fbpx

Mithai: সুস্থ হতেই বাড়ি মাথায় তুলল মিঠাই! রান্নাঘর নিয়ে শাশুড়ির সঙ্গে লেগে গেল বচসা

প্রত্যুষা সরকার, কলকাতা: জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই ( Mithai )। কয়েকদিন আগেই এক বড় বিপদের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে মোদক পরিবার। ওমির ছোঁড়া গুলিতে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে বাড়ি ফিরেছে মিঠাই। তবে বাড়ি ফিরেও পুরো রেস্টে মিঠাই। সিদ্ধার্থ কোনো কাজই করতে দেয়নি মিঠাইকে৷ মিঠাই বাড়ি ফিরেই আবার জমজমাট মোদক বাড়ি। নীপা-রুদ্রর ফুলসজ্জাও হয়েছে ধুমধাম করে।

এরপরই আসে ওমির সড়ক দুর্ঘটনা খবর। শত্রু হলেও ওমির মৃত্যুর খবর শুনে ভেঙে পরেছিল মোদক পরিবার। এমন পরিস্থিতিতে আগরওয়াল পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে মোদক ( Mithai ) পরিবার। যদিও ওমির এই মৃত্যুর খবর কিছুতেই সত্যি বলে মানতে পারছে না সিদ্ধার্থ। সে মনে করছে এটাও ওমির কোনো নতুন ষড়যন্ত্র।

img 20220813 153204

মিঠাই আর তাঁর নতুন শাশুড়ীর মধ্যে একটি সুন্দর সম্পর্ক। শাশুড়ি খুবই ভালবাসেন বৌমাকে। অসুস্থ বৌমাকে ( Mithai ) কোনও কাজই করতে দেন না তিনি। ডানদিকে গুলি লাগায় ডান হাত বাঁধা ছিল তাঁর। তবে সুস্থ কয়েছে মিঠাই তাই হাতও খুলে দিয়েছে। আর সুস্থ হতেই রান্না ঘরে মিঠাই। এবার নাকি নিজেই রান্না করবে সে কারণ এখন পুরোই সুস্থ সে। আর এই নিয়েই শাশুড়ির সঙ্গে শুরু হয় ঝগড়া।

img 20220813 153125

না না ওরকম ঝগড়া না। এ একেবারে মিষ্টি ঝগড়া। রান্না ঘরে লুচি করছে মিঠাইয়ের ( Mithai ) শাশুড়ি। আর সেখানেই মিঠাই গিয়ে রান্না করতে চাইলে রান্নাঘর থেকে চলে যেতে বলে তাঁকে। কিন্তু নিজেকে একেবারেই সুস্থ বলে দাবী করে মিঠাই। আর বার বার রান্না করতে চায়। কিন্তু কিছুতেই তাঁর কথায় রাজি হননা তিনি। বলেন, ‘বাবা এসে তাঁকে রান্না ঘরে দেখলে বকাবকি করবে’।

আর ঠিক এই সময় এসে উপস্থিত হন সোমদেব মোদক। মিঠাইকে রান্না ঘরে দেখেই রেগে যান তিনি। বাইরে বেড়িয়ে আসতে বলেন তিনি। মিঠাই ( Mithai ) তখন নিজের হাতে চা বানিয়ে বাবাকে দেয়। ‘মিঠাইয়ের স্পেশালা চা, শাশুড়ি মায়ের মত পাতলা না’, এটা শুনতেই লুচি গড়ার বেলুননিয়ে তেরে আসেন মিঠাইয়ের শাশুড়ি। আবার আগের মতোই খুনশুটিতে মেতে উঠেছে মোদক বাড়ি। প্ল্যান চলছে রাখি পূর্ণিমার।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর