fbpx

মদন মিত্রের নীলমাধব কি তবে রুদ্রনীল! তৃণমূল বিধায়কের কবিতা এখন ভাইরাল

অনীশ দে, কলকাতা: কয়েকদিন আগেই পঞ্চমবার সি.বি.আই তলবের পর অনুব্রত মণ্ডল বুকে ব্যাথা নিয়ে ভর্তি হন উডবার্ন ব্লকে। এই দেখে বিরোধী দল এমনকি তার নিজের দল তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন। অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে অনুমাধব নামের একটি কবিতা পাঠ করেন নিজের ফেসবুকে। এবার ‘বাংলার ক্রাশ’ মদন মিত্র নিজের ফেইসবুকে একটি কবিতা পাঠ করলেন(Madan Mitra Poem)।কবিতার নাম নীলমাধব। তবে এ যেনো পুরনো কবিগানের লড়াই মনে করিয়ে দিচ্ছে বাঙালিকে(Madan Mitra Poem)।

এই ভার্চুয়াল কবির লড়াই দেখে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। মদন মিত্রের লেখা কবিতার(Madan Mitra Poem) নাম ‘নীলমাধবের আর্তনাদ’। রুদ্রনীলের অনামাধবের ন্যায় এই কবিতার পরতে পরতে রয়েছে ব্যঙ্গ। বুধবার নীল ষষ্ঠী, তার আগেই রুদ্রনীলকে বিধলো মদনবান। মদন মিত্র লিখেছেন, “বিজেপি-তে উপোস করে হয়েছ শুকনো বিল!”, এরপর তিনি বলেন “জল তোমার শুকিয়ে গেছে রসও রসাতলে, কী যে কষ্ট কী যে দুঃখ তোমার দাড়ি-ই কথা বলে।” তবে কি মদন মিত্র(Madan Mitra Poem) এখানে রুদ্রনীলের কাজ না পাওয়াকে ব্যঙ্গ করেছেন? কারন কয়েকদিন আগেই রুদ্রনীল অভিযোগ জানান যে বিরোধী রাজনীতি করায় তিনি আর কাজ পাচ্ছেন না।

rudranil feature

ইতিমধ্যেই খবর পাওয়া যাচ্ছে রুদ্রনীল গেরুয়া শিবিরও ত্যাগ করতে চলেছেন। এখনও অবদি রাজ্যের প্রায় সব দলই তিনি যোগদান করেন। কিন্তু বিজেপি ছাড়ার গুঞ্জন আসতেই তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেন আনুমাধব কবিতাটি। যেখানে সিবিআই থেকে শুরু করে গরু পাচার, গুর বাতাসা, বড়ো ভুঁড়ি  কোনো কিছুই বাদ যায়নি সেই তালিকা থেকে। এদিকে মদন মিত্রও তাকে কথা শোনাতে ছাড়েনি। কিন্তু রুদ্রনীল কি এখনও রাজনীতিতে আছেন? এই নিয়ে এখনও জল্পনা হচ্ছে। তবে রুদ্রনীল জানিয়েছেন তিনি দল ছাড়ছেন না।

rudranil 2rudranil 2

আরও পড়ুন: সেদিনের ইউভান আজ স্কুলে যাচ্ছে! ভাইরাল একরত্তির ফটো, ছেলেকে নিয়ে আবেগপ্রবণ মা শুভশ্রী

১৪ মাস তার হতে কোনো কাজ নেই, এই কথা শোনার পরেই গুজব ছড়ায় বলে তার দাবি। রুদ্রনীলের কবিতা বরাবরই সাধারন মানুষের মন কেড়েছে। কিন্তু এইবার মদন মিত্রের কাছ থেকে কবিতা শুনে উত্তাল নেট দুনিয়া। রুদ্রনীল অবশ্য বলেছেন, “ভালো লাগছে, পেট্রোল বোম্বের বিরুদ্ধে কবিতা ছুঁড়ছে স্বাসক দলের বাহিনী”। তিনি আরো জানান, “এটা কবিতা না সাহিত্য না শিল্প না অন্য কিছু? সেটা বাংলার শিক্ষিত মানুষেরা বিচার করবেন। উনি বয়সে বড়। তাই আমি হাসব না”।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর