fbpx

Monti Roy:শরীর নয় মন নিয়ে চলেছে সমাজের কাটাছেঁড়া! কেমন ছিল ‘মন্টি’র পুরুষ থেকে নারী হয়ে ওঠার সংগ্রাম?

‘মনে সে নারী, দেহে সে পুরুষ’ এ ঘটনা নতুন নয়। ধর্মের ছায়ায় দেখলেও স্বয়ং ভগবান শ্রী চৈতন্যের ছিল এই অনুভূতি। তবে বাস্তবের মাটিতে যদি কোন পুরুষ জানায় ‘অন্তরে সে নারী’ তবে সমাজ একবাক্যে বলে ওঠে “ছিঃ! এ আবার হয় নাকি”।হয়,পরমা সুন্দরী অভিনেত্রীদেরও রূপের ছটায় হার মানায় সে। তাঁর একটা চাহনিতে রাতের ঘুম উড়ে যায় হাজার পুরুষের। কার কথা বলছি? সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে তাঁকে সকলেই চেনেন। মন্টি রায়।

 

ভুল শরীরে জন্ম মন্টির। চোখে হাজার স্বপ্ন। নায়িকা হওয়ার ইচ্ছা আর নাচটা ভালোবাসা। সবকিছু শেষ হয়ে যেত সমাজের চোখ রাঙানিতে। তবে থেমে থাকেনি মন্টি। সে জানত, তার একার সৌন্দর্য মোহিত করে দিতে পারে পুরুষ সমাজকে। তবে অন্যের জন্য নয়। নিজের জন্যই বদল চেয়েছিল সে। মনের কথা শুনে সম্পূর্ণত নারী হয়ে ওঠাই ছিল লক্ষ্য। শরীরে অসংখ্য কাঁটা ছেঁড়া নিয়ে এখনও যখন ক্যামেরার সামনে দাঁড়ায় তখন নিজেকে অপ্সরার মতো মনে হয় তাঁর। যেন নবজন্ম হয়েছে মন্টি রায়ের। মন্টি নিজে মুখে বলেন, “ভুল শরীরে থাকা অত্যন্ত কষ্টের। আগে যখন নগ্ন হতাম নিজের শরীরটাকে দেখে নিজেই মেনে নিতে পারতাম না। এরপরেই সিদ্ধান্ত নিই নারী হয়ে উঠব। মন থেকে তো আগেই নারী ছিলাম। এবার শুধু সঠিক শরীর পেতে চাইছিলাম। তারপরেই নিজের ওপর বিশ্বাস রেখেই নিই সেক্স চেঞ্জের সিদ্ধান্ত।” ছোট থেকেই মেয়েদের প্রতি আকর্ষণ ছিল না,ছিল মেয়ে হয়ে ওঠার প্রবল ইচ্ছা। বরাবর পুরুষকেই পছন্দ হতো।তাঁর মা মেনে নিয়েছিলেন এই পরিবর্তন, কিন্তু বাবা বাধা দিয়েছিলেন। রাস্তাটা মসৃণ ছিল না, হাজার চড়াই উতড়াই পেরিয়ে মন্টির এখন লক্ষাধিক ফ্যান। সোশ্যাল মিডিয়া সেনসেশন এখন তিনি। নায়িকারাও তার সৌন্দর্যকে হিংসা করেন।

তবে ‘ফেম’ যেমন আছে , তেমনই আছে কটাক্ষ, কুমন্তব্য। শরীর নিয়ে ব্যঙ্গ বিদ্রুপ, স্তনের গঠন নিয়ে অশ্লীল কাঁটা ছেঁড়া। তবে এসবকে আর বিশেষ পাত্তা দেন না এই অষ্টাদশী। “নগর কীর্তন”, “সমান্তরাল”, ‘চন্ডীগড় করে আসিকী’র মতো একাধিক সিনেমায় লিঙ্গ পরিবর্তন থেকে ভুল শরীরের যন্ত্রণা দেখানো হয়েছে। তবু একবিংশ শতাব্দীতেও সমাজের একটা বিশাল অংশ ঝেড়ে ফেলতে পারেন না উনবিংশ শতাব্দীর চিন্তাধারা। তাদের মানসিকতাকে উন্নত করার আর্জি জানিয়েছেন মন্টি। কোনও ভাবেই স্বপ্নকে ‘কম্প্রোমাইজ’ করবে না সে। পনেরোতেই প্রেমে পড়েছিলেন এক পুরুষের কোনও কারণে সম্পর্কট ভেঙে যায়।এখন তিনি সিঙ্গেল, অনেককে ভালো লাগলেও সম্পর্কে যাননি। তবে সুযোগ পেলেই যে প্রেম থেকে বিয়ে কোনোটিতেই আপত্তি নেই তা স্পষ্ট জানিয়েছেন তিনি।

নিজের মতো করে সাজাতে চান ‘কেরিয়ার’। অভিনয়ের সুযোগ পেলে অভিনয়।তার নায়িকা হওয়ার ইচ্ছেকে ছাপিয়ে যায় আইটেম ডান্সার হওয়ার বাসনা। নোরা ফতেহির ভক্ত সে। চেষ্টা করেন তাঁর মতো নাচ করতে। লাস্যময়ী চেহারা আর কোমরের দোলায় মন কাড়তে চান লক্ষ লক্ষ মানুষের।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর