fbpx

অবিকল সাভারকার! সিনেপাড়ায় হিন্দুত্বের ছোঁয়া দিয়ে নতুন বেশে হাজির রণদীপ হুডা

জয়িতা চৌধুরী, কলকাতা: আজ বীর সাভারকারের ১৩৯তম জন্মজয়ন্তী ( Veer Savarkar Jayanti )। বলিউড খুব শিঘ্রই আনতে চলেছে তার বায়ওপিক। আর আজ তারই ভক্তদের চমকে দিয়ে রণদীপ হুডা ( Randeep Hooda ) ইন্সটাগ্রাম ( Instagram ) প্রকাশ্যে আনলেন একটি লুকের প্রথম ঝলক। আগেই জানিয়েছিলেন তিনি বীর সাভারকারের ভূমিকায় অভিনয় করতে চলেছেন। গোল ফ্রেমের চশমা, মাথায় টুপি। সেপিয়া টোনে হুডা যেন অবিকল সাভারকার!
ইন্সটাগ্রামে সেই লুক প্রকাশ্যে এনে অভিনেতা ক্যাপশনে লিখেছেন, “ভারতের স্বাধীন এবং স্বতন্ত্র হয়ে ওঠার পিছনে এক বীরের অবদান অনস্বীকার্য। তিনি হলেন বীর সাভারকার। প্রার্থনা করি যাতে ওঁর মতো বীরের চরিত্রকে পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে পারি। ওঁর আসল কাহিনি সকলের কাছে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করব। যে কাহিনি এতদিন গোপন রাখা হয়েছিল, সেই গল্প নিয়ে আসছি আমরা। বড় চ্যালেঞ্জ। তবে চেষ্টা করব। বীর সাভারকারকে কুর্নিশ।”

randeep hooda

ইতিমধ্যেই প্রকাশ্যে এসেছে ছবিটির একটি মোশন পোস্টারও ( Motion poster )। বীর সাভারকারের বেশে দেখা যাচ্ছে রণদীপ হুডাকে। ওই পোস্টারে লেখা হয়েছে- “Hindutva Dharam Nahi, Itihas Hain.” যাকে বাংলায়ে তরজমা করলে মানে দাড়ায়ে “হিন্দুত্ববাদ শুধু ধর্ম নয়, এ এক ইতিহাস।” শনিবার ওই সিনেমার পোস্টার শেয়ার করে এদিন পরিচালক মহেশ মাঞ্জরেকর লেখেন, “দেশের অন্যতম স্বাধীনতা সংগ্রামীর চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন রণদীপ হুডা।”

আরও পড়ুনঃ দিন শেষে বলিউডই অমর! বলি-সাউথ বিতর্কে বিস্ফোরক রোহিত শেট্টি

আরও পড়ুনঃ বড় পর্দা তো দূর, ছোট পর্দাতেও চিরকাল অবহেলিত প্রতিভাশালী অভিনেত্রী কনীনিকা

গত মার্চ মাসে রণদীপ হুডা তার ভক্তদের টুইট ( Twitter ) করে জানান বিনায়ক দামোদর সাভারকারের ( Vikayak Damodar Savarkar ) চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছে। লিখেছিলেন, “কিছু কাহিনী বলা হয়, আর কিছু কাহিনী মানুষ নিজে বেঁচে উপলব্ধি করে। ‘স্বতন্ত্র বীর সাভারকর’ ছবির অংশ হতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে হচ্ছে, গর্ব অনুভব করছি। এই ছবিতে কাজ করার জন্য আমি অত্যন্ত উৎসাহী।”

randeep hooda 2
তবে ছবিটি মুক্তির আগে থেকেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। পিএফআই-র অভিযোগ, বিজেপি জমানায় ‘দেশবিরোধী’ এক জন ব্যক্তিকে দেশপ্রেমী বলে প্রচারের পন্থা শুরু হয়েছে। গাঁধী হত্যায় জড়িত থাকায় অভিযুক্ত এক জনকে দেশপ্রেমী বলে দাগিয়ে তাঁর সমস্ত অপরাধ লুকনোর মরিয়া প্রয়াস চলছে বলে অভিযোগ করেছে এই চরমপন্থী মুসলিম সংগঠন। পাল্টা পিএফআইকে খোঁচা দিয়েছে হিন্দু মহাসভা এবং বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। দুই হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের প্রতিক্রিয়া, যে সংগঠনের বিরুদ্ধে জঙ্গি-যোগের ভূরি ভূরি অভিযোগ, তাদের কাছে দেশপ্রেমের শংসাপত্র নেওয়া হাস্যকর।

আরও পড়ুনঃ রাতে ঘুম আসতো না, তাই শুরু করেন ড্রাগস নেওয়া –প্রকাশ্যে এলো আরিয়ানের NCB কে দেওয়া বয়ান

google-news-icon

লেটেস্ট খবর