fbpx

Rachana-Prasenjit: ৪০টি ছবিতে কাজ করেও মেলেনি প্রসেনজিতের প্রেম! প্রকাশ্যে এ কী বললেন রচনা

টলিউডের ( tollywood ) সেরা কিছু জুটির মধ্যে ষাট থেকে সত্তরের দশকে ভীষণ ভাবে খ্যাতি জুটেছিল উত্তম-সুচিত্রার। আর এই খ্যাতি এতটাই জনপ্রিয়তা দিয়েছিল যে মানুষের মনে আজও তা বর্তমান। ঠিক উত্তম-সুচিত্রার জুটির মতোই এই বাংলার বিনোদন জগৎ পরিচিত হয়েছিল আরও নতুন কিছু জুটির সঙ্গে। যাঁদের জনপ্রিয়তা আজও রয়ে গিয়েছে এই কলাকুশলী মহলে। 

টলিউডে উত্তম-সুচিত্রার ( Uttam Kumar-Suchitra ) পর প্রসেনজিতের সঙ্গে একাধিক নায়িকার জুটি ভীষণ ভাবে দর্শকদের মনে জায়গা করে নিয়েছিল। আর এই একাধিক জুটির মধ্যে আজও অমর হয়ে রয়েছে প্রসেনজিৎ-রচনা ( Prosenjit-Rachana )। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় শুধু তাঁর কো-স্টার নন, বন্ধু তথা গাইড। টলিউডের এক সময়ের সেরা জুটি তাঁরা। একের পর এক ব্লকবাস্টার সিনেমাও মানুষকে উপহার দিয়েছে প্রসেনজিৎ-রচনা। তবে তাঁদের সম্পর্কটা কিন্তু বন্ধুত্ব পর্যন্তই আটকে থেকেছে, তার বাইরে কখনই যে প্রেমের দিকে এগিয়েছে এমনটা নয়। এই নিয়ে খোদ আক্ষেপ করেছেন রচনাও। 

feature

উল্লেখ্য, প্রকাশ্যেই জাতীয় টেলিভিশনে এই মন্তব্য করেছিলেন তিনি। শ্বাশত চট্টোপাধ্যায়ের সামনে বসে এমন মন্তব্য করেন ‘দিদি নম্বর ওয়ান’ ( Didi No 1 )। টক শো ‘অপুর সংসার’-এ কয়েক বছর আগে উপস্থিত হয়েছিলেন রচনা ব্যানার্জি। সেখানেই তিনি বলেন, ‘কম করে ৩০-৪০টা ছবি এক সঙ্গে বানিয়েছি। তারপরেও  একবারও মনে হল না, রচনা ব্যানার্জির সঙ্গে একটু প্রেম করি? প্রেমিক মানুষ তো, এটা মনে হয়নি। এটা আমার প্রশ্ন, রচনাকেও দেখতে সুন্দরী। কখনও মনে হয়নি রচনার হাত ধরে একটু ঘোরা যাক, একটু প্রেমালাপ করা যাক। অথচ ৩৫টা ছবিতে নায়ক-নায়িকা।’ এই সব কথা শুনে সঞ্চালকের আসনে বসে থাকা শ্বাশত ততক্ষণে হতবাক। বলা বাহুল্য, মজা করে এই কান্ড করেছিলেন রচনা ব্যানার্জি। 

‘দিদি নম্বর ১’-এর সুবাদে বাংলার ঘরে ঘরে পৌঁছে গিয়েছে তাঁর জনপ্রিয়তা। সিনেমার পর্দা অনেক আগে ছেড়ে দিলেও পরিচিতিতে তাঁর কোনও বাঁধ পড়েনি। মানুষের অবাধ ভালবাসার সহিত আজও পর্দায় সুপারহিট সে। যার মিষ্টি হাসিতেই দিওয়ানা দর্শকগণ। অবশ্য বলে রাখা ভাল, শুধুই বাংলা নয়, হিন্দি, ওড়িয়া এমনকী দক্ষিণী সিনেমাতেও কাজ করেছেন রচনা। মানুষের কাছে তৈরি করেছেন নিজের গ্রহণযোগ্যতা।

google-news-icon

লেটেস্ট খবর