fbpx

কেউ পড়ে নেশা নিয়ে, কেউ গড়ে রেকর্ড! নেপোটিজম নয়, নিজের দক্ষতায় সাঁতারে প্রথম মাধবন-পুত্র

আনীশ দে, কলকাতাঃ বলিউড হোক কিংবা তামিল ছবি, সব জায়গাতেই নিজের অভিনয় দক্ষতার মাধ্যমে দর্শকদের মন জয় করেছে রাঙ্গানাথান মাধবন বা আর মাধবন (R Madhavan)। দেশের সেরা পরিচালকদের সাথে কাজ করেছেন এই অভিনেতা, তা সে রাজকুমার হিরানি হোক কিংবা মনি রত্নম। তবে বাকি অভিনেতাদের মত তাঁর জীবনে গ্ল্যামার দেখা যায় না। তা ছাড়াও বাকি স্টার কিডরা যেখানে বাবা মায়ের পথ অনুসরণ করে অভিনয়ে নিজের ভাগ্য পরীক্ষা করেন। তার চেয়ে একেবারে বিপরীত পথে হেঁটেছেন মাধবন পুত্র (Vedaant Madhavan)। ছোটবেলা থেকে সাঁতার শেখাই ছিল তাঁর মূল লক্ষ্য। এমনকী আগে দেশের জন্যে পদক পর্যন্ত জিতেছিলেন মাধবন পুত্র বেদান্ত (Vedaant Madhavan)।

 

এবার আরও এক নয়া রেকর্ড গড়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিল বেদান্ত। সম্প্রতি মাধবন নিজের টুইটারে ছেলের এই প্রাপ্তি সম্পর্কে সবাইকে অবগত করেন। নিজের টুইটারে তিনি লেখেন, ‘কখনও না বল না, ১৫০০ মিটারের জাতীয় জুনিয়র রেকর্ড ভেঙ্গেছে বেদান্ত’। এই টুইটে নিজের ছেলেকে ট্যাগও করেন মাধবন। তাঁর এই টুইটের উত্তরে একাধিক অনুগামী বেদান্তকে সুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এর আগেও অভিষেক বচ্চন থেকে শুরু করে এশা দেওল, রাহুল বোস শুভেচ্ছা জানায় বেদান্তকে।

মাধবনের পুত্র পদক পাওয়ায় বলিউড বিদ্বেষীরা বলিউডকে অপমান করতে একচুল জায়গাও ছাড়েনি। এমনকি শাহরুখ খানের (Shah Rukh Khan) পুত্র আরিয়ান খান (Ariyan Khan) ড্রাগ মামলায় জড়ানোর পর মাধবনের (R Madhavan) উদাহরন টেনে চাঁচাছোলা আক্রমন করা হয় শাহরুখকে। এমনকি বাকি স্টার কিডরা যেখানে শুধু পার্টি, পাব ও মাদকের নেশায় বুঁদ হয়ে থাকে, সেখানে মাধবন পুত্র একের পর এক পদক এনে দেশের নাম উজ্জ্বল করছে, এমনটাই মত নেটিজেনদের। মাধবন নিজেও অবশ্য একাধিকবার বলিউডের কার্যপ্রণালী নিয়ে মুখ খুলেছেন।

maddy 4

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে রকেটরিঃ দ্যা নাম্বি এফেক্ট। বিজ্ঞানী নাম্বি নারায়নের জীবনের উপর তৈরি হয়েছে এই ছবিটি। শাহরুখ ও মাধবন পুত্রের মধ্যে সবসময় তুলনা চললেও এই ছবির হিন্দি ভার্সনে এক বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেন কিং খান। এই ছবির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন দর্শক। এমনকি মাধবন নিজেও জানান, এই গল্পটি বলা খুব প্রয়োজন ছিল। তাছাড়াও এই ছবির জন্যে কোনও প্রযোজক খুঁজে না পাওয়ায় ছবিটির প্রযোজনা এবং পরিচালনার দায়িত্ব নেন মাধবন। এখনও পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী বক্স অফিসে মোট ৩৩ কোটি টাকার ব্যাবসা করেছে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর