fbpx

থামেনি দ্বন্দ্ব, পল্লবীর পর আবার রহস্যমৃত্যু বাঁশদ্রোণীর উনিশ বছরের মডেলের

আত্মহত্যা নাকি খুন? উঠতি মডেলের দেহ উদ্ধারের ঘটনায় আবার চাঞ্চল্য ছড়াল বাঁশদ্রোণী এলাকায়। বাঁশদ্রোণী থানার উল্টোদিকের বহুতল থেকে শনিবার রাতেই উদ্ধার হল তরুণীর দেহ। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তদন্ত শুরু করেছে। তরুণীর সঙ্গীকে ইতিমধ্যেই পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মৃত তরুণীর নাম পূজা ধর। গোবরডাঙা হিন্দু কলেজে পড়তেন তিনি। মডেলের পৈত্রিক বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা অঞ্চলে।বছর উনিশের তরুণী তাঁর সঙ্গীর সঙ্গে মাস ছয়েক হল এই ফ্ল্যাটেই থাকতেন। দুজন মিলে এই  ফ্ল্যাটটি ভাড়া নেন। প্রথমে দুটি ছেলে, দুটি মেয়ে থাকলেও পরে একাই থাকতেন তাঁরা। সঙ্গীর সাথে অশান্তি হয়েছিল কিনা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। ত্রিকোণ প্রেমের জেরেই আত্মহত্যা নয়তো? কী বিষয় নিয়ে রোজ ঝগড়া হত বান্ধবীর সঙ্গে?

স্থানীয় সূত্রে খবর, প্রায়শই মধ্যরাতে বাড়ি ফিরতেন পূজা। নিয়মিত টেলি পাড়ায় যাতায়াত ছিল তাঁর। মডেল হিসেবেও এলাকায় বেশ পরিচিত হয়ে উঠছিলেন। তবে মাঝেই মাঝেই ভেসে আসত তুমুল চিৎকার চেঁচামেচির শব্দ। বচসা শুনে দু একবার পাড়া প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলেও পরে নিত্যদিনের ঝঞ্ঝাটে তারা আর থাকতে চাইতেন না। তারপরই শনিবারের ঘটনায় এলাকায় রীতিমতো তপ্ত আবহাওয়া। তরুণী খুনের ঘটনায় তার প্রেমিক যুক্ত কিনা এই নিয়ে চলছে জল্পনা? কাজের অবসাদ নাকি সম্পর্কের টানাপোড়েন মডেলের মৃত্যুতে ক্রমশ ঘনীভূত হচ্ছে রহস্য। যদি আত্মহত্যাও হয় সেসময় তরুণীর বান্ধবী কোথায় ছিলেন? কেন তিনি জানতে পারলেন না? প্রতিটি বিষয় খতিয়ে দেখছে পুলিশ। সুইসাইড নোট পাওয়া যায়নি। তরুণীর বান্ধবীর বয়ানে রয়েছে শনিবার রাতে অনেক গল্প আড্ডা মজা করেন। তারপর ঘুমাতে যান। সকালে ডাকাডাকিতে সাড়া না পাওয়া গেলে তিনি পুলিশে খবর দেন। এই মুহূর্তে বয়ান যাচাই করে দেখা চলছে।

 

পল্লবী, বিদিশা, মঞ্জুষার সহ একের পর এক অভিনেত্রী ও মডেলের অস্বাভাবিক মৃত্যুকে ঘিরে রহস্য দানা বাঁঁধছে। কাজের জগতে অনিিশ্চয়তা কি ডেকে নিয়ে যাচ্ছে মৃত্যুর গভীরে? নাকি রয়েছে কোনও বিশেষ চক্রান্ত?

google-news-icon

লেটেস্ট খবর