fbpx

যাদুকরী ‘মন কি বাত’, সাহসিকতার সিদ্ধান্তেই নরেন্দ্র মোদির বাজিমাত

রাজকুমার মণ্ডল, কলকাতা  : অনেকেই ব্যর্থ অথচ সফল নরেন্দ্র মোদীক (‌ Narendra Modi )‌ । ২০২২ বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির দুর্দান্ত পারফরম্যান্স। চার রাজ্যে ক্ষমতা ধরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। অসামান্য পাঞ্জাব প্রাপ্তি।, যাদুকরী থেকে কম কিছু নয়। রাজনৈতিক বিনিয়োগ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। পাশাপাশি উন্নয়নের বার্তা বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে ধারাবাহিকভাবে প্রচার যেমন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির  (‌ Narendra Modi )‌ ‘মন কি বাত’ মন কেড়েছে জনগনের। উত্তর প্রদেশে, পুরুষ ভোটারদের তুলনায় ৪ শতাংশের তুলনায় ১৬ শতাংশ বেশি মহিলা ভোটার বিজেপিকে ভোট দিয়েছেন। আবার  উত্তরাখণ্ডে, ৪.‌৬ শতাংশ বেশি মহিলা ভোটার বিজেপিকে ভোট দিয়েছেন। উত্তরাখণ্ডে বিধানসভায় আটজন মহিলা নির্বাচিত হয়েছেন, যার মধ্যে ছয়জন বিজেপি প্রার্থী।Narendra Modi

তাৎক্ষণিক তিন তালাককে বেআইনি এবং অসাংবিধানিক ঘোষণা করা। এর ফলে একটি শাস্তিযোগ্য অপরাধের শাস্তির ব্যাবস্থা করে একটি ঐতিহাসিক ভুল সংশোধন। মুসলিম নারী (বিবাহ বিচ্ছেদের অধিকার সুরক্ষা) আইন পাস করে শাহ বানো মামলায় সুপ্রিম কোর্টের যুগান্তকারী রায়। এনসিসিতে আরও বেশি মহিলা নিয়োগ, বিবাহযোগ্য বয়স ১৮ থেকে ২১ বছর করার  (‌ Narendra Modi )‌ সিদ্ধান্ত, দেশের প্রথম মাসিক স্বাস্থ্যবিধি প্রোটোকলকে সংজ্ঞায়িত করা ছাড়াও জন ঔষধি কেন্দ্রগুলির মাধ্যমে মাত্র এক টাকায় স্যানিটারি প্যাড সরবরাহ করা। বেকার যুবকদের জন্য মাসিক ৩০০০ টাকা ও ৬০০০ টাকা পেনশনের ব্যাবস্থা। অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মরতদের জন্য ৫ লক্ষ টাকার বীমা কভার, তিনটি বিনামূল্যে রান্নার গ্যাস সিলিন্ডার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। উত্তরাখণ্ডের কৃষকদের কিষাণ সম্মান নিধির অধীনে দরিদ্রের অতিরিক্ত ২হাজার টাকা প্রদান।

আরো পড়ুন‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌ স্মৃতির প্রশংসায় পঞ্চমুখ রমন, মান্ধানার শতরানে উচ্ছ্বাসিত রমনের সাধুবাক্যের ফুলঝুরি

বিজেপির একটি বিশাল নির্বাচনী দলের নিবেদিত ও নিঃস্বার্থ কার্যকরন রয়েছেই। বুথ স্তর থেকে শুরু করে সাংগঠনিক অনুপ্রবেশ রয়েছে। ব্লক স্তর থেকে শীর্ষ নেতৃত্বের দোরগোড়ায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কখনই জবাবদিহিতা এবং স্বচ্ছতা থেকে দূরে সরে যাননি। জনগনের  (‌ Narendra Modi )‌ নিশানায় মোদি একজন কল্যাণবাদী এবং সংস্কারবাদী হওয়ার প্রচেষ্টাকে বিস্ময়করভাবে সমানতালে ভারসাম্য বজায় রেখেছেন। কথায় আছে “মহান নেতারা নেতৃত্ব দিতে চান না, সেবা করতে চান।” জনগণের সেবা করার এই নিরলস ইচ্ছাই প্রধানমন্ত্রী মোদিকে এত জনপ্রিয়, অজেয় এবং সফল করে তুলেছে। দেশের রাজনীতিতে মোদির জাদু বিস্তৃত বলা যেতেই পারে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর