fbpx

Mithai new episode: বিয়ে করে নেই শান্তি! রাত কাটতেই মাথা গরম করে ঘর ছাড়া রুদ্র, কাঁদো কাঁদো নীপা

বাংলা বিনোদন জগতের সর্বাধিক জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল ‘মিঠাই’ ( mithai ) । হাসি মজায় একেবারে জমজমাট জি বাংলার এই ধারাবাহিকটি। ধারাবাহিকে প্রতিনিয়তই আসে নতুন চমক। আর এসব দেখায় দর্শকদের উত্তেজনারও শেষ নেই। সেকারণেই টিআরপি তালিকায় একটানা প্রথম স্থান অধিকার করে এসেছে মিঠাই। টেলিভিশনের পর্দায় সেরা ধারাবাহিকের কথা উঠলেই একটাই নাম আসে, ‘মিঠাই’। সম্প্রতি ধারাবাহিকে চলছে রুদ্র নীপার বিবাহ পর্ব। আর এই পর্ব নিয়েই বেশ আমেজ ছড়িয়ে পড়েছে দর্শক মহলে।

কয়েকদিন ধরে মনোহরায় বিবাহ পর্ব চলছে। পাত্র-পাত্রী আর কেউ নয়, সকলের আদরের নীপা এবং রুদ্র। নিজের মাকে অমান্য করে রুদ্রকে বিয়ে করেছিল নীপা। সেই কারণেই শত আনন্দের মধ্যেও মোদক পরিবারের উপর ছিল বিষাদের ছায়া। রুদ্রকে কোন মতেই জামাই হিসেবে মেনে নিতে চায় না নীপার মা সুলতা। দেখা যায়, বিয়ের পর রুদ্র তার শাশুড়িকে প্রণাম করতে গেলে, সেই প্রণাম না নিয়েই সেখান থেকে সরে আসে সুলতা। তখনই কারও বুঝতে বাকি থাকে না যে, রুদ্রকে জামাই রূপে মানতে নারাজ তিনি।

img 20220722 184947

শাশুড়ির এই ব্যবহারে মন খারাপ করে বসে থাকে রুদ্র। ঠিক করে সেই বাড়িতে আর থাকবে না সে। এই ভেবে অফিস চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বাড়ির নতুন জামাই। তবে কী এখানেই ঘটবে ভাঙ্গন? না, সেই সময়ই ধারাবাহিকে দেখা যায় নতুন চমক, যা রীতিমত দর্শকদের তাক লাগিয়ে দেয়। যে মুহূর্তে রুদ্র স্থির করে বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়ার, ঠিক সেই মুহূর্তে সেখানে হাজির হয় সুলতা। নতুন জামাইকে সে বলে বিয়ের পর কোথাও গেলে চলবে না, সেখানেই থাকতে হবে। একথা শুনে বাড়ি শুদ্ধ সকলের মুখে ফোটে হাসি।

শত আপত্তির পরও অবশেষে মেয়ে জামাইকে মেনে নিয়েছে সুলতা। এর থেকে আনন্দের আর কি কিছু হতে পারে? আর এই আনন্দের মুহূর্তে মোদক পরিবারে গান বাজনা হবে না, তা হয় না। আনন্দের মুহূর্তকে আরও জোরদার করতে গান ধরে বসে সিদ্ধার্থ। পতিদেবের সঙ্গে গান ধরল মিঠাই। এরপর এক এক করে গলা মেলাতে শুরু করল রাতুল- শ্রীতমা এবং সন্দীপ-পিঙ্কিও। আনন্দের মুহূর্ত যাকে ঘিরে সে গান করবে না তা হয় নাকি! সকলের সঙ্গে গান ধরল নীপাও। শত বাধার পর শেষমেষ খুশির ঝলক দেখা দিল ‘মনোহরা’য়।

 

google-news-icon

লেটেস্ট খবর