fbpx

Neena Gupta: মিলত না কাজ! বয়স নাকি সৌন্দর্য কীসের অভাবে এমন বিপদে পড়েছিলেন পঞ্চায়েত খ্যাত নীনা?

বলিউডের প্রযোজকদের না-পসন্দ নীনা। তাই বলিপাড়ায় কাজ পেতে পোস্ট করতে হয় সামাজিক মাধ্যমে। সাম্প্রতিক সাক্ষাৎকারে তাই বিস্ফোরক নীনা।

জয়িতা চৌধুরি,কলকাতাঃ সোশ্যাল মিডিয়ার মতো ওপেন ফোরামে কাজ চাইতে লজ্জা নেই তাঁর। বলিউডে অভিনয় জীবনের শুরুর পথটা খুব একটা মসৃণ ছিল না অভিনেত্রীর। ষাটের গণ্ডি পেরিয়েও বিটাউনে কাজ পাওয়া নিয়ে দড়ি টানাটানি এখনও অব্যাহত। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেই কথাই খোলসা করেন অভিনেত্রী নীনা গুপ্তা ( Neena Gupta )। বলিপাড়ার তথাকথিত ‘নামী’ অভিনেত্রীদের জন্য নাকি পিছিয়ে পড়তে হচ্ছে বর্ষীয়ান এই অভিনেত্রীকে।

অভিনেত্রী খানিকটা অভিযোগের সুরেই বলেন নামী অভিনেত্রীদের জন্য হাত ছাড়া হয়ে যাচ্ছে তাঁর পছন্দের কিছু চরিত্র। ২০১৮ সালে নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডলে একটি পোস্ট করেন অভিনেত্রী। নিজের একটি ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে লেখেন, ‘আমি মুম্বইয়ে থাকি এবং অভিনয় করি। অভিনেত্রী হিসেবে আমি ভাল। ভাল চরিত্রের খোঁজ করছি।’ জাতীয় পুরস্কার জয়ী অভিনেত্রীর সাহসী পদক্ষেপের প্রশংসা করেছিলেন বলিউডের প্রথম সারির অভিনেতারা। বাদ জাননি প্রিয়াঙ্কা চোপড়াও ( Priyanka Chopra )। তবে তাঁর ইনস্টাগ্রাম পোস্ট দৃষ্টিগোচর বলিউডের প্রযোজকদের।

neena gupta 2

এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী সাক্ষাৎকারে জানান, ‘আমি ইনস্টা পোস্টের জন্য কাজ পাইনি। কাজ পেয়েছি ‘বধাই হো’র জন্য। ওই ছবিটি আমার কেরিয়ারের মোড় ঘুরিয়ে দেয়। ভালো অভিনেত্রী হিসেবে আমি স্বীকৃতি পাই। মানুষ আমাকে সম্মান করতে শুরু করে। ভাবতেই পারছি না এত ভালো ভালো কাজের প্রস্তাব আসছে আমার কাছে।’

neena gupta 1

ষাট বছর বয়সে হলেও এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে তাঁর কেরিয়ারের গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখী। নানান ধরণের চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। তাঁর বলিউডে অনুপ্রবেশ ১৯৮২ সালের ‘সাথ সাথ’ ছবির মাধ্যমে। ‘মান্ডি’, ‘রেহাই’, ‘দৃষ্টি’র মতো একাধিক ছবি রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। এই মুহূর্তে ছোট পর্দাতেও বেশ জনপ্রিয় তিনি। একাধিক আন্তর্জাতিক প্রোজেক্টেও কাজ করতে দেখা গেছে অভিনেত্রীকে। কাজের পাশাপাশি প্রায়শই তিনি চর্চার কেন্দ্রে থাকেন তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে। বাস্তবে চলচ্চিত্রের থেকে কম বর্ণমায় নয় তাঁর জীবন। ভিভ রিচার্ডসের সঙ্গে প্রেম হোক বা বিয়ে না করেই অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়া এবং একা মাসাবাকে বড় করে তোলা সবটা যেন এক স্বাধীন নারীর জীবন গড়ার এক রুপকথার গল্প।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর