fbpx

Taamara Krishna: “বাবা থাকলে মুহূর্তটা আরও সুন্দর হত”, জীবনের প্রথম স্টেজ শো’তেও বাবাকে কাছে পেল না কেকে-কন্যা

“বাবা যেখানে আছেন সেখানে বসেই হাসছেন”, কেকে’র জন্মদিনে প্রথম লাইভ শো’র মুহূর্ত পোস্ট তামারার

মন্টি শীল, কলকাতা: আজ প্রায় তিন মাস, সঙ্গীতে সুরেলা জগৎ থেকে চিরতরে বিদায় নিয়েছেন বলিউডের জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ ওরফে কেকে ( KK )। গত ৩১শে মে কলকাতার এক নামী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বার্ষিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে নজরুল মঞ্চে উপস্থিত হয়েছিলেন এই সঙ্গীত শিল্পী। সেখান থেকে ফেরার পথেই তিনি অসুস্থতা বোধ করেন, যদিও হাসপাতালে নিয়ে গেলে শেষ রক্ষা হয়নি। কেকে তাঁর অগণিত ভক্ত, বন্ধুবান্ধব, সহকর্মী এবং পরিবারের সদস্যদের ছেঁড়ে নক্ষত্রের দেশে বিলীন হয়ে যান। তবে এই পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেও ভক্তরা যেন তাঁকে ভুলতে চাইছে না। যার একটা ছোট্ট নিদর্শন পাওয়া গেল সোশ্যাল মিডিয়াতে।

সম্প্রতি ছিল প্রয়াত বলিউড সঙ্গীত শিল্পী কেকে’র ( KK ) ৫৪ তম জন্মবার্ষিকী। আর এদিন সেই উপলক্ষে মুম্বাইতে এক সঙ্গীত সন্ধ্যার আয়োজন করা হয়েছিল। যেখানে প্রথমবার মঞ্চে লাইভ পারর্ফমেন্স করতে দেখা গেল কেকে’র মেয়ে তামারা এবং ছেলে নকুল’কে। তবে তাঁরা একা ছিলেন না, মঞ্চে তাঁদের সঙ্গে গানের সুরে সুর মেলাতে দেখা গিয়েছে বলিউডের জনপ্রিয় প্লেব্যাক সিঙ্গার শান’কে। এদিন কেকে’র মেয়ে তামারা তাঁর নিজস্ব সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে সেই স্মরণীয় মুহূর্তের ছবি গুলি শেয়ার করেন এবং তাঁর ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘প্রথম গিগ! এক দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা। প্রত্যেক অসাধারণ সঙ্গীত শিল্পীকে অসংখ্য ধন্যবাদ, যারা মঞ্চে তাঁদের সঙ্গ দিয়েছে।’

26c32

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Taamara (@taamara.krishna)

শুধু তাই নয়,  এদিনের করা পোস্টে কেকে’র মেয়ে তামারা বিশেষ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন বলিউড প্লেব্যাক সিঙ্গার শান’কে। সোশ্যাল মিডিয়াতে তামারা লেখেন, ‘শান আঙ্কেলকে অসংখ্য ধন্যবাদ ইটস দ্য টাইম টু ডিস্কো খানে তাঁর সঙ্গ দেওয়ার জন্য, তাঁকে প্রেরণা দেওয়ার জন্য। আজ বাবা বোধহয় এই দৃশ্য দেখার পর কোথাও বসে হাসছেন। তবে আজ যদি বাবা উপস্থিত থাকতেন তবে সময়টা আরও কত সুন্দর হতো।’ যা দেখার পর স্বাভাবিক ভাবেই চোখ জল এনেছে অগণিত কেকে অনুরাগীদের। এমনকী এই পোস্টের ভিত্তিতে বিভিন্ন রকমের মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে অনুরাগীদের।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Taamara (@taamara.krishna)

তবে সূত্র অনুসারে জানা গিয়েছে, বাবার প্রয়াণের পর তাঁর জন্মদিনে বেশ বিষন্নতার মধ্যে দিয়ে অতিবাহিত হচ্ছিলেন মেয়ে তামারা। সোশ্যাল মিডিয়াতে বাবার জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়ে তিনি লেখেন, “শুভ জন্মদিন বাবা। আজকের এই দিনটাতে খুব মিস করছি। মিস করছি ঘুম থেকে উঠেই কেক খেতে বসে যাওয়ার মুহুর্ত। আশা করি তুমি যেখানেই বসে আছ সেখানে যত ইচ্ছা তত কেক খেতে পারছ। আশা করব আজ আমাদের গান শুনতে পাবে। সব তোমার জন্য।” যা দেখার পর অনেকেই মন্তব্য করেছেন, কেকে আজ হয়তো আর আমাদের মধ্যে নেই, কিন্তু তাঁর গান, তাঁর সৃষ্টি সমস্তটাই অনুরাগীদের মনে গেঁথে রয়েছে এবং আগামী দিনেও থাকবে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর