Advertisement

ট্রোল-গসিপ-সমালোচনা, বিয়ে না, লিভইন-এ থাকা নুসরতের জীবন যুদ্ধে আজ নয়া মোড়

নুসরত জাহান, এক কথায় বলতে গেলে গত কয়েত মাসে এই নামের সঙ্গে জুড়ে গিয়েছে একাধিক বিশ্লেষণ। যার শুরুটা হয় প্রতারণা থেকে, যার অবসান ঘরে বৃহস্পতিবার বেলায়। সত্যিই কি সন্তানের জন্ম ভুলিয়ে দেবে নেট মহলকে সব গুঞ্জণ! প্রশ্নও কি আবারও ফিরে আসবে না, এই সন্তানের পিতা কে, সমাজের কিছু চিরাচরিত প্রশ্নের মাঝে নুসরতের সিঙ্গল মাদার হয়ে ওঠার লড়াইটা আজ সার্থক।

অভিযোগের আঙুল উঠেছিল, ঠিক সেই দিন, যেন এসওএস শ্যুটিং সেটে উপস্থিত হয়েছিলেন নুসরত জাহান-যশ দাশগুপ্ত। বন্ধুত্ব নাকি সেখান থেকেই গাঢ় হয়ে ওঠে। ব্যস, নেটদুনিয়া খোরাক পেয়েছিল সেদিন। তবে সেই গুঞ্জণ বিতর্কের মোড় যে কত দূর যেতে পারে, তার আঁচ পায়নি তখনও কাকপক্ষীও। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিখিল ও নুসরত একে অপরকে আনফলো করা, সামনে আছে বিবাহিক জীবনে অশান্তির খবর। নিখিল ও নুসরতে নামের মাঝে ঢুকে পড়ে যশ কাহিনি।

nusrat

সেখান থেকে ট্রিপ, সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল, একের পর এক প্রশ্ন, সবটাই সয়ে গিয়েছিলেন নুসরত, কারণ তাঁর জীবনে তখন শুরু হতে চলেছে নয়া অধ্যায়। কিছু দিনের মধ্যেই খবর সামনে আসে তিনি অন্তঃসত্ত্বা, এরই মাঝে আসে বিবাহ বিচ্ছেদের খবর। তবে বিবাহ কিসের, নুসরত সাফ জানিয়ে দেয়, এটা ছিল লিভইনের সম্পর্ক। তাঁদের মধ্যে কোনও বিয়েই হয়নি, কারণ রেজিষ্ট্রি করে বিয়ে হয়নি তাঁদের। ঠিক ঘি-তে আগুন দেওয়ার মত আরও একবার জলে ওঠে নেট দুনিয়া! প্রশ্ন ওঠে সামাজিক রীতি-নীতি নিয়ে।

তবে ঝড় থামতে দেরি ছিল তখনও, কয়েকদিনের মধ্যেই সামনে আসে মা হতে চলেছেন নুসরত জাহান। প্রশ্ন ওঠে পিতা কে! তড়িঘড়ি উত্তর দিয়েছিলেন নিখিল জৈন, জানিয়েছিলেন, তিনি এই সন্তানের পিতা নন। ব্যস, তখন থেকেই শুরু হয় নয়া জল্পনা, সিঙ্গল মাদার হতে চলেছেন নুসরত। এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন তিনি, এই সমালোচনা বা ট্রোলই তাঁকে ক্রমে শক্ত করে তুলেছে, আজ তিনি এই বিষয়গুলো নিয়ে বিন্দু মাত্র বিচলিত নন।

nusrat

এরপরের কাহিনিটা কম বেশি সকলের জানা, যশের সঙ্গে লিভইনে থাকা, রেস্তোরাতে যাওয়া, সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট, মিমি-শুভশ্রীদের পাশে থাকার ভরসা, সবটাই যেন ঝড়ের গতীতে হতে থাকে। যার অবসান ঘটে বৃহস্পতিবার বেলায়।

যশের হাত ধরেই হাসপাতালে ভর্তি হতে এসেছিলেন নুসরত, যশের উপস্থিতিতেই পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন তিনি। তবে ভোল বদলালো নেটমহল, আজ সেই সোশ্যাল মিডিয়াই ভরে উঠল শুভেচ্ছা বার্তায়। খুশির আমেজে ভাসল গোটা টলিপাড়া। শুরু নুসরতের নয়া ইনিংস। দ্য বেঙ্গলি ক্রনিকালের তরফ থেকেও রইল একরাশ শুভেচ্ছা।



Follow us on


Advertisement
Back to top button
Advertisement
Advertisement