fbpx

যোগী রাজ্যে ফের বেফাঁস মন্তব্য, মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে রাখির তুলনা, তোলপাড় নেটদুনিয়া

যোগীরাজ্যে ফের একবার অসন্তোষ। বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন এক প্রবীণ বিজেপি নেতা। তবে এ যে কোনো নতুন কথা এমনটা মোটেই নয়। গত হাথরাস কান্ডের সময়েও এমনি বহু বেফাঁস মন্তব্য করে বসেছিল বহু নেতা। যা নিয়ে আগেও তোলপাড় হয়েছে নেট দুনিয়া।

কিন্তু লাভের লাভ মনে হয় কিছুই হয়নি। সব কিছু ঠাণ্ডা করে দেন রাজ্যের সুপ্রিমো। নিমিষের মধ্যে মানুষ ভুলেও যায় সব কিছু।

প্রতিবারের ন্যয় এবারও এক বেফাঁস মন্তব্য করে বসলো উত্তরপ্রদেশের বিধানসভার স্পিকার হৃদয় নারায়ণ দীক্ষিত। মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে রাখি সাওয়ান্তের তুলনা করে রীতিমতো বিতর্কের ঝড় তুলেছেন তিনি।

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের উন্নাও জেলার বঙ্গারামও বিধানসভা এলাকায় ‘প্রবুদ্ধ বর্গ সম্মেলনে’ বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে স্বল্প পোশাক নিয়ে এক উদাহরণ উল্লেখ করেন তিনি। যে বক্তব্যে তাঁর দাবি, কেউ যখন তখন চাইলেই মহান হতে পারেন না, তার জন্য প্রয়োজন গুণ ও যোগ্যতা। জ্ঞান থাকলেই তাঁকে মহান বলা যায় না বলে মনে করেন তিনি। এই প্রসঙ্গেই আরও বলতে গিয়ে তিনি মহাত্মা গান্ধীর সঙ্গে রাখি সাওয়ান্তের তুলনা করে বসেন।

বক্তব্যের মধ্যে যোগীরাজ্যের এই স্পিকার আরও বলেন, মহাত্মা গান্ধীকে সকলে ‘বাপু’ বলে ডাকেন। তিনি স্বল্প পোশাক পরতেন। শুধু ধুতি পরে থাকতেন। গায়েও থাকত কম পোশাক। তবুও তাঁকে সকলে সম্মান করতেন। এই কথার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেন, ‘যদি কাপড় খুলে ফেললেই কেউ মহান হয়ে যেতে পারে, তাহলে রাখি সাওয়ান্ত মহাত্মা গান্ধীর চেয়েও মহান হতে পারতেন।’

রাখি সাওয়ান্ত,হৃদয় নারায়ণ দীক্ষিত,মহাত্মা গান্ধী,উত্তরপ্রদেশ,বেফাঁস মন্তব্য,যোগী রাজ্য Blunt comments,rakhi sawant,mahatma Gandhi,uttarpradesh,Yogi,hriday narayan dixit

আর এই বক্তব্য টুকুই ছড়িয়ে পরে গোটা সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। এবং সাথে সাথেই কটাক্ষের মুখের পড়েন এই স্পিকার। পাশপাশি জোর তোলপাড় শুরু কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে। এরপরই টুইট করে তিনি সাফাই দেন, তাঁর বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যার করছেন কিছু মানুষ। গোটা মন্তব্য না ছড়িয়ে বিকৃত মন্তব্য মাধ্যমে তাঁকে দোষী করা হচ্ছে।

টুইট করে তিনি লেখেন, “সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার কিছু বক্তব্যকে বিকৃত করে চলছে প্রচার। আসলে এটা উন্নাওয়ের প্রবুদ্ধ সম্মেলনের দীর্ঘ ভাষণের একটি অংশ। যেখানে সঞ্চালক আমার পরিচয় দিতে গিয়ে আমাকে প্রসিদ্ধ লেখক হিসেবে ব্যাখ্যা করেছিলেন। এই পরিপ্রেক্ষিতেই বলেছিলেন কিছু বই লিখলেই কেউ প্রসিদ্ধ হয়ে যায় না।” যদিও এরপরও লাভের লাভ কিছুই হয় না। সমালোচনা থেকে বিরত থাকেনি সাধারণ মানুষ।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর