fbpx

ধারা ৩৭৭ বিলোপের তৃতীয় বর্ষ পূর্তিতে সুখবর, সমকামীরাও পাবে সমস্ত ব্যাঙ্কিং সুযোগ সুবিধা

একসময় সমাজে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের দেখা হাত অন্য নজরে। তবে সময়ের সাথে সাথে সমাজ যত উন্নত হয়েছে তাদের বুঝতে শিখেছে। বর্তমানে সারা বিশ্বে সমানভাবে সম্মানের যোগ্য এই তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা। সমকামিতা আজ আর কোনো ব্যক্তি বিশেষের মনে অপরাধবোধ জাগায় না। ভারতবর্ষেই ইতিমধ্যেই সমকামিতা স্বীকৃতি পেয়েছে।

দেখতে দেখতে তিন বছর হয়ে গেল ৩৭৭ ধারা বিলুপ্ত হয়েছে। আর তৃতীয় বার্ষিকীতে দেশের এক বেসরকারি ব্যাংক LGBTQ সম্প্রদায়ের গ্রাহকদের জন্য এক অনন্য পদক্ষেপ নিয়েছে। এবার থেকে ব্যাংকের জয়েন্ট একাউন্ট খুলতে পারবেন সমকামী যুগলেরও। দেশে এমন পদক্ষেপ এই প্রথম, যা নিয়ে সমকামীদের মধ্যে উচ্ছ্বাস দেখা গেছে। তারা আশাবাদী ভবিষ্যৎ নিয়ে।

bank account,Axis Bank,LGBTQ community,LGBTQ,377,Equal rights,tbc,সমকামীতা,মানব অধিকার

ভারতের সমকামী সম্পর্ক এখন আর আইনত অপরাধ নয়। সমকামীদের একসঙ্গে বসবাস করাও আইনত অপরাধ নয়, তবে তাদের বিয়ের স্বাধীনতা এখনো মেলেনি। ২০১৮ সালের ৬ সেপ্টেম্বর দেশের সর্বোচ্চ আদালত ৩৭৭ ধারাকে অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করে। তারই তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে এমন উদ্যোগ বেসরকারি ব্যাংকটির। জীবন বীমা, ফিক্স ডিপোজিট, জয়েন্ট একাউন্ট একসাথে খুলতে পারবেন সমকামী যুগলেরা। নিজের একাউন্টে নমিনি হিসেবে রাখা যাবে সমকামী সঙ্গীকে।

bank account,Axis Bank,LGBTQ community,LGBTQ,377,Equal rights,tbc,সমকামীতা,মানব অধিকার

অ্যাক্সিস ব্যাংক এর এক আধিকারিক রাকেশ দেহিয়া বলেন, “অ্যাক্সিস ব্যাংকে আমাদের নীতি গুলি বৈচিত্র, ইকুইটি এবং স্বতন্ত্র জীবনযাত্রা ওপর জোর দিয়ে তৈরি করা হয়। দেশের সর্বোচ্চ আদালত যখন সমকামী কে স্বীকৃতি দিচ্ছে, তখন আমরাও আমাদের দায়িত্ব পালন করতে চাই। “দিলসে ওপেন” নামে একটি ক্যাম্পেইনের আওতায় LGBTQ সম্প্রদায়ের গ্রাহক এবং কর্মচারীদের নীতি ঘোষণা করা প্রথম ব্যাংক আমরাই। সমাজের সকল বর্গের মানুষকে পরিষেবা দিতে পেরে আমরা গর্বিত।”

এমন উদ্যোগকে শহরের বহু সমকামী নাগরিক স্বাগত জানিয়েছেন। তাদের মতে ব্যাংকের এমন সিদ্ধান্ত তাদের ভবিষ্যতের লড়াইকে লড়তে আরো শক্তি যোগাবে। একসাথে বসবাস করার জন্য সামাজিক স্বীকৃতি পাওয়া খুব জরুরী, আপাতত যৌথভাবে অ্যাকাউন্ট খোলা গেলে সেটিও ভবিষ্যতের জন্য একটা ভালো পদক্ষেপ বলে তারা মনে করেন।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর