কলকাতায় এসে সোজা কালিঘাটে জ্যাকলিন, নেপথ্যে কোন রহস্য?

তিলোত্তমার ( Kolkata ) আছে যেন নিজস্ব মাধ্যকর্ষণ শক্তি। আর সেই শক্তির টানেই যেন এই শহরে ছুটে  আসে বহু মানুষ। শ্যুট কিংবা নতুন প্রোজেক্টের প্রোমোশনের উদ্দেশ্যে  বলিউড সেলিব্রিটিদের ( Celebrities ) হামেশাই এখানে আনাগোনা থেকে থাকে। যেমনই গত মাসেই নিজের ওয়েবসিরিজ ‘ব্রাউনের’ শ্যুটে তিলোত্তমা হয়ে দার্জিলিংয়ে রওনা দিয়েছিলেন কারিশ্মা কাপুর। আবার তাঁর আগে ‘ভুল ভুলাইয়া’র প্রোমোশনে এ শহরে এসেছিলেন কার্তিক আরিয়ান ( Kartik Aaryan )। 

তবে এই সকলের থেকে জ্যাকলিনের ( Jacqueline Fernandez ) আগমন যেন অনেকটাই রহস্যজনক। মঙ্গলবার সকালে এ শহরে পা রাখেন অভিনেত্রী। বিকালে তাঁকে রহস্যজনক ভাবে দেখা যায় কালিঘাটে ( Kalighat )। নিজেকে সম্পূর্ণ ভাবে লুকিয়ে রাখার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। কিন্তু তাতে যেন বিশেষ সুবিধা হয়নি। শ্রীলঙ্কান এই সুন্দরীকে চিনতে পেরেছেন সকলেই। সবুুজ-রানি ওড়না দিয়েছিলেন মাথায়, মুখে কালো মাস্ক। কপালে সিঁদুরের টিকা। 

jacqueline 1

তবে কেন কলকাতায় জ্যাকলিন এ নিয়ে রয়েছে নানা প্রশ্ন। গত কয়েকদিন ধরেই ইডির জেরায় নাজেহাল অভিনেত্রীর জীবন। সম্প্রতি, ২০০ কোটি টাকার আর্থিক তছরুপের মামলায় অভিনেত্রীর নাম জড়িয়েছে ঠকবাজ সুরেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে। সোশ্যাল মিডিয়ায় জুড়ে ভাইরাল হয়েছে তাঁদের একাধিক ছবি। জানা গিয়েছে, জ্যাকলিনের দামি ফোন থেকে পোশাক সবই নাকি এই সুরেশের টাকায়। মাঝে সুরেশ ও জ্যাকলিনের একটি ছবি ভাইরাল হয়, যেখানে অভিনেত্রীর সারা শরীরে লাভ বাইট একদম সুস্পষ্ট ভাবে দেখা যায়। যেখানে তিনি শুয়ে ছিলেন সুরেশ চন্দ্রশেখরের পাশে। 

প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগেই নিজের হলিউড প্রোজেক্ট  ‘টেল ইট লাইক আ উওম্যান’-এর কথা ঘোষণা করেন অভিনেত্রী। এর আগে ২০১৫ সালে একটি ব্রিটিশ ছবিতে কাজ করেন তিনি, নাম তার ‘ডেফিনিশন অব ফিয়ার’। শুধু তাই নয়, চলতি বছরেই মুক্তি পেয়েছে তাঁর ‘বচ্চন পান্ডে’ এবং ‘অ্যাটাক’। কিন্তু বক্স অফিসে মুনাফা অর্জনে দুটিই ব্যর্থ। তবে এই তিলোত্তমার টানে বলিপাড়ার তারকাদের আগমন ‘মন খুশি উর্বশী’ করে তোলে শহরবাসীর। গত মাসেই পঙ্কজ ত্রিপাঠীর আগমন। শহরের ধারে ফুচকা খাওয়া দেখে একেবারে খোশ আমেজ পেয়েছিলেন শহরবাসীরা।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর