fbpx

Pakistani Reporter: লাল কাপড়েই ক্ষেপে লাল! ক্যামেরা বন্ধ হতে সাংবাদিকের চড়ে কাঁদো কাঁদো পাকিস্তানি শিশু

মন্টি শীল, কলকাতা: এ যেন এক নজিরবিহীন ঘটনার সাক্ষী থাকল সমগ্র নেটদুনিয়া। প্রকাশ্যে এক যুবককে চড় কষালেন মহিলা সাংবাদিক! অবাক মনে হলেও এটাই সত্যি। এই আশ্চর্যজনক ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানে ( Pakistan )। ভিডিয়োর সূত্র অনুসারে জানা গিয়েছে, এক পাকিস্তানি মহিলা সাংবাদিক মাহিরা হাশমি ( Mahira Hashmi ) লাহোর রঙ ( Lahore Rang ) সংবাদ সংস্থার হয়ে ঈদ-উল-আদহা উদযাপনের প্রতিবেদন করছিলেন। আর সেই মুহূর্তে সাংবাদিককে কেন্দ্র করে দাঁড়িয়ে ছিল অগণিত সাধারণ মানুষ।

ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে প্রতিবেদন করার সময় তাদেরই মধ্যে একজন যুবক ক্রমাগত ক্যামেরার সামনে এক টুকরো লাল কাপড় নিয়ে ওই মহিলা সাংবাদিকের কাজে বাঁধা দিতে শুরু করেন। তবে শুধু একবার নয়, ওই যুবক একাধিকবার ক্যামেরা চলাকালীন এই কাজ চালিয়ে যেতে থাকেন। কিন্তু থেমে থাকেননি ওই সাংবাদিকও। ওই মহিলা সাংবাদিক প্রতিবেদন শেষ করতে না করতেই তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এক কম বয়সি সাদা পোশাক পরা যুবককে প্রকাশ্যেই সজোরে চড় কষালেন। যার ভিডিয়োটি এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়াতে রীতিমতো ভাইরাল।

13c52

ভিন্ন ভিন্ন রকমের মন্তব্য আসতে শুরু করেছে এই ভিডিয়োটিকে কেন্দ্র করে। জানা গিয়েছে, এই মুহূর্তে ভিডিওটি ৩.৮ লক্ষেরও বেশী লাইক পেয়েছে। যদিও সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন ঘটনা ঘটানোর কারণ জানতে চেয়েছেন অনেকেই। কিন্তু তাঁর সদুত্তর পাননি কেউই। তবে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে দুটি দলে বিভাজিত হয়ে গিয়েছেন নেটিজেনরা। এক শ্রেণী ওই মহিলা সাংবাদিককে সমর্থন করে বলেছেন, ‘ওই যুবকটি অবশ্যই খারাপ আচরণ করছিল।’


আবার অনেকে বলেছেন, ‘এই কাজটি একেবারেই অপ্রয়োজনীয় ছিল। তা না করাটাই সমীচীন বলে মনে হয়।’ আবার কিছু কিছু জন মন্তব্য করে বলেছেন, ‘ওই যুবক যে কাজটি করছিলেন তাঁর জন্য যোগ্য উত্তর হল মার এবং ওই সাংবাদিক সঠিক কাজ করেছেন।’ এছাড়াও একাধিক মন্তব্য আসতে শুরু করেছে এই নজিরবিহীন ঘটনাকে কেন্দ্র করে। কিন্তু দিনে শেষে কেবল একটাই মন্তব্য সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। আর সেটা হল ‘সহিংসতাই সঠিক উত্তর নয়।’ তবে এই ঘটনাকে কেন্দ্র যে ফের এক নতুন আলোচনার সূত্রপাত ঘটেছে তা বলাই যায়।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর