fbpx

Nawab Nandini: কমলিকার রোষের মুখে নবদম্পতি! বাধ্য হয়েই পরিবারের অজান্তে নন্দিনীর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল নবাব

জলসায় ( Star Jalsa ) চলছে একের পর এক চমৎকার পর্ব। নতুন ধারাবাহিক এনে দর্শকদের আকর্ষণ করে রেখেছে জলসা। ‘সাহেবের চিঠি’ ও ‘নবাব নন্দিনী’ ঘিরে তৈরি হয়েছে এক নতুন উন্মাদনা।ধারাবাহিকটির মুখ্য দুটি চরিত্রে অভিনয় করছেন রিজওয়ান রব্বানি শেখ ( Rezwan Rabbani Sheikh ) এবং ইন্দ্রাণী পাল ( Indrani Paul )। ইতিমধ্যেই ‘সাহেবের চিঠি’ ধারাবাহিকে ঘটে গেছে ‘বিবাহের মহাপর্ব’। সেই বিয়ে ঘিরে মানুষের উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো। তবে ‘নবাব নন্দিনী’তে বিয়ের আয়োজন হলেও ঘটে গেছে ভয়ানক দুর্যোগ। তবে আজকে জলসার পর্দায় এসছে চমৎকার প্রোমো।আসছে নতুন টুইস্ট , যা ঘিরে জল্পনার পাহাড় তৈরি হয়েছে কি সেই প্রোমো?


প্রোমোতে দেখানো হয়েছে নবাব বিয়ের বেশে বাড়িতে ঢুকেছে। পিছনে নববধূর বেশে নন্দিনী। নবাবের মায়ের মুখে হাসি ফুটলেও বৌদি যে একেবারেই খুশি হননি তার গম্ভীর মুখ দেখেই প্রমাণ হয়েছে সে কথা। তবে হঠাৎ বিয়ে করার কারণ কী? সেই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। তবে যে কারণেই বিয়ে হয়ে থাক না কেন, ভক্তেরা মিল দেখে অত্যন্ত খুশি। কী পরিস্থিতিতে কেনই বা বিয়ে হল তাঁদের? প্রোমো দেখেই বোঝা যাচ্ছে, বাড়ির কেউ এব্যাপারে কিছু জানত না। হঠাৎ করে চমৎকার ঘটেছে।

এর আগেও বিয়ে ভেঙে গিয়েছে নন্দিনীর। ধারাবাহিকে বর্তমানে নবাবের বৌদির অফিসে ব্যক্তিগত সহকারীর কাজে নিযুক্ত হয়েছেন নন্দিনী। নবাবের অগোচরে থেকে গেছে বিয়ের দিনের ভয়ংকর ঘটনা। সে জানেনা বিয়ের দিন নন্দিনীর বাবার মৃত্যু সম্পর্কে, জানেনা ঋণের দায়ে জর্জরিত তারা। কিন্তু তার আগেই কল তলায় জল ভরতে দেখে কু-মন্তব্য করছে নবাব। নবাবের এই বক্তব্যে আহত হলেও একটিবার বলেনি নিজের বাবার মৃত্যু ও দুরাবস্থার কথা। তবে বন্ধুর থেকে জানতে পেরে অনুতপ্ত হয়েছে নবাব আর সে কারণেই বিয়ের সিদ্ধান্ত? নবাব উত্তর হলে নন্দিনী দক্ষিণ। দুজনের মতের বনিবনা নেই মোটে চলে সমানে সমানে টক্কর। একজন চলে ডালে তো একজন চলে পাতায়। এমন দুই মেরুর মানুষ কীভাবে সংসার করবে সেই নিয়ে চিন্তায় ভক্তরা। তবে এই প্রশ্নের উত্তর পেতে গেলে অবশ্যই জলসায় চোখ রাখতে হবে।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর