fbpx

Nusrat Jahan: বিপদে পাশে দাঁড়ায়নি কেউ! ‛বিশ্বাসঘাতক’ বলে বন্ধুদের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন নুসরত

মন্টি শীল, কলকাতা: সম্প্রতি রূপোলি পর্দার এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাঁর ব্যক্তিগত জীবনকে কেন্দ্র করে সমালোচকদের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছেন। এমনকী নেটমাধ্যমেও একাধিকবার নেটিজেনদের বিতর্কিত মন্তব্যের শিকার হয়েছেন তিনি। আর এই আলোচিত টলিউড অভিনেত্রী আর কেউ নন, নুসরত জাহান ( Nusrat Jahan )। সূত্র অনুযায়ী, অভিনেত্রী নুসরত জাহান ২০১৯ সালে ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের ( Nikhil Jain ) সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ভীষণ জাগজমকের সঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়েছিল সেই অনুষ্ঠান। কিন্তু এর কিছুদিনের মধ্যেই নুসরত ও নিখিলের বৈবাহিক সম্পর্কে বিচ্ছেদ ঘটে।

এরপর অভিনেত্রী টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের ( Yash Dasgupta ) সঙ্গে সম্পর্কে আবদ্ধ হন। যার জেরে নেটমাধ্যমে অভিনেত্রীকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছিল জোর আলোচনা। যদিও পরবর্তী সময়ে সেই আলোচনা আরও জোরালো হয় অভিনেত্রীর পুত্র সন্তান জন্ম দেওয়ার পর। যা এখনও পর্যন্ত ক্রমবর্তমান। তবে সম্প্রতি অভিনেত্রী নুসরত জাহান ( Nusrat Jahan ) তাঁর নিকট বন্ধুদের সম্পর্কে করলেন এক বিষ্ফোরক মন্তব্য। যার জেরে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে সর্বত্র। আপনারা হয়তো সকলেই জেনে থাকবেন, টলিপাড়ায় অভিনেত্রী নুসরত জাহানের সবচেয়ে কাছের বন্ধু হিসেবে পরিচিত ছিলেন সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী ( Mimi Chakraborty ) এবং অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী ( Tanusree Chakraborty )।

nusrat jahan

বিশেষত, অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর সঙ্গে ভীষণ গভীর বন্ধুত্ব ছিল নুসরত জাহানের। অনুরাগীরা যার প্রমাণ একাধিকবার পেয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। শোনা যায়, অভিনেত্রী নুসরত জাহানের সঙ্গে নিখিল জৈনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার সময় পর্যন্ত তাঁদের বন্ধুত্বের সম্পর্ক অটুট ছিল। কিন্তু পরবর্তী সময়ে, অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে নুসরত জাহানের সম্পর্ক গড়ে ওঠার পর থেকেই তাঁদের বন্ধুত্বের সম্পর্কে চিড় ধরতে থাকে।

আর এই প্রসঙ্গে অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, ‘টলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির নিকট বন্ধুরা তাঁর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন। বন্ধুত্বের অর্থ হল বিপদের সময় পাশে এসে দাঁড়ানো। কিন্তু তাঁরা সেটা না করে রীতিমতো প্রকাশ্যে সমালোচনা করেছেন। এমনকী বসিয়েছেন বিচারসভা।’ যদিও টলিপাড়ায় কান পাতলে শোনা যায়, এই মুহূর্তে অভিনেত্রী তাঁর নিকট বন্ধুদের কাছ থেকে দূরত্ব তৈরি করেছেন। তথ্য অনুসারে, অভিনেত্রী নুসরত জাহান এবং মিমি চক্রবর্তী দুজনেই রাজ্যের বর্তমান শাসক দলের হয়ে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে জয়লাভ করে সাংসদের তকমা অর্জন করেছিলেন। এরপর সাংসদ হিসেবে লোকসভার অন্দরেও একত্রে শপথ নিতে দেখা যায় মিমি নুসরতের জূটিকে। কিন্তু এরপর সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে বদলাতে থাকে এই বন্ধুত্বের সমীকরণ। এমনকী বেশ কিছু দিন একত্রে দেখতে পাওয়া যায়নি মিমি, নুসরত এবং তনুশ্রীর জুটিকে। আর এর মধ্যেই অভিনেত্রীর এই মন্তব্যে বন্ধুত্বের সম্পর্কে চিড় ধরেছে তা কার্যত স্পষ্ট হয়ে যায়।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর