Advertisement

ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে পর্তুগালে পাঠানোর চক্রান্ত হচ্ছে, রসিকতা রাল্ফ রাঙ্গনিকের

রাজকুমার মণ্ডল, কলকাতা  : ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিক  ( Premier League ) । স্পার্সের বিরুদ্ধে ম্যান ইউনাইটেড তারকার হ্যাটট্রিক বেশ মুল্যবান। প্রিমিয়ার লিগে টটেনহ্যাম হটস্পারের বিপক্ষে হ্যাটট্রিকটি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সেরা পারফরম্যান্স। জুভেন্টাস থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে আসার পর চোখধাঁধানো পারফরমেন্সে খুশি ক্লাব কতৃপক্ষ। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ম্যানেজার রাল্ফ রাঙ্গনিক ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। রসিকতা করে রাঙ্গনিক বলেন রোনালদোকে আবারও পর্তুগালে পাঠানো উচিত। ১৪ বছরে এটি প্রথম হ্যাটট্রিক রোনাল্ডোর। ওল্ড ট্র্যাফোর্ড ক্লাবের গুরুত্বপূর্ণ লিগের  ( Premier League )  খেলায় ইউনাইটেড টটেনহ্যাম হটস্পারকে হারায়। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো প্রথম গোলটি করে ম্যান ইউনাইটেডকে লিড দেন। পরে স্পার্স দু-‌দুবার সমতা ফেরালেও রোনাল্ডো ট্যাপ ইন করে দ্বিতীয় গোল করার পর থেমে যাননি। শেষে দুর্দান্ত হেডে দলকে জয় এনে দেন।Premier League

রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিক পেশাদার ফুটবলের ইতিহাসে সর্বকালের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় স্কোর। সেই সঙ্গে ৮০৭ গোল করে করে ফেললেন তিনি। চোটের কারণে ম্যানচেস্টার ডার্বি   ( Premier League ) মিস করেছিলেন। সুস্থ হওয়ার জন্য পর্তুগালে ফিরে যান। তিন দিনের জন্য পর্তুগালে গিয়েছিলেন। দ্রুত সুস্থ্য হয়ে ফিরে আসেন। এরপর টিম ম্যানেজার রাঙ্গনিকের সিদ্ধান্তে শুরু থেকেই খেলার কথা হয় রোনাল্ডোর। রাঙ্গনিক জানান রোনাল্ডোর পারফরম্যান্সে দলের সকলেই খুশি। তিনটি গোল দলকে অনেকটাই ভরসা দিয়েছে। বল অন এবং অফে রোনাল্ডোর এটি ছিল অন্যতম সেরা পারফরম্যান্স।

আরো পড়ুন‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌কলকাতার মহাশ্বেতা, যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন থেকে ৮০০ ভারতীয়কে রক্ষা করে আনলেন একাই

টিম ম্যানেজার রাঙ্গনিকের কথায় স্পষ্ট পুরো দলের নিয়ন্ত্রন রোনাল্ডো একাই নিয়েছিলেন। দুবার সমতা ফেরানোর পর আবার জয় এনে দেওয়া বেশ কঠিন কাজ ছিল। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর শেষ গোল অর্থাৎ হ্যাটট্রিক করে দলের সহ খেলোয়াড়দের  ( Premier League )  জয়ের মানসিকতা আরও বাড়িয়ে দিয়েছেন। রোনালদোর ফর্ম ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জন্য একটি বড় উৎসাহ ও প্রাপ্তি। কারণ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের রাউন্ড অফ ১৬ য়  দ্বিতীয় লেগে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে এই তারকা ব্রিগেড।



Follow us on


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement
Back to top button
Advertisement
Advertisement