fbpx

Rachna Banerjee: ভালবাসা নয় জুটেছে কষ্ট! ‘সিঙ্গেল মাদার’ রচনার জীবন সংগ্রামের কাহিনী শুনলে চোখ জল আসবে আপনারও

মন্টি শীল, কলকাতা: সম্প্রতি জনপ্রিয়তার নিরিখে টেলিভিশনের পর্দায় সম্প্রচারিত বাংলা ধারাবাহিক এক অন্য মাত্রায় পৌছে গিয়েছে। প্রায় প্রতিনিয়তই নিত্য নতুন গল্পের ঝুলি নিয়ে টেলিভিশনের পর্দায় সম্প্রচারিত হয় এই লোকপ্রিয় মেগাসিরিয়াল। কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে এই বাংলা ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তাকে রীতিমতো টেক্কা দিয়ে চলেছে টেলিভিশনের পর্দায় সম্প্রচারিত বিনোদনমূলক রিয়ালিটি শো। যার মধ্যে অন্যতম হল ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’ ( Didi No 1 )। বাংলার প্রতিটা গৃহিণীদের কাছে এক অন্যতম আলোচিত নাম হল এই রিয়ালিটি শো।

বিগত দশ বছর ধরে টেলিভিশনের পর্দায় নিজের রাজত্ব কায়েম করে রেখেছে ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’। আর এই অসাধ্য কাজকে সহজ করে তুলেছে শো এর সঞ্চালিকা টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জি ( Rachna Banerjee )। টলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিগত দশ বছর ধরে ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’এর মধ্যে দিয়ে অসংখ্য মহিলাদের অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন। শোয়ের সঞ্চালনা করার সময়ও অভিনেত্রীকে বারংবার বলতে শোনা যায়, ‘নির্ভরশীল না হয়ে সর্বদা সাবলম্বী হয়ে উঠতে হবে। ’ কিন্তু শুধু মাত্র তাঁর শো নয়, অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জির ব্যক্তিগত জীবনও নিঃসন্দেহে অসংখ্য মহিলাদের অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন।

29c32

এমন অনেকেই বলে থাকেন, টলিউড অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জির ( Rachna Banerjee ) ব্যক্তিগত জীবন একটি রূপোলি পর্দার সিনেমার সমতুল্য। সূত্র অনুযায়ী জানা গিয়েছে, অভিনেত্রীর আসল নাম ঝুমঝুম অর্থাৎ ঝুমঝুম ব্যানার্জি। অভিনেত্রী তাঁর কেরিয়ারের সূচনা করেছিলেন বাংলা সিনেমা ‘দান প্রতিদান’ এর হাত ধরে। এরপরেই ঝুমঝুম ব্যানার্জি হয়ে ওঠেন সকলের প্রিয় রচনা ব্যানার্জি। অভিনেত্রী তাঁর কেরিয়ারে একাধিক জনপ্রিয় সিনেমাতে অভিনয় করেছেন যার মধ্যে দক্ষিণী এবং ওড়িয়া ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির একাধিক সিনেমাও মজুত রয়েছে। টলিউডের এই অভিনেত্রীকে দক্ষিণের অভিনেতা এবং বলিউডের বিগ বি অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গেও রূপোলি পর্দায় অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে।

29c33

কিন্তু অনুরাগীদের কাছে তাদের সবচেয়ে প্রিয় জুটি ছিল ওড়িয়া ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় তারকা সিদ্ধার্থ মহাপাত্রের সঙ্গে রচনা ব্যানার্জির জুটি। শোনা যায়, জনপ্রিয় এই জুটি একটা সময় বিয়ের পিঁড়ি পর্যন্ত পৌছে গিয়েছিল। কিন্তু সেই সম্পর্ক বেশি দিন স্থায়ী করেনি। এরপর ব্যবসায়ী প্রবাল বসুর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী। তাদের একটি পুত্র সন্তানও রয়েছে। কিন্তু সেই সম্পর্কের চাকাও বেশিদুর গড়ায়নি। এরপর ছেলেকে নিয়ে একাই থাকতেন অভিনেত্রী আর সঙ্গী ছিল তাঁর বাবা। কিন্তু বিগত কয়েক মাস আগে প্রয়াত হন অভিনেত্রীর বাবা। যার দরুন কিছুটা বিষন্নতার অন্ধকারে নিমজ্জিত হন অভিনেত্রী। কিন্তু তাঁর পরেও তিনি চেষ্টা করছেন ঘুরে দাঁড়ানোর এবং প্রতি সন্ধ্যায় দর্শকদের জন্য টেলিভিশনের পর্দায় নিয়ে হাজির হন ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’। যা প্রকৃত অর্থে বাংলার গোটা নারী সমাজকে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে এবং ভবিষ্যতেও করে আসবে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর